বাংলার সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের বিরাট সুখবর, পড়াশোনার টাকা না থাকলে, খরচ চালাবে সরকার।

এবার বাংলায় আর টাকার অভাবে পড়াশোনা বন্ধ হবে না, রাজ্য সরকার ফ্রি স্কলারশিপ (Letter Box Free Scholarship) চালু করেছে। এবার গরীব ও মেধাবী পড়ুয়াদের শুধু একটি চিঠি লিখলেই পড়াশোনার খরচ দেবে মমতাময়ী রাজ্য সরকার।
মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিকের ফলাফল প্রকাশিত (Higher Education) হওয়ার পরেই লক্ষ্য করা যায়, মেধাবী হওয়া সত্বেও অধিকাংশ পড়ুয়ারাই বিভিন্ন সংস্থার দোরে দোরে একটা কাজের জন্য আবেদন করছেন। তার মূল কারণ, পরিবারের আর্থিক প্রতিকূলতা। টাকার অভাবে মেধাবী হলেও উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে পারেন না, এরকম বহু ছাত্র-ছাত্রী রয়েছেন।

Advertisement

এবার সবাই স্কলারশিপ পাবে

যদিও সরকারি এবং বেসরকারি স্তরে বহু স্কলারশিপের (Scholarship) বন্দোবস্ত করা হয়েছে। তবুও সেই সমস্ত স্কলারশিপের জন্য একটি নির্দিষ্ট নিয়মবিধি রয়েছে। ফলে অনেক সময় দেখা যায় ছোট্ট কোনো একটি নিয়মের কারণে স্কলারশিপ পাওয়া সম্ভব হয় না। আর তার উপর স্কলারশিপ আবার সবার জন্য নয়। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে রাজ্য সরকারের তরফে একাধিক বন্দোবস্ত করা হয়েছে। যাতে আর্থিকভাবে পিছিয়ে থাকা পড়ুয়ারা উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে পারেন।

মমতা ব্যানার্জির ঘোষণা

আর সেই দিকে নজর দিয়েই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, রাজ্যের কোনো ছাত্র-ছাত্রীর টাকার অভাবে পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যাবে না। ২০২৩ সালের কৃতী ছাত্র-ছাত্রীদের সংবর্ধনা দেন মুখ্যমন্ত্রী। মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, মাদ্রাসা, ICSE, CBSE বোর্ডের কৃতী ছাত্র-ছাত্রীদের বিশ্ববাংলা মেলা প্রাঙ্গণে সংবর্ধনা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে কৃতী পড়ুয়াদের কাছ থেকে ভবিষ্যতের লক্ষ্য জানতে চান তিনি।

Ads

আরও পড়ুন, পশ্চিমবঙ্গে দেড় লাখ শূন্যপদে সরকারি কর্মী নিয়োগ, কোন দপ্তরে কত ভ্যাকান্সি আবেদনের আগে

ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে আলাপচারিতা এবং শুভেচ্ছা বিনিময় করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই অনুষ্ঠানেই তিনি বলেন, বহু চিঠি আমি পেয়েছি। টাকার অভাবে রাজ্যের কোনো পড়ুয়ার পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যাবে না। তার গ্যারান্টার আমি। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার ফলে গরিব পরিবারের পড়ুয়ারা এবার আগ্রহ নিয়ে পড়াশোনা করতে পারবেন। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণা নিঃসন্দেহে আর্থিকভাবে পিছিয়ে থাকা অথচ মেধাবী পড়ুয়াদের সাহায্য করবে।

Advertisement

Letter Box Scheme

শুধু তাই নয়, শিক্ষা দপ্তরে লেটার বক্স (Letter Box) তৈরীর নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। অনুষ্ঠানেই তিনি বলেন, শিক্ষা দপ্তরের কাছেও বলবো, যাতে একটি লেটার বক্স রাখার ব্যবস্থা করা হয়। যে লেটার বক্সে রাজ্যের মধ্যবিত্ত, নিম্ন মধ্যবিত্ত, গরিব পড়ুয়ারা টাকার অভাবে পড়াশোনা করতে না পারলে আবেদন জানাতে পারবেন।

Advertisement

50% নম্বর পেয়েছেন? আবেদন করুন এই 5 টি স্কলারশিপে আর পেয়ে যান পড়াশোনার সব খরচ।

Student Credit Card

সেই আবেদনগুলি পরবর্তীতে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এর আগে রাজ্য সরকার ৫০০০০ পড়ুয়াকে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের (Student Credit Card) মাধ্যমে দেড় কোটি টাকা ঋণ দিয়েছে। যার ফলে পড়ুয়ারা উপকৃত হয়েছেন। এবার মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী এই পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে আগামী দিনে রাজ্যের পড়ুয়ারা যথেষ্ট উপকৃত হতে চলেছেন।

Ads

সুখবর বাংলা

5 thoughts on “বাংলার সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের বিরাট সুখবর, পড়াশোনার টাকা না থাকলে, খরচ চালাবে সরকার।”

  1. আমার পরিবারের অবস্থা ভালো নয় তাই এই নাইন এর পর খরচা চালানো সম্ভব নই

    Reply
  2. আমার পরিবারের অবস্থা ভালো নয় তাই এই নাইন এর পর খরচা চালানো সম্ভব নই আর এখন আমার পড়াশোনা চালাতে পারবে না মাস্টারার মাইনা দিতা পারবা না

    Reply
  3. Hii ami Sayan miya amar porasona korar jonno scholarship khob dorkar Ami 10 clas pas korlam akhon Porte chaichi kintu takar porobelem tai amar scholarship bison dorkar

    Reply
  4. আমার পড়াশোনা চালানো খুবই কষ্টকর হয়ে পড়েছে। তাই সাহায্য করলে খুবই উপকৃত হব

    Reply

Leave a Comment

Advertisement