Civic Police Teacher – রাজ্যের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ানোর দায়িত্বে সিভিক পুলিশ, বাড়ির পাশেই পোস্টিং! বিস্তারিত দেখুন।

রাজ্যের প্রাথমিকে শুন্যপদে নিয়োগ Civic Police Teacher, যাদের কাজ রাজ্যের নিয়ম শৃঙ্খলা রক্ষা করা। কিন্তু এবারে তাদের নতুন কাজে দেখা যাবে রাজ্যে। সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া জেলায় এমনই জেলার বিভিন্ন সিভিক পুলিশদের নিয়ে একটি মিটিং করা হয়। দেওয়া হয় প্রশিক্ষণ। কবে থেকে কোথায় কোথায় শুরু হতে চলেছে এই নতুন পাঠদান প্রকল্প, কোন সিলেবাস মেনে পড়াবেন তারা, Civic Police Teacher সবটা জানতে দেখে নেওয়া যাক আজকের প্রতিবেদন।

Advertisement

রাজ্যের প্রাথমিক স্কুল শিক্ষায় নজির বিহীন ঘটনা! ক্লাসে পাঠদানে Civic Police Teacher.

ক্রমাগত নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগে তোলপাড় রাজ্য। Civic Police Teacher নিয়ে জোর চর্চা চলছে রাজ্যজুড়ে। তবে নিয়োগের ক্ষেত্রে দুর্নীতি হওয়ার জন্য সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে রাজ্যের শিক্ষাক্ষেত্র। প্রাথমিক, মাধ্যমিক সকল স্তরের শিক্ষক নিয়োগে চরম বেনিয়মের ফলে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে বাতিল হয়েছে রাজ্যের প্রাথমিক, উচ্চ প্রাথমিক এবং মাধ্যমিক স্তরের কয়েকশো শিক্ষক শিক্ষিকার চাকরি। তবে চাকরি বাতিল কেবল শিক্ষক শিক্ষিকাদের নয়, শিক্ষাকর্মী, গ্রুপ সি এবং গ্রুপ ডি নিয়োগের ক্ষেত্রেও অসৎ প্রক্রিয়া অবলম্বন করায় বাতিল হয়েছে একাধিক চাকরি।

সব মিলিয়ে রাজ্যের স্কুলগুলির অবস্থা শোচনীয় হয়ে পড়েছে। কর্মী, শিক্ষক নেই, তাই স্কুল চলবে কীভাবে, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়। এরই সাথে, নতুন করে শিক্ষক নিয়োগে দেখা দিচ্ছে নানান আইনি জটিলতা। এমতাবস্থায়, রাজ্যের বিভিন্ন জেলাতে বন্ধের মুখে শত শত স্কুল। কেবলমাত্র বাঁকুড়া জেলাতেই আটশোর বেশী স্কুল বন্ধের মুখে। বাঁকুড়ার বন্ধ হতে চলা স্কুলগুলির পাশে দাঁড়াতে এক অভিনব উদ্যোগের কথা ঘোষণা করেছে বাঁকুড়া জেলার পুলিশ। নিয়োগ করা হচ্ছে Civic Police Teacher.

Ads

জেলা পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, এবার সিভিক ভলান্টিয়ারদের দিয়ে প্রাথমিক স্তরের পড়ুয়াদের শিক্ষাদান করানো হবে। ‘অঙ্কুর’ নামের একটি প্রকল্পের আওতায় জেলার জঙ্গল মহলের পাঁচটি থানার প্রতিটি অঞ্চলে একটি করে এবং বাকি অন্যান্য থানাগুলিতে একটি করে সর্বমোট ৫৫ টি শিক্ষাকেন্দ্র চালু করা হবে বাঁকুড়া পুলিশের তরফে। এই শিক্ষা কেন্দ্র গুলিতে মূলত প্রাথমিক স্তরের পড়ুয়াদের অঙ্ক ও ইংরেজি শিক্ষার উপর জোর দেওয়া হবে।

Advertisement

এই ব্যাংকে ফিক্সড ডিপোসিট করলেই পাবেন আসল লাভের লাভ! সর্বাধিক সুদের হার পেতে এখুনি দেখুন।

এখানকার প্রতিটি শিক্ষা কেন্দ্রেই শিক্ষকের ভূমিকা পালন করবেন সংশ্লিষ্ট এলাকার সিভিক ভলান্টিয়াররা। এই প্রসঙ্গে বাঁকুড়ার জেলা পুলিশ সুপার বৈভব তিওয়ারি বলেন একটি সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, এবার থেকে প্রাথমিক স্কুলের নিয়মিত ক্লাস শেষের পর নির্ধারিত স্কুল গুলিতেই বিশেষ ক্লাস নেবেন সংশ্লিষ্ট এলাকার সিভিক ভলান্টিয়াররা।

Advertisement

তবে জেলা পুলিশের এই উদ্যোগের চরম সমালোচনা করেছেন স্থানীয় সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ডাঃ সুভাষ সরকার। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন ”শুনলাম সিভিক ভলান্টিয়ার দিয়ে অঙ্ক, ইংরেজি শেখানো হবে। বিষয়টি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। সারা রাজ্য জুড়ে শিক্ষকের অভাব, স্কুল বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। শিক্ষক নিয়োগ করতে পারছেন না। অন্যদিকে নিয়োগে দুর্নীতি।

Ads

মিড ডে মিলে চরম দুর্নীতি, 50Kg এর বস্তায় 46Kg চাল! স্কুল শিক্ষকেরা প্রতেক বস্তা ওজন করছেন, দেখুন Video.

এমন অবস্থা হলে সরকার চালানোর দরকার নেই, ছেড়ে দিন। কাউকে ‘ভুল শেখানোর অধিকার নেই।” সিভিক ভলান্টিয়াররা ক্লাস নেবেন শুনে অবশ্য সাধারণ মানুষ, অভিভাবক এবং রাজ্যের বিরোধী শিবিরের একাংশও তীব্র সমালোচনা করেছেন।
Written by Parna Banerjee.

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement