LIC PPF Plan – একই পরিমান টাকা রেখে 3 গুন বেশি রিটার্ন পান, LIC এর টাকা কখনো মার যাবে না।

চিটফান্ড কেলেঙ্কারীর পর বর্তমানে সরকারী সংস্থায় টাকা রাখার প্রবনতা অধিক বেড়েছে। আর এই মুহুর্তে বেশি সুদ ও জীবনের সুরক্ষার জন্য LIC PPF Plan একটি অন্যতম বিকল্প হতে পারে। একই পরিমান টাকা রেখে এই প্রকল্পে অদিক রিটার্ন পেতে পারেন। আর সবচেয়ে বড় কথা এখানে ট্যাক্স ছাড়, লাইফ কভারেজ ও সারা জীবন এই প্ল্যান একই সুদের হারে পেতে পারেন। কারন সুদের হার কমছে, তাই পোষ্ট অফিস বা ব্যাংকে ৫ বছর পর এই হারে সুদ পাবেন না। কিন্তু LIC PPF Plan তে সারা জীবন একই হারে রিটার্ন পাবেন।

Advertisement

দেশের অধিকাংশ মানুষই ব্যাংকের সুদের ওপরে নির্ভরশীল। তবে বেশ কয়েক বছর ধরেই এই সুদের হার নিম্নমুখী। কারণ, গোটা দেশ তথা বিশ্বের অর্থনীতি বেশ খারাপ পরিস্থিতির সম্মুখীন। এই পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি রিটার্নের জায়গা হল প্রভিডেন্ড ফান্ড। আর এটি সাধারণের জন্য পিপিএফ প্ল্যান। আর LIC PPF Plan তার মধ্যে অন্যতম বিকল্প হতে পারে।

প্রসঙ্গত ব্যাংকে আগে বেশ ভালো সুদ পাওয়া গেলেও এখন এই সুদের হার কমতে কমতে 7.1% তে এসে দাঁড়িয়েছে। আর আর্থিক মন্দা চলতে থাকার ফলে তা আরো কমার সম্ভাবনা দেখা দিচ্ছে। এক্ষেত্রে তুলনামূলক ভাবে বিচার করে দেখলে এলআইসি পলিসির LIC PPF Plan বেশ লাভজনক।

Ads

LIC PPF Plan পিপিএফ প্ল্যান:

পিপিএফ এর সাথে তুলনায় এলএইসি পলিসিতে আরো বেশি রিটার্ন পাওয়া সম্ভব। তবে দেখে নিন কিভাবে এই রিটার্ন পাওয়া যাবে।
বর্তমানে এই সুদের হার 7.1%. তবে এই হার কেমন হবে তা নিয়ে বাজারের ওপরে ভিত্তি করে প্রতি 4 মাস অন্তর বৈঠক করেন নির্দিষ্ট আধিকারিকেরা। এর পরে ঐ বৈঠক অনুযায়ী সিদ্ধান্ত হয় যে সুদের হার কেমন হবে।

Advertisement

দেশের সবচেয়ে লাভজনক স্কীম, এখানে টাকা রেখেছেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও।

এই পিপিএফ এর নিয়ম হলো, যে হারে সুদ ঘোষণা হবে, আপনি সেই হরেই সুদ পেতে থাকবেন। যদি সুদের হার কমে যায় তাহলে ঐ কম হারেই সুদ পাবেন। কিন্তু এলআইসি এর ক্ষেত্রে হিসেব টা অন্যরকম।
এলআইসি প্ল্যানের সুবিধা হলো, আপনি যেই হারে যেদিন প্ল্যানের অন্তর্ভুক্ত হবেন, সেই নিশ্চিত হারেই সুদ পেতে থাকবেন।

Advertisement

এক্ষেত্রে আপনি অনেক বেশি লাভবান হতে পারেন। পরবর্তীতে সুদের হার কমলেও তার প্রভাব আপনার প্ল্যানে পড়বে না। আর এক্ষেত্রে আমানতকারীর অকাল প্রয়াণে সব টাকা ফেরত পাওয়া সম্ভব। এক্ষেত্রে দুর্ঘটনা জনিত কারণে মৃত্যু হলে 25 লক্ষ টাকা এবং স্বাভাবিক মৃত্যু হলে 12.5 লক্ষ টাকা ফেরত পাওয়া সম্ভব।

Ads

দিওয়ালী ধামাকা, ব্যাংকে একাউন্ট থাকলেই RBI দিচ্ছে বিরাট উপহার, এখুনি লুফে নিন।

15 বছরের প্ল্যান নিলে আমানতকারী প্রতি বছর 1 লক্ষ টাকা করে পাবেন। আর 15 বছর শেষ হবার পরে মারা গেলে পূর্বে প্রতি বছরে 1 লক্ষ করে তো পেয়েছেন। উপরি 12.5 লক্ষ টাকা এবং সময়ের ওপরে ভিত্তি করে বোনাস পেয়ে যাবেন।
প্রতি বছর যদি 1 লক্ষ করে টাকা জমা করেন তাহলে, হিসেব মতো 15 বছর পর বিনিয়োগকারী যতদিন বাঁচবেন, ততদিন 1 লক্ষ টাকা করে পাবেন।

এক্ষত্রে LIC PPF Plan এ 100 বছর বাঁচলে পাবেন 80 লক্ষ টাকা। এক্ষেত্রে চাইলে টাকা তুলেও নেওয়া যাবে।
LIC PPF Plan এর ম্যাচুরিটির পর যখন খুশি টাকা তুলে নিতে পারে, ধরা যাক বিনিয়োগকারী 15 বছর ধরে প্রতি বছর 1 লক্ষ টাকা পাওয়ার পর যেদিন তিনি টাকা তুলতে চান, তবে তিনি পাবেন 37,97,000 টাকা। আর যদি 15 বছর পর বিনিয়োগকারীর মৃত্যু হয় তবে স্বাভাবিক মৃত্যু হলে নমিনি পাবেন 42,20,000 আর দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলে পাবেন 54,70,000 টাকা।

এমন আরো বিনিয়োগ সংক্রান্ত খবর পেতে আমাদের সাথে থাকুন। প্রতিবেদন ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করতে ভুলবেন না। আপনার মতামত জানাতে পারেন কমেন্ট বক্সে। ধন্যবাদ।
Written by Mukta Barai.

সুখবর বাংলা

Leave a Comment

Advertisement