School Admission – জানুয়ারী থেকে পশ্চিমবঙ্গের স্কুলে ভর্তির নতুন নিয়ম। শিক্ষা দপ্তরের বিজ্ঞপ্তি।

পশ্চিমবঙ্গের সরকারি বা বেসরকারি স্কুলে ভর্তি তথা School Admission এর জন্য জানুয়ারি থেকে চালু হতে চলেছে নতুন নিয়ম। যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীরা সদ্য স্কুলে ভর্তি হতে চলেছে তাদের জন্যই এই নিয়ম। ঘোষণা জারি করে সকলকে সাবধান করে দিয়েছে স্কুল শিক্ষা দপ্তর। বলা হয়েছে যে এবার থেকে স্কুলে ভর্তি হতে গেলে এই নিয়ম অবশ্যই মানতে হবে। নয়তো কিছুতেই ভর্তি নেওয়া হবে না রাজ্যের কোন সরকারি স্কুলে। কি সেই নিয়ম? বিস্তারিত জানতে সংবেদনটি শেষ অবধি পড়ুন।

Advertisement

New Rules for Primary School Admission in WB 2024.

স্কুলে ভর্তি হতে গেলে যে একটি ন্যূনতম বয়স থাকা দরকার সে বিষয়ে আমরা সকলেই জানি। না হলে ভর্তির অনুমতি দেওয়া হয় না। কিন্তু সম্প্রতি সেই বিষয়ে নতুন নির্দেশিকা জারি করল স্কুল শিক্ষা দপ্তর। এতদিন পর্যন্ত (Primary School Admission) কেবলমাত্র প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি হবার সময় দেখাতে হতো বয়সের প্রমাণপত্র। তারপরের শ্রেণিগুলিতে এ ব্যাপারে আর তেমন কড়াকড়ি করা হতো না।

কিন্তু এখন থেকে Primary School Admission এর জন্য নিয়ম করা হলো স্কুলের গণ্ডির মধ্যে সব শ্রেণিগুলিতেই নির্দিষ্ট বয়সসীমা ধার্য করা হবে। ছাত্র-ছাত্রীরা যদি সেই বয়সীমার মধ্যে না থাকে তাহলে তাদেরকে ভর্তি নেওয়া হবে না নতুন শ্রেণীতে। এই বিজ্ঞপ্তি মাত্র কিছুদিন আগেই প্রকাশিত হয়েছে স্কুল শিক্ষা দপ্তরের ওয়েবসাইটে। বিস্তারিতভাবে এই নিয়ম সম্পর্কে জানতে হলে পড়তে থাকুন।

Ads

পড়াশোনার ক্ষেত্রে বিশেষত Primary School Admission করার সময় সরকারের তরফ থেকে একটি নির্দিষ্ট বয়সসীমা বেঁধে দেওয়া হয় ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য। যদিও এই নিয়ম ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থের কথা বিবেচনা করেই তৈরি করা হয়েছে। সাধারণত অল্প বয়সে মস্তিষ্ক তেমন উন্নত হয় না। তাই সেই সময় থেকে যদি ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনা শুরু করে তবে তারা সেই পড়া ভালোভাবে বুঝতেই পারবেনা।

Advertisement

পিছিয়ে যাবে পশ্চিমবঙ্গের মাধ্যমিক পরীক্ষা? টেস্ট পরীক্ষার মধ্যেই বড় খবর।

Advertisement

এখনো পর্যন্ত এমন অনেক পড়ুয়াদের দেখা গেছে, যারা কম বয়সে পড়াশোনা করার জন্য উঁচু ক্লাসে এসে বারবার পরীক্ষায় ফেল করেছে। তাই এরকমভাবে পড়াশোনা করে কোন লাভও থাকবে না। অন্যদিকে যদি সেই সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীকে জোর করে পড়াশোনা শেখানো হয় তা প্রভাব ফেলতে পারে তাদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর। তাই এই সমস্যা এড়াতেই আমাদের সরকার পড়ুয়াদের জন্য সেই গাইডলাইন চালু করেছে।

Ads

এবার থেকে প্রতি শ্রেণীতে ভর্তি (School Admission) হওয়ার জন্য এবার থেকে ন্যূনতম বয়স ধার্য করল স্কুল শিক্ষা দপ্তর। সাধারণত প্রতিবছরই এই নিয়ম পুনরায় পর্যালোচনা করে নতুন গাইডলাইন প্রকাশ করে শিক্ষা দপ্তর। ডিসেম্বর – জানুয়ারি নাগাদই এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এবার নভেম্বর মাসেই চলে এলো তা। তবে এবারে শুধু বিজ্ঞপ্তি নয় বরং একটি তালিকাও দেওয়া হয়েছে।

মাধ্যমিক ইতিহাস সাজেশন (WBBSE Madhyamik History Suggestion 2024)

Primary School Admission এর নতুন নিয়মে কোন ক্লাসে কত বয়সে ভর্তি, সে বিষয়ে বিস্তারিত ভাবে উল্লেখিত রয়েছে ওই তালিকায়। বলা হয়েছে 2024 সালের পয়লা জানুয়ারি থেকে নতুন এই নিয়ম কার্যকর হবে সমস্ত স্কুল গুলিতে। নিচে আমরা দেখে নেব এই তালিকা।

শ্রেণী অনুযায়ী বয়স সীমার তালিকা
১. প্রথম শ্রেণির জন্য বয়সসীমা ধার্য্য করা হয়েছে 6 থেকে 7 বছর।
২. দ্বিতীয় শ্রেণির জন্য বয়সসীমা ধার্য্য করা হয়েছে 7 থেকে 8 বছর।
৩. তৃতীয় শ্রেণির জন্য বয়সসীমা ধার্য্য করা হয়েছে 8 থেকে 9 বছর।
৪. চতুর্থ শ্রেণির জন্য বয়সসীমা ধার্য্য করা হয়েছে 9 থেকে 10 বছর।

এই বছর থেকে প্রাইমারী স্কুলে ভর্তির নিয়মে বিরাট পরিবর্তন, সুবিধা ও অসুবিধা জেনে নিন।

৫. পঞ্চম শ্রেণির জন্য বয়সসীমা ধার্য্য করা হয়েছে 10 থেকে 11 বছর।
৬. ষষ্ঠ শ্রেণির জন্য বয়সসীমা ধার্য্য করা হয়েছে 11 থেকে 12 বছর।
৭. সপ্তম শ্রেণির জন্য বয়সসীমা ধার্য্য করা হয়েছে 12 থেকে 13 বছর।
৮. অষ্টম শ্রেণির জন্য বয়সসীমা ধার্য্য করা হয়েছে 13 থেকে 14 বছর।
Written by Nabadip Saha.

Leave a Comment

Advertisement