New Leave Rules – ছুটির বদলে টাকা। সরকারী কর্মচারীরা ছুটি না নিলে ডবল টাকা পাবেন। নতুন আইন সরকারের।

সরকারি হোক বা বেসরকারি সকল কর্মীরাই বহুদিন একটানা কাজের শেষে আশা করেন একটিমাত্র ছুটি (New Leave Rules) পাবার। কিন্তু এই ছুটির মেয়াদ কতদিনই বা আর। বড়জোর একদিন কি দুদিন। এছাড়াও যদি কোন বিশেষ উৎসব বশত ছুটি দেওয়া হয় সেই ছুটিও অনেকদিন ধরে যে পাওয়া যায় তা নয়।

Advertisement

তাই ছুটির আনন্দ কাটিয়ে সকলকে আবার সেই একঘেয়েমি কাজে ফিরতে হয়। তবে এবার থেকে সরকারি কর্মচারীদের জন্য চালু করা হলো এমন এক বিশেষ আইন (New Leave Rules) যেখানে তারা টানা একমাস বা তার বেশিও যদি ছুটি নেয় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ করা হবে না। উল্টে তারা যতদিন বেশি ছুটি নেবেন তত দিনের হিসাব করে অতিরিক্ত টাকা তাদেরকে প্রদান করা হবে। বিষয়টা আরেকটু সহজ ভাষায় বলা যাক। কোনও সংস্থা যদি বছরে ৩০ দিনের বেশি পেইড লিভ রাখেন, তাহলে ৩০ দিনের অতিরিক্ত ছুটির জন্য কর্মীরা প্রতিদিন একদিনের বেসিক স্যালারি পাবেন।

Employees Leave Rules on new labour code

আপনারা হয়তো ভাবছেন যে এটি কোন মিথ্যা কথা। কিন্তু একদমই নয়। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় শ্রম দপ্তরের তরফ থেকে এক নির্দেশিকা জারি করে এই নিয়মের সূচনা করার বিষয়ে বলা হয়েছে। আর তাতে সম্মতি জানিয়েছে বিভিন্ন সরকারি মহলের কর্মকর্তারাও। অর্থাৎ আগামী দিনে সাপ্তাহিক ছুটির পরিমান বাড়তে চলেছে।

Ads
Education Policy - পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষানীতি চালু

২০২০ সালের কাজের সুরক্ষা, স্বাথ্য এবং কাজের অবস্থা সংক্রান্ত বিধি আইনে বলা হয়েছিল যে যে কোন কেন্দ্রীয় সরকারি দপ্তর যদি তার কোন কর্মচারীকে একটি নির্দিষ্ট বছরে ৩০ দিনের অতিরিক্ত ছুটি প্রদান করে সেক্ষেত্রে সেই কর্মচারীর অ্যাকাউন্টে ওই অতিরিক্ত ছুটির টাকা প্রদান করতে হবে সেই দপ্তরকে। কর্মচারীরা যাতে বেশি পরিমাণ ছুটি পেতে পারে তাদের প্রয়োজন মত, অন্যদিকে আবার তাদের কাজকর্মেও সঠিকভাবে উপস্থিতি বজায় থাকে তাই এই দুয়ের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতেই শ্রম দপ্তরের এরূপ Leave Rules আইন লাগু করার সিদ্ধান্ত।

Advertisement

ছুটির বদলে টাকা

তবে বর্তমানে কেবল কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন দপ্তর গুলিতেই এই New Leave Rules নিয়ম চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। যদিও অনেক রাজ্য সরকারও কেন্দ্রের নিয়মকে সমর্থন করেছে। আর তারাও নিজেদের রাজ্য সরকারি দপ্তর গুলিতে এই অভিনব নিয়ম চালু করার বিষয় ভাবছে। সে যাই হোক নতুন এই নিয়ম এখনো পর্যন্ত লাগু হয়নি কোন সরকারি দপ্তরেই।

Advertisement

এই নিয়ম লাগু হওয়ার পর কোন কর্মচারীর অ্যাকাউন্টেই ৩০ দিনের বেশি ছুটি একটি নির্দিষ্ট বছরে থাকার কথা নয়। আর যদি ৩০ দিনের অতিরিক্ত ছুটি সেই কর্মচারীকে দেওয়া হয়ে থাকে তবে সেই অতিরিক্ত ছুটির হিসাব করে পর্যাপ্ত পরিমাণ টাকা তার অ্যাকাউন্টে দিতে হবে সেই দপ্তরকে।

Ads

আরও পড়ুন, ষ্টেট ব্যাংক গ্রাহকদের সুখবর। চার্জ উঠে গেল। সব ফ্রি।

তবে কেবলমাত্র এক বছরে ছুটির মেয়াদেই নয়, এই নতুন New Leave Rules নিয়ম চালু হবার পর কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের সাপ্তাহিক ছুটির মেয়াদেও পরিবর্তন আনা হবে। নতুন নিয়ম অনুযায়ী এরপর থেকে একটি নির্দিষ্ট সপ্তাহে দুই দিনের পরিবর্তে তারা তিন দিন মোট ছুটি পেতে পারেন। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই ওয়ার্কিং ডে গুলোতে কর্মচারীদের কাজের সময়সীমা বাড়ানো হবে নির্দিষ্ট দপ্তর মারফত। তবে মনে রাখবেন, এই New Leave Rules নিয়ম কিন্তু এখনও চালু হয়নি। প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

বিক্রি হচ্ছে দেশের এই নামকরা সরকারি ব্যাংক। মহা চিন্তায় কোটি গ্রাহক।

তবে শুধু ছুটিতেই নয়, সেই সঙ্গে সরকারি এবং বেসরকারি সকল কর্মচারীর মাসিক বেতন কাঠামোতেও প্রভাব পড়তে চলেছে শ্রম দপ্তরের চালু করা এই নতুন শ্রম আইন মারফত। রিপোর্ট অনুযায়ী, নতুন আইনের মাধ্যমে সরকারি কর্মচারীদের বেসিক মাইনে গ্ৰস মাইনের ৫০ শতাংশ করা হবে বলে স্থির করা হয়েছে। সেই সঙ্গে বেসরকারি সংস্থাগুলিতে কর্মরত ব্যক্তিদের গ্রস বেতন হ্রাস পাবে বলেও জানা গেছে।

সুখবর বাংলা

Leave a Comment

Advertisement