100 Days Work – শ্রমজীবী মানুষদের সুখবর। একাউন্টে ঢুকবে 100 দিনের কাজের টাকা। আপনি পাবেন কিনা জেনে নিন।

অবশেষে মিটতে চলেছে ১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা (100 Days Work)? রাজ্যপালের হস্তক্ষেপের পর এই সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের।
গত বছরের ৯ মার্চ থেকে ১০০ দিনের কাজের কর্মীদের টাকা আটকে রেখেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এ নিয়ে তুমুল বিক্ষোভ চলে আসছিল কয়েক মাস যাবত।

Advertisement

100 Days Work payment details in West Bengal

প্রধানত তৃণমূল সরকারের ডাকে আন্দোলনে অবতীর্ণ হয়ে ময়দানে নেমেছিলেন হাজার হাজার দরিদ্র মানুষ যারা এই প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বার বার হুংকার দিতে থাকে তারা। এমনকি কদিন আগে মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লি চলো ডাকে সাড়া দিয়ে এই সমস্ত কর্মীরা ধর্ণাও দিয়েছিলেন সেখানে গিয়ে। কিন্তু তাতেও টু শব্দটি করেনি কেন্দ্রীয় সরকার। এবার বিষয়টি হাতে নিলেন স্বয়ং রাজ্যপাল। আর তার হস্তক্ষেপের ফলেই অবশেষে নতুন মোড় এলো এক্ষেত্রে।

শেষ পর্যন্ত কি তাহলে উপকৃত হতে চলেছেন দরিদ্র অসহায় কর্মীরা? তাদের বকেয়া বেতনের সমস্ত টাকা (100 Days Work) কি এবার ছাড়তে চলেছে কেন্দ্র? আদৌ কবে পাওয়া যাবে টাকা? এসব প্রশ্ন নিশ্চয়ই আপনাদের মনে আসছে। তাহলে নিচে এ ব্যাপারে জানানো হলো।
মহাত্মা গান্ধী ন্যাশনাল এযপ্লয়মেন্ট গ্যারান্টি এক্ট বা MGNREGA একদমই কোন নতুন কর্মসূচি নয়।

Ads
রান্নার গ্যাসের দাম তথা LPG Cylinder Rate

২০০৫ সালে ভারত সরকার এই প্রকল্পের বিল পাস করে। আর আগামী বছর থেকেই চালু হয়ে যায় এই প্রকল্প। প্রধানত যে উদ্দেশ্য নিয়ে প্রকল্প শুরু হয়েছিল সেটি হল, দেশের দরিদ্র বেকার মানুষদের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে দেওয়া। প্রারম্ভের সময় থেকে শুরু করেই ব্যাপক সাড়া পায় কেন্দ্রের এই কর্মসূচি (100 Days Work). কারণ দেশের কোটি কোটি সাধারণ দরিদ্র শ্রেণীর মানুষের অন্নসংস্থান জোগাতে সক্ষম হয় কেন্দ্রের এই অভিনব প্রকল্প।

Advertisement

এই প্রকল্পের আইন অনুযায়ী সাধারণত কাজ শেষের সাত দিনের মধ্যে একজন কর্মীর একাউন্টে তার বেতনের টাকা (100 Days Work) ঢুকে যাওয়া উচিত। কিন্তু সেখানে ২০২২ সাল থেকে জমে রয়েছে এই প্রকল্পের কর্মীদের টাকা। তবে সবার ক্ষেত্রে যেমনটা হয়েছে তা একেবারেই নয়। পশ্চিমবঙ্গ থেকে যে সমস্ত মানুষ এই প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত তাদেরই বেতন আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে। কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন রাজ্য সরকার নাকি এই প্রকল্পের আইন সঠিকভাবে মানেনি।

Advertisement

আরও পড়ুন, নভেম্বরের শুরুতেই ব্যাংক একাউন্টে ঢুকবে 8000 টাকা। আপনি পাবেন কিনা জেনে নিন।

সেই কারণেই এ রাজ্যের কর্মীদের ভুগতে হচ্ছে তার ফল। কিন্তু রাজ্য সরকারও মেনে নেয়নি কেন্দ্রের এই পাল্টা দোষ।
যাই হোক, ১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা (100 Days Work) মিটিয়ে দেওয়া নিয়ে চাপানউতোর চলছে আজ বেশ অনেকদিন হলো। তৃণমূলের দলীয় সাধারণ সম্পাদক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পথে নেমে বিক্ষোভ করেছেন হাজার হাজার একশ দিনের কাজের কর্মী। একেবারে ঘাড়ে করে চিঠির বোঝা নিয়ে যেতে দেখা গিয়েছিল তাকে। এমনকী বকেয়া টাকা আদায় না করা পর্যন্ত তিনি যে আন্দোলনের রাস্তা থেকে সরছেন না সেটাও জানিয়েছিলেন।

Ads

তবে সে যাই হোক , ১০০ দিনের কাজের মজুরির টাকা (100 Days Work) আটকে রাখায় এবারের পঞ্চায়েত ভোটে তৃণমূল যে অনেকটাই সুবিধা পেয়ে গিয়েছিল তা বলাই বাহুল্য। একেবারে তৃণমূলস্তরে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সাধারণ শ্রমিক, মজদুর, গরিব মানুষ বঞ্চনার প্রতিবাদে একজোট হয়ে যান। এটা আখেরে লাভ দিয়েছে তৃণমূলকেই।

আরও পড়ুন, রেশন গ্রাহকেরা নভেম্বর মাসে কত কিলো অতিরিক্ত ফ্রী সামগ্রী পাবেন? পুরো তালিকা দেখুন।

এবার তৃণমূল সরকার বিষয়টি নিয়ে আর্জি জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসের কাছে। আর তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করা মাত্রই তিনিও ইতিবাচক ইঙ্গিত দিয়ে জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন ব্যাপারটি তিনি উপরমহলে অবশ্যই জানাবেন। সেই সঙ্গেই গ্রাম-উন্নয়ন ও পঞ্চায়েতি রাজ দফতরের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিংহও এব্যাপারে হস্তক্ষেপ করেন। তারা অনেকটাই আশাবাদী হয়েছেন বিষয়টি নিয়ে। যদিও এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে এখনো কোনো সদুত্তর পাওয়া যায়নি। এমনকি কবে টাকা মেটানো (100 Days Work) হতে পারে সে বিষয়েও কোনো আভাস দেওয়া হয়নি।
Written by Nabadip Saha.

Leave a Comment

Advertisement