Madhyamik Result 2022 : মাধ্যমিকে নিয়ে বড় খবর! রেকর্ড সংখ্যক ফেলের সম্ভবনা এবছর, গুঙ্গন শিক্ষক মহলে

Madhyamik Result 2022 : অন্ধকারে পরীক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ! খাতায় নেই পাস নম্বর, কপালে ভাঁজ শিক্ষা মহলের, জানুন বিস্তারিত

গত দুই বছর অতিমারির কারনে ঠিকঠাক ভাবে মাধ্যামিক পরীক্ষা (Madhyamik Result 2022)  অনুষ্ঠিত না হলে ও এবছর আবার স্বমহিমায় ফিরে এসেছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। সেই আগের মতো চাপা উত্তেজনা আর আবেগ নিয়ে গত ৭ মার্চ থেকে শুরু হয়েছিল মাধ্যামিক ২০২২ যা অতিবাহিত হয়েছিল ১৬ মার্চ পর্যন্ত। বিগত বছর গুলোর মতো এ বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়েও সমালোচনা নেহাতি কম ছিল না। উত্তরপত্র নিয়ে নানান নজিরবিহীন ঘটনা ইতিমধ্যেই সকলের নজরে এসেছে।

Advertisement

আরও পড়ুন, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক পাস করলেই পাবেন এই স্কলারশীপ, অনেকেই জানেনা এটা, এখনই আবেদন করুন।

কিন্তু এবার মাধ্যামিক নিয়ে সামনে এলো এক নতুন সমস্যা। শোনাযাচ্ছে এ বছর মাধ্যমিকের (Madhyamik Result 2022) উত্তপত্র দেখতে গিয়ে হিমসিম খেতে হচ্ছে পরীক্ষকদের। অনেকক্ষন ধরে খাতার উপর চোখ রাখার পরও পরীক্ষার্থীর লেখা অক্ষরটি আসলে কি সেটা বুঝতে পারছেন না অনেক পরীক্ষক। আর পারলেও অনেক সময় লেগে যাচ্ছে খাতা দেখতে। পরীক্ষার্থীরা কেউ খাতায় লিখেছেন উল্টো ‘দ’ আবার কেউবা ‘ই’ কারের মাথায় চিহ্ন দেওয়ার বদলে তা দিয়েছেন তলায়।

অনেক পরীক্ষকেরা তাদের অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে বলেন, ‘খাতা খুলে দেখি অধিকাংশই ফাঁকা (Madhyamik Result 2022) খাতা জমা দিয়েছেন অর্থাৎ কিছুই লেখেননি। কেউবা আবার হুবহু টুকে দিয়েছেন প্রশ্নপত্রটি’।  সবথেকে আশ্চর্যের খবর হল একজন ইংরেজি শিক্ষক সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া বক্তব্যে জানান, ‘নিজের নামের বানান ইংরেজিতে লিখতে গিয়ে কেউ ‘ডি’, ‘এল’, ও ‘বি’ অ্যালফাবেট উল্টো করে লিখেছে’।

Ads

এ প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে এক পরীক্ষকেরা জানান, অতিমারি আবহে দু বছর লকডাউনের জন্য স্কুল বন্ধ থাকায় পরীক্ষার্থীরা (Madhyamik Result 2022) অনেকেই অক্ষর ভুলে গেছে। একটা বা দুটো নয়। এমন অনেক খাতাই আছে যেখানে অক্ষর চেনা যাচ্ছে না।

Advertisement

মনোবিজ্ঞানের ভাষায় এই অক্ষর উল্টো করে লেখাকে বলে ‘টেম্পোরারি ডিস্লেক্সসিয়া’। মাধ্যমিকের (Madhyamik Result 2022) খাতা দেখার দায়িত্বে থাকা একজন বাংলা শিক্ষক সংবাদ মাধ্যমকে জানান, একজন পরীক্ষার্থী পুরো খাতায় বহুবার ‘দ’ ও ‘গ’  ভুলভাবে লিখেছে। অর্থাৎ দুটি অক্ষরই উল্টো লিখেছে।

Advertisement

অন্য একজন পরীক্ষক এ বিষয়ে জানান, পরীক্ষার্থীরা তাদের খাতায় অনেকগুলি প্রশ্নেরই উত্তর লিখলেও সেই লেখা পড়া সম্ভব হয়নি। পরীক্ষক খাতায় স্পষ্ট ভাবে লিখে দিয়েছেন, ‘এই লেখা পড়া সম্ভব নয়’। অন্য একজন পরীক্ষার্থী সাদা খাতাতে কিছুই লেখেনি। কেউ বা লিখেছেন পুস্পা ছবির সংলাপ।

Ads

এদিকে এবছরের মাধ্যামিক (Madhyamik Result 2022) নিয়ে কথা বলতে গিয়ে একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষক জানান, যে সকল পড়ুয়াদের বাড়িতে গৃহ শিক্ষক বা স্মার্ট ফোন ছিল না, তাদের দু বছর পড়াশোনা করাই হয়নি। যার ফলস্বরুপ তারা পরিক্ষায় একটা লাইনও লেখেনি। তাই অক্ষর ভোলাটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। জলপাইগুড়ির মাধ্যমিকের দায়িত্বে থাকা শিক্ষক সুব্রত রায় অবশ্য সকল বিষয় পর্ষদকে জানানোর কথা বলেন।

এই সকল ছাত্রছাত্রী দের ভবিষ্যৎ ঠিক কি? এই নিয়ে শিক্ষা মহলে শুরু হয়েছে ব্যপক উদ্বেগ। এই ব্যপারে আপনারই বা কি মতামত? প্লিজ কমেন্টস করে জানাবেন এবং এ সম্পর্কিত খবর আগে পেতে হলে অবশ্যই এ ওয়েবসাইটটি ফলো করতে ভুলবেন না।

আরও পড়ুন, আগামী বছর মাধ্যমিক কবে থেকে, সিলেবাস কতটা, জানালো পর্ষদ

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement