Maternity Leave – মাতৃত্বকালীন ছুটি 6 মাসের বদলে 9 মাস করার প্রস্তাব। সুবিধা হবে সরকারি, বেসরকারি কর্মী ও পড়ুয়াদের।

নয়া প্রস্তাব কেন্দ্রের, Maternity Leave নিয়ে দেশজুড়ে খুশি মহিলারা।

দেশ জুড়ে চাকুরিরতা মহিলাদের জন্য Maternity Leave বা মাতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে বিরাট সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে চলেছে কেন্দ্রের নীতি আয়োগ। এই মর্মে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে নীতি আয়োগ এর তরফে। যার ফলে ভবিষ্যতে দেশের চাকুরীরতা বা কর্মরতা মহিলারা বিরাট গুরুত্বপূর্ণ সুবিধা পেতে চলেছেন। স্বাভাবিক নিয়ম অনুযায়ী কর্মরতা মহিলারা তার কর্মজীবনে বা চাকরি জীবনে মাতৃত্বকালীন ছুটি (Maternity Leave) পেয়ে থাকেন।

Advertisement

যার ফলে শিশুর জন্ম নেওয়া থেকে একটা দীর্ঘ সময় তার সঠিকভাবে যত্ন করার জন্য প্রতিটি মা তার সন্তানকে সঠিক সময় দিতে পারেন। সদ্যোজাত সন্তানের শারীরিক পুষ্টি থেকে শুরু করে সঠিকভাবে লালন-পালনের প্রয়োজন হয়। আর তার জন্যই চাকুরিরতা মহিলাদের মেটারনিটি লিভ বা মাতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়া হয়ে থাকে। প্রথমে এই মাতৃত্বকালীন ছুটি ছিল ১২ সপ্তাহ। পরবর্তীতে সংসদে সংশোধিত মেটারনিটি বিল ২০১৬ পাশ হয়।

এই সংশোধিত মেটারনিটি বিল ২০১৭ সালে সংসদে পাস হওয়ার পরে কর্মরতা মহিলাদের মাতৃত্বকালীন ছুটি (Maternity Leave) ১২ সপ্তাহ থেকে বেড়ে ২৬ সপ্তাহ করা হয়। এবার কেন্দ্রের নীতি আয়োগ এর তরফে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, কর্মরতা মহিলাদের এই মেটারনিটি লিভ বা মাতৃত্বকালীন ছুটি ২৬ সপ্তাহ থেকে অর্থাৎ ৬ মাস থেকে বাড়িয়ে ৯ মাস করতে হবে (Niti Aayog Suggest Extend Maternity Leave to 9 Months) শিশুদের সঠিক যত্ন নেওয়ার জন্য ৬ মাসের সময়কালীন বেড়ে ৯ মাস হওয়া উচিত বলে জানায় কেন্দ্রের নীতি আয়োগ।

Ads

নীতি আয়োগের সদস্য ভি কে পল এই প্রসঙ্গে বলেন, শিশুদের সঠিকভাবে লালন পালন করা প্রয়োজন। আর তাই মাতৃত্বকালীন ছুটি ৬ মাস থেকে বেড়ে ৯ মাস করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। যাতে প্রতিটি মা তার সন্তানদের সঠিকভাবে যত্ন নিতে পারেন। ভিকে পল আরো বলেন, সমস্ত সরকারি এবং বেসরকারি সংস্থাকে চাকুরীরতা মহিলাদের মাতৃত্বকালীন ছুটি ৯ মাস করার জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এই বিষয়ে সমস্ত বেসরকারি সংস্থাকে নীতি আয়োগের সঙ্গে সহযোগিতা করা উচিত।

Advertisement

লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে টাকা কাটছে! আর টাকা পাবেন না, এই নিয়ম না মানলে।

পাশাপাশি, ভবিষ্যতে প্রবীনদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে নীতি আয়োগ। সে ক্ষেত্রে প্রবীনদের যাতে আরো যত্ন নেওয়া যায়, তাই ক্রেশ (Crèche) খোলার চিন্তাভাবনা নেওয়া হয়েছে। শিশু এবং প্রবীনদের দেশ জুড়ে সঠিকভাবে যত্ন নেওয়ার জন্য একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। পলের কথায়, নীতি আয়োগ এর (Niti Aayog) তরফে দেশের শিশু ও প্রবীনদের যত্ন নেওয়ার জন্য এই ধরনের পদক্ষেপ নিলে তাতে কয়েক লক্ষ কর্মসংস্থান তৈরি হবে। যা এই মুহূর্তে দেশের পক্ষে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। এই ক্ষেত্রে যে সমস্ত কর্মসংস্থান (Employment) সৃষ্টি হবে, তাদের সকলকেই কেন্দ্রের তরফে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে।

Advertisement

আরও পড়ুন, ট্রেনের ভাড়া বাড়ছে, নতুন ভাড়া জেনে নিন।

কেন্দ্রের নীতি আয়োগের এই প্রস্তাবের ফলে যে সমস্ত চাকুরিরতা মহিলারা (Working Women) অল্প সময়ের জন্য এতদিন মাতৃত্বকালীন ছুটি পেতেন, যার জন্য সদ্যোজাত সন্তানের সঠিক ভাবে যত্ন ও লালন-পালন করা সম্ভব হতো না, সেই দিক থেকে তারা যথেষ্ট সুবিধা পাবেন। শিশু জন্ম নেওয়ার পরে একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত তার শারীরিক পুষ্টি সহ বিভিন্ন দিকে নজর রাখতে হয় এবং সেটা সাধারণত করতে হয় প্রতিটি মাকেই। আবার সন্তান জন্ম নেওয়ার পরে অনেক ক্ষেত্রে মায়ের শারীরিক পরিস্থিতির দিকেও নজর দিতে হয়। ফলে মাতৃত্বকালীন ছুটি (Maternity Leave) বাড়িয়ে দিলে মা এবং শিশু উভয়েই উপকৃত হতে পারেন।

Ads

সুখবর বাংলা

Leave a Comment

Advertisement