International Space Station: এবার ভারতকে হুমকি দিল রাশিয়া। যে কোন সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে মহাকাশ স্টেশন।

International Space Station – ইউক্রেন সমস্যার জেরে আরও অনিশ্চিত হয়ে পড়ল আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের ভবিষ্যত। জোরালো প্রশ্ন উঠে গেল তার নিরাপত্তা নিয়ে।

এই যুদ্ধের সময়ে সমস্ত দেশ রাশিয়ার ওপর অর্থনীতিক প্রতিবন্ধকতা জারী করেছে যার দরুন (International Space Station) রাশিয়া ঘোষণা করেছে যে তারা আর ইন্টারন্যাশনাল মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের জন্য আর অর্থ প্রদান করবে না। যার ফলে রাশিয়ার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা রসকসমস-এর তরফে জানানো হয়েছে।

Advertisement

সে ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাকাশ স্টেশন যদি হুড়মুড়িয়ে এসে পড়ে পৃথিবীতে, তার কোনও দায় নিতে রাজি নয় রাশিয়া। তাদের মতে ভারতবর্ষে আছরে পড়ার সম্ভবনা সবথেকে বেশি। তাহলে চলুন সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে জেনে নেওয়া যাক কেন রাশিয়া এরাকোম দাবি করছে এবং এর পেছনের আসল কারন কি?

সম্প্রতি রাশিয়ার রসকসমস-এর ডিরেক্টর জেনারেল দিমিত্রি রোগোজিন একটি টুইট করেছেন এবং সেই টুইটের মাধ্যমে তিনি একটি গভীর চিন্তার প্রকাশ করেছেন। তিনি জানিয়েছেন যে ভারতের উপর আছড়ে পড়তে পারে এই মহাকাশ স্টেশন শুধু ভারতবর্ষের উপরই যে আছড়ে পড়বে সেটা নয়। আমেরিকা এবং চিনেও আছড়ে পড়তে পারে বলে দাবি করেছেন তিনি। তিনি বলেছেন যে এই যুদ্ধের সময়ে কোন দেশ আমাদের সাহায্য তো করছে না তার ওপর ইকোনোমিক প্রতিবন্ধকতা আমাদের ওপর জারী করে চলেছে যার দরুন আমরা এর এই মহাকাশ স্টেশনের খরচ বহন করতে পারব না।

Ads

রোগোজিন এও লিখেছেন, সে ক্ষেত্রে ৫০০ টন ওজনের মহাকাশ স্টেশন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কক্ষচ্যূত হয়ে আমেরিকা বা ইউরোপের উপর এসে পড়তেই পারে (International Space Station)।

Advertisement

আরও পড়ুন – পৃথিবীর সাতটি জিনিস, যা মহাকাশ থেকেও দেখা যায়।

 এই আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন পৃথিবী পৃষ্ট থেকে ৪০০ কিলোমিটার ওপরে পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করে চলেছে। আপনাদের সুবিধার জন্য বলে রাখি যে একদিনে ১৫ থেকে ১৬ বার প্রদক্ষিণ করে পৃথিবীকে। সেখানে এখনও রয়েছেন আমেরিকার চার জন ও রাশিয়ার তিন জন মহাকাশচারী।

Advertisement

আপনার সুবিধার জন্য বলে রাখি যে এর আয়তন একটি আন্তর্জাতিক ফুটবল মাঠের দৈর্ঘ্যের সমান। মহাকাশ স্টেশনে রাশিয়ার জন্য রয়েছে আলাদা একটি মডিউলও (International Space Station)। রয়েছে সব আধুনিক প্রোপালশন ব্যবস্থা। যার দরুন প্রতিবছর রাশিয়া কোটি কোটি টাকা খরচ করে এই আন্তর্জাতিক স্টেশনটির জন্য।

Ads

টুইটে রসকসমস-এর প্রধান রোগোজিন লিখেছেন, ‘মহাকাশ স্টেশন তো আর রাশিয়ার উপর দিয়ে পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করে না। তাই তা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাশিয়ার উপর এসে আছড়ে পড়বে না (International Space Station)। আছড়ে পড়বে আমেরিকা বা ইউরোপের উপর। অথবা আছড়ে পড়তে পারে ভারত বা চীনের উপরে।

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement