Salary Hike – ডিএ নিয়ে রাজ্য সরকারি কর্মীদের সুখবর দিলেন শিক্ষা মন্ত্রী ও মেয়র।

বকেয়া ডিএ আন্দোলনকারীদের (Salary Hike) এবার পাল্টা জবাব দিল সরকার সমর্থিত রাজ্য সরকারের অধিকাংশ কর্মচারীরা। হাজরা মোড়ে তৃণমূল কংগ্রেসের সরকারি কর্মচারীদের ফেডারেশনের (Trinamool Govt Employees Federation) তরফে বিরাট জনসভার মাধ্যমে সরকারি কর্মচারীদের একাংশের সংগঠন যৌথ সংগ্রামী মঞ্চের DA আন্দোলনকারীদের উদ্দেশ্যে পাল্টা জবাব দেওয়া হলো। দীর্ঘদিন ধরেই কলকাতার রাজপথে বকেয়া ডিএ মেটানোর দাবিতে সরকারি কর্মচারীদের একাংশের সংগঠন যৌথ সংগ্রামী মঞ্চের তরফে বিক্ষোভ অবস্থান (DA Movement) কর্মসূচি চলছে।

Advertisement

Dearness Allowance Salary Hike

সেই কর্মসূচিতে মাঝে মধ্যেই গিয়ে যোগ দিচ্ছেন বিজেপি, সিপিআইএম, কংগ্রেস, আইএসএফ থেকে শুরু করে বিরোধীদলের একাধিক নেতারা। আর এখানেই স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে এই DA আন্দোলনের পিছনে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির ইন্ধন রয়েছে। কারণ ইতিমধ্যেই রাজ্য বাজেটে রাজ্য সরকার বর্ধিত হারে ডিএ ঘোষণা (Salary Hike) করেছে। সরকারি কর্মীরা সেই DA পাচ্ছেন। তবে তারা তাদের দাবি মত কেন্দ্রীয় হারে ডিএ মেটানোর দাবিতে আন্দোলন করছেন।

রাজ্য সরকারের প্রদেয় DA তে সন্তুষ্ট হতে পারেননি। DA মামলা এখন সুপ্রিম কোর্টে বিচারাধীন রয়েছে। এখনো পর্যন্ত সেখানে শুনানি শুরু হয়নি। আর এর মধ্যেই যৌথ মঞ্চের তরফে একাধিকবার ধর্মঘট,কর্মবিরতির মতো কর্মসূচি (Salary Hike) নেওয়া হয়েছে। গত ৬ মে হাজরা মোড়ে যৌথ মঞ্চের কর্মসূচিতে গিয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী, কংগ্রেস নেতা আব্দুল মান্নান সহ অন্যান্যরা। আর এবার তৃণমূল পন্থী সরকারি কর্মীদের ফেডারেশনের তরফে সেই হাজেরা মোড়েই পাল্টা ব্যাপক জমায়েত করে জনসভার মাধ্যমে জবাব দেওয়া হল।

Ads

কেন ডিএ পাচ্ছেন না?

তৃণমূলের ফেডারেশনের এই সভায় পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, ২০২৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি হেরে গেলেই বাংলার প্রাপ্য বকেয়া সমস্ত টাকা পাওয়া যাবে। আর তখন সরকারি কর্মীদের DA দিতে অসুবিধা হবে না। কেন্দ্রীয় সরকার বাংলাকে তার ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত করেছে। বকেয়া টাকা দেওয়া হচ্ছে না। আর সেই কারণেই রাজ্যে এই সমস্যা শুরু হয়েছে।

Advertisement

ফিক্সড ডিপোজিটে সুদের হার নিয়ে নয়া ঘোষণা করা হল সব ব্যাংকের তরফে।

ব্রাত্য বসুর বক্তব্য

জনসভার মঞ্চ থেকে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেন, সরকারি কর্মীরা একটু ভাবুন, আপনারা গরিবদের সাহায্য করছেন। মুখ্যমন্ত্রী গরিবদের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়িত করেছেন। বামপন্থীরা পাপ পুণ্য মানেন না। আপনারা যে এসব মানেন না, তা জানি। কিন্তু আমরা মানি। রাজ্যের সামর্থ্য হলে ডিএ পাবেন (Salary Hike)

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গে আরও 8% DA ঘোষণা, কত টাকা বেতন বাড়ছে?

এর আগেও এই বিষয়টি (Salary Hike) একাধিকবার আলোচনায় উঠে এসেছে। সরকারি কর্মচারীরা মোটা অংকের বেতন পান। তার উপরে সরকার তার সুবিধা মত DA প্রদান করছে। সমস্ত সুযোগ সুবিধাই তারা ভোগ করে থাকেন। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে পকেটে আরো বেশি পরিমাণে টাকা ভরানোর জন্য রাজপথে কাজকর্ম ছেড়ে দিয়ে বসে আন্দোলন করছেন। এই বিষয়টি সমাজের অধিকাংশ মানুষ ভালো চোখে দেখছেন না বলেই জানা যায়। আর তৃণমূলপন্থী সরকারি ফেডারেশনের তরফে হাজরা মোড়ে বিরাট জমায়েত এর মাধ্যমে ডিএ আন্দোলনকারী একাংশের সংগঠন যৌথ মঞ্চের বিরুদ্ধে বার্তা দেওয়া হল।

Ads

3 thoughts on “Salary Hike – ডিএ নিয়ে রাজ্য সরকারি কর্মীদের সুখবর দিলেন শিক্ষা মন্ত্রী ও মেয়র।”

  1. “আপনি আচরি ধর্ম” বলে একটা প্রবাদ আছে। যিনি বলছেন, তিনি একটু গরীবদের সাহায্য করুন না। নিজেরা তো নিজেদের বেতন, ভাতা ইচ্ছামতো বাড়িয়ে নিয়েছেন। আপনারা Pay Commission -র আওতায় আসবেন না কেন? এটাও তো চাকরি, পেনশন নেন।

    Reply
  2. গরীবের ভালো করছেন না তাদের বিপদগ্রস্থ করছেন ? অতি যদি দরদ তাহলে চাকরি বিক্রি করছেন কেন ? গরীবের ক্ষমতা আছে চাকরি কেনার ? বিজেপি হারলে ডিএ পাওয়া যাবে ? আর তৃণমূল জিতলে ডিএ দেবে এই নিশ্চয়তা কে দেবে ? যতসব নির্লজ্জ চোরের দল !

    Reply
    • বিজেপি-র হারজিতের সাথে রাজ্য
      সরকারি কর্মচারীদের D. A. পাওয়ার সম্পর্কটা কোথায় সেটাইতো বোধগম্য হলোনা। রাজ্য
      সরকারতো ইচ্ছাকৃত ভাবেই বাজেটে বকেয়া D. A. মেটানো
      বা আগামীদিনে কর্মচারীদের প্রাপ্য
      D. A. মেটানোর কোন সদিচ্ছা
      দেখাননি যা অন্যান্য রাজ্য সরকার
      বাজেটের মাধ্যমেই তার সংস্থান
      রাখেন। উপরন্তু এমন একটা পরিবেশ সৃষ্টি করা হচ্ছে যা থেকে
      এটা বোঝায়, কর্মচারীদের জন্যই
      জনগণের স্বার্থে কাজ করা ক্রমেই
      কঠিন হয়ে পড়ছে। রাজ্য সরকার
      দান, অনুদান বা খয়রাতি সাহায্য
      করুন তাতে কর্মচারীদের আপত্তির
      কোন কারণ থাকার কথা নয় কিন্তু,
      তারজন্য সরকারের আয় বৃদ্ধির
      ব্যবস্থা করতে হবে, তার পরিবর্তে
      কর্মচারীদের বেতন-ভাতায় কোপ
      পড়বে কেনো?

      Reply

Leave a Comment

Advertisement