Traffic Rules বা ট্রাফিক রুলস

বর্তমানে ভারতের প্রত্যেকটি মধ্যবিত্ত বাড়িতে টু হুইলার (Traffic Rules) দেখা যায়। এছাড়া প্রায় বহু সংখ্যক মানুষের কাছের চার চাকাও রয়েছে। ভারতে যে পরিমাণ বিপুল জনসংখ্যা আমরা সকলেই প্রায় ধারণা করতে পারছি যে কত পরিমাণ টু হুইলার এবং ফোর হুইলার এখানে আছে। বেশির ভাগ মানুষ তাদের দৈনন্দিন কাজের সুত্রে গাড়ি কিনে থাকেন, এবং ইয়ং জেনারেশনের বেশিরভাগই সমাজে নিজেদের Cool দেখানোর জন্য বাইক এবং চার চাকা কিনে থাকেন।

Advertisement

New Traffic Rules with Fine for Bike and Cars

কিন্তু তারা সঠিক নিয়ম কানুন মেনে গাড়ি না চালানোর ফলে ভারতে অ্যাকসিডেন্ট এর মাত্রা দিন দিন বেড়েই চলেছে। তাই ট্রাফিক দুর্ঘটনা রুখতে এবং মানুষের নিরাপত্তার জন্য সরকার কিন্তু নতুন Traffic Rules বা ট্রাফিক রুলস এর ওপর জোর দিচ্ছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী সড়ক দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে ভারত তৃতীয় স্থানে রয়েছে যার মধ্যে ৪৪.৫% টু হুইলার জন্য দায়ী। তাই আজ এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা জানবো রাস্তা চলাচলের সঠিক নিয়ম ও আইন।
তো চলুন আর বেশি দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক গাড়ি চালানোর সঠিক নিয়ম।

Ads
  • গাড়ি চালানোর জন্য সর্বপ্রথম আপনার বয়স ১৮ বছর হতে হবে।
  • যিনি গাড়ি চালক তার নিজস্ব ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকতে হবে।
  • গাড়ি চালানোর সময় গাড়ির দূষণ নিয়ন্ত্রক বা POC থাকতে হবে।
  • গাড়ির জন্যে তৃতীয় পক্ষের বীমা থাকতে হবে।
  • নতুন ট্রাফিক নিয়ম অনুযায়ী আপনার সাথে আপনার ডকুমেন্টস রাখতে হবে। তবে ডকুমেন্টস এর কপি থাকা বাধ্যতামূলোক নয়, আপনি ডকুমেন্টস গুলির ডিজিটাল কপিও রাখতে পারেন।

আপনি যদি Traffic Rules বা ট্রাফিক রুলস অনুযায়ী স্পিড লিমিট না মেনে গাড়ি চালান। তাহলে আপনাকে ৪ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে এবং সেটাই যদি কোনো ডোমেস্টিক রোডে করে থাকেন তবে জরিমানা ৫ হাজার টাকা অব্দি যেতে পারে। এছাড়া দ্বিতীয় বার একই ভুল করায় আপনার ১০ হাজার টাকা অব্দি জরিমানা সাথে ২ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

Advertisement

বাজারে আসছে 1000 টাকার নতুন নোট। আগের নোট কী তবে বাতিল? কী বলছে RBI

আপনি যদি বাইক ইন্সুরেন্স না করে থাকেন তাহলে আপনার বাইকটি অবৈধ বলে গণ্য হবে সেক্ষেত্রে আপনার জরিমানাতো হবেই সাথে দুর্ঘটনার দ্বারা কোনো পক্ষের ক্ষতি হলে বা তাদের কোনো সম্পত্তির ক্ষতি হলে তার দায় ভারও আপনাকে নিতে হবে। এক্ষেত্রে গাড়ি কেনার সাথে সাথেই আপনারা ইন্সুরেন্স করে নেবেন (Traffic Rules).

Advertisement
Gold Price - সোনার দাম

বিভিন্ন ধরনের ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি বাইক ও চার চাকা কভারেজ বিভিন্ন ধরনের বিকল্প অফার দিয়ে থাকে। টিনএজার দের ক্ষেত্রে আপনারা তাদের যেকোনো ধরনের গাড়ি কিনে দেওয়ার ক্ষেত্রে যথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করবেন। কারণ নতুন Traffic Rules বা ট্রাফিক রুলস অনুযায়ী কোনো টিনএজার যদি দুর্ঘটনা করে তবে তার অভিভাবক তার জন্য দায়ী থাকবেন।

Ads

নিয়ম না জেনে বাইক বা গাড়ি রাস্তায় বের করলেই বিরাট ফাইন। নতুন ট্রাফিক আইন জেনে নিন।

এছাড়া সবথেকে দুর্ঘটনা হয়ে থাকে নেশাগ্রস্থ অবস্থায় গাড়ি চালানোর ফলে। আপনি যদি এই ধরনের কোনো দুর্ঘটনা করে থাকেন তবে Traffic Rules বা ট্রাফিক রুলস অনুযায়ী ১০ হাজার টাকা বা তার বেশি টাকার জরিমানা আপনাকে গুনতে হবে। সুতরাং আমদের দেশের এবং দশের এবং নিজেদের স্বার্থে এই নিয়ম গুলি অবলম্বন করে গাড়ি চালানো উচিত।

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *