Digital Life Certificate বা লাইফ সার্টিফিকেট

রাজ্য সরকারের পেনশনভোগীদের জন্য বড় আপডেট! চালু হতে চলেছে ডিজিটাল লাইফ সার্টিফিকেট তথা Digital Life Certificate পরিষেবা। কবে থেকে এই সুবিধা চালু হচ্ছে? এই নিয়ম চালু হলে কর্মী ও পেনশনার্স দের কি সুবিধা হবে বা পাবেন জেনে নিন।

Advertisement

Digital Life Certificate বা লাইফ সার্টিফিকেট জমা করা হল সমস্ত পেনশনারদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রক্রিয়া। কারণ এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ না করলে সরকার থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয় সেই পেনশনভোগীদের পেনশন। কিন্তু লাইফ সার্টিফিকেট জমা দেওয়ার জন্য হয় আপনাকে আপনার নিজস্ব ট্রেজারি অফিস অথবা ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছে গিয়ে যোগাযোগ করতে হয়। যা সকল প্রবীণ নাগরিকদের কাছে অত্যন্ত পরিশ্রমের একটি ব্যাপার।

Digital Life Certificate for pensioneers.

যদিও কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের অনেক আগেই অনলাইনে Digital Life Certificate সার্টিফিকেট জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া চালু করা হয়েছে সরকার মারফত। সেই অনুযায়ী তারা নিজেদের বাড়ি থেকেই বা কাছের কোন সাইবার ক্যাফে থেকে সহজেই জমা করে দিতে পারেন এই লাইফ সার্টিফিকেট। তবে এতদিন পর্যন্ত রাজ্য সরকারি অবসরপ্রাপ্ত কর্মীরা এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত ছিলেন।

Ads

কিন্তু তাদের কষ্ট দূর করতে এবার থেকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারও চালু করল এই নিয়ম। সম্প্রতি নবান্নে এই মর্মে একটি বিজ্ঞপ্তি পাস করা হয়েছে। দীর্ঘ আলোচনার শেষে এরূপ সিদ্ধান্তে অনুমোদন জানিয়েছেন সকলে। আর সেই মতো ঘোষণা করা হয়েছে খুব শীঘ্রই লাগু করা হবে এই নতুন নিয়ম। ফলে এবার সুবিধা পেতে চলেছে সকল রাজ্য সরকারি পেনশনভোগীরা। তো আসুন জেনে নিই কিভাবে অনলাইনে জমা দেওয়া যাবে এই Digital Life Certificate বা ডিজিটাল লাইফ সার্টিফিকেট।

Advertisement

গত ২০১৯ সালেই Digital Life Certificate এর ব্যাপারে একটি প্রস্তাব আনা হয়েছিল পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারের তরফে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে। তবে তখন এই নিয়ে ভাবনা চিন্তা করা হয়নি। কিন্তু সেই একই বিষয় নিয়ে সম্প্রতি চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা এবং বলা হয়েছে, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে, আগামী ৭ সেপ্টেম্বর থেকেই চালু হয়ে যাবে এই পরিষেবা।

Advertisement

সেই মতো ১ নভেম্বর থেকে ৩০ শে নভেম্বরের মধ্যে সকল রাজ্য সরকারি পেনশনভোগীরা অনলাইনে জমা করতে পারবেন তাদের Digital Life Certificate. এজন্য কেবলমাত্র দরকার একটি স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটারের। তাহলেই আপনি অত্যন্ত সহজে ঘরে বসেই এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে ফেলতে পারবেন কোনরকম পরিশ্রম ছাড়াই।

Ads
Gold Price Today (আজকের সোনার দাম)

কিভাবে জমা করতে হবে ডিজিটাল লাইফ সার্টিফিকেট?
১. প্রথমে আপনার স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটারে আপনাকে দুটি সফটওয়্যার অথবা অ্যাপ্লিকেশন ইন্সটল করতে হবে। ১. Jeevan Praman ২. Jeevan Praman Face Application.
২. এরপর প্রথম অ্যাপটি ওপেন করে নিজের আধার কার্ড, মোবাইল নম্বর এবং ইমেইল আইডি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

৩. তারপর আপনার মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি যাবে এবং সেটিকে বসিয়ে ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ করতে হবে।
৪. রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে গেলে একটি নতুন ইন্টারফেস খুলে যাবে।
৫. এখানে যথাক্রমে পেনশনারের নাম, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর, পিপিও নম্বর, পেনশন টাইপ, পেনশন অনুমোদনকারী অথরিটির নাম ও অন্যান্য বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় উল্লেখ করতে হবে।

আরও পড়ুন, সেপ্টেম্বরের শুরুতেই কমে গেল সোনার দাম। পশ্চিমবঙ্গে আজকের সোনা রূপোর দাম জেনে

৬. তারপরের সেকশনে এসে উল্লেখ করতে হবে আপনি আবার কোন চাকরি জয়েন করেছেন কিনা অথবা বর্তমানে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ কিনা।
৭. এরপর Digital Life Certificate দ্বিতীয় অ্যাপটি ওপেন করে ফেস ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। এজন্য নিজের একটি তাৎক্ষণিক ছবি ক্যামেরার মাধ্যমে তুলে সেটিকে আপলোড করতে হবে কম্পিউটার বা স্মার্টফোন থেকে।

আরও পড়ুন, চলতি মাসে একাধিক ছুটি ঘোষণা। দেখুন সেপ্টেম্বর মাসের পুরো ছুটির লিস্ট।

৮. সবশেষে ফেস ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ হলে আবার আগের অ্যাপটিতে এসে নিজের আধার কার্ড নম্বর ভেরিফিকেশন করতে হবে। আর আধার কার্ড ভেরিফাইড হওয়ার পরই আপনি সমস্ত তথ্য এবং ছবি সহ আপনার Digital Life Certificate ফর্মটিকে সাবমিট করতে পারবেন। এরপরই সম্পূর্ণ হয়ে যাবে এই প্রক্রিয়া। প্রয়োজনে আপনি আপনার লাইফ সার্টিফিকেট ফর্মের একটি হার্ডকপি প্রিন্ট করে নিতে পারেন।
Written by Nabadip Saha.

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *