Primary TET – প্রাথমিক শিক্ষকদের চাকরি বাতিলে ডিভিশন বেঞ্চের রায়ের পর, বিরাট পদক্ষেপ বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য এর।

চাকরি থাকবে কিনা, এই আশঙ্কাই সব সময় ঘোরাফেরা করছে Primary TET 2014 এর অধিকাংশ প্রাথমিক শিক্ষকদের মধ্যে। তার কারণ, নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় (Recruitment Scam) একের পর এক কলকাতা হাইকোর্টের তরফে নির্দেশ জারি করা হচ্ছে। বিভিন্ন সময়ে শিক্ষক, গ্রুপ সি, গ্রুপ ডি চাকরিরতদের চাকরি বাতিলের নির্দেশ (Service Cancel) জারি করা হচ্ছে। আর তারপরেই সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে বা ডিভিশন বেঞ্চে আপিল করা হচ্ছে।

Advertisement

কখনো দেখা যাচ্ছে স্থগিতাদেশ (Stay Order) দেওয়া হচ্ছে, আবার কখনো দেখা যাচ্ছে সেই মামলার প্রক্রিয়া জটিল থেকে জটিলতর হয়ে আবার নতুন মোড় নিচ্ছে। এই মুহূর্তে রাজ্যজুড়ে Primary TET নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় আদালতের একের পর এক নির্দেশকে ঘিরেই তোলপাড়। সম্প্রতি প্রাথমিক ৩২ হাজার শিক্ষকের চাকরি বাতিলের নির্দেশ দিয়েছেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

West Bengal Primary TET 2014

সেই নির্দেশে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, প্রাথমিকের ৩২ হাজার শিক্ষকের চাকরি বাতিল করা হচ্ছে। পরবর্তী ৪ মাস শিক্ষকরা প্যারাটিচারের হারে বেতন পাবেন। পাশাপাশি, রাজ্য সরকারকে ৩ মাসের মধ্যে নতুন করে নিয়োগ প্রক্রিয়া (Teachers Recruitment Process) সম্পন্ন করতে হবে। আবার তাতে ওই সমস্ত শিক্ষকদেরাও অংশ নিতে পারবেন।

Ads

এর মধ্যেই অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী বিভিন্ন মামলা থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে এই প্রসঙ্গে আইনজীবী এবং সিপিএম নেতা বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য বলেছেন, ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতি সুব্রত তালুকদারের তরফে যে রায় দেওয়া হয়েছে, তার সঙ্গে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের রায়ের খুব একটা পার্থক্য নেই।

Advertisement

1000 টাকার নোট নতুন রূপে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে? কি জানালেন RBI গভর্নর শক্তিকান্ত দাস।

তার কারণ ডিভিশন বেঞ্চের তরফে নির্দেশে জানানো হয়েছে, নতুন করে নিয়োগ প্রক্রিয়ার জন্য ইন্টারভিউ নিয়ে মেধা তালিকা তৈরি করতে হবে। তবে চাকরি বাতিলের উপরে ডিভিশন বেঞ্চ স্থগিতাদেশ জারি করেছে। আবার এই শিক্ষকেরা পার্শ্ব শিক্ষকের A গ্রেডের হারে বেতন পাবেন। ফলে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশের খুব একটা তফাত নেই বলেই জানিয়েছেন আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য।

Advertisement

সম্প্রতি কথায় কথায় চাকরি বাতিলের নির্দেশ নিয়েও সমাজের বিভিন্ন স্তরে বিভিন্ন ধরনের মতামত উঠে আসতে শুরু করেছে। বিচার ব্যবস্থার কোনো কোনো ক্ষেত্রে বিভিন্ন নির্দেশ নিয়েও সমাজে আলোচনা শুরু হয়েছে। তবে এর মধ্যেই জানা যাচ্ছে, ২০১৪ সালে যে ১ লক্ষ ২৫ হাজার চাকরিপ্রার্থী ছিলেন, তাদের মধ্যে যারা প্রশিক্ষণ নিয়েছেন, তারা ইন্টারভিউ প্রক্রিয়ায় (Primary TET Interview Process) অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

Ads

32000 শিক্ষকের চাকরি বাতিল নিয়ে ডিভিশন বেঞ্চের নয়া নির্দেশ, এবার কি করতে হবে?

আবার ২০১৬ সালে যারা ইন্টারভিউ দিয়েছিলেন তাদের পুনরায় ইন্টারভিউ দিতে হবে। এরফলে ৩২ হাজার Primary TET শিক্ষকের বেশ কিছুটা সমস্যায় পড়তে হতে পারে। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে প্রায়শই নতুন নতুন তথ্য সামনে উঠে আসছে। আর তার সঙ্গে আদালতের একের পর এক নির্দেশকে ঘিরে রাজ্য তোলপাড়। স্বাভাবিকভাবেই যারা বর্তমানে চাকরি করছেন, তারাও আশঙ্কায় রয়েছেন কখন কার চাকরি বাতিল হবে।

সম্পাদক

16 thoughts on “Primary TET – প্রাথমিক শিক্ষকদের চাকরি বাতিলে ডিভিশন বেঞ্চের রায়ের পর, বিরাট পদক্ষেপ বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য এর।”

  1. যারা প্রশিক্ষণ এখন ও নেই নি তারা কেন ইন্টারভিউ দিতে পারবে না তখন তো নিয়োগ টা ছিল সুধু নন টেনার দের তা হলে এখন টাকা দিয়ে প্রশিক্ষণ নেওয়া টা আর ঘুস দেওয়া টা একই বেপার কারন যারা চাকরি পেয়ে ছে তারা তো নন টেনার ছিল চাকরি পাওয়ার পরে ট্রেনিং করিয়ে ছে সরকার থেকে তা হলে এখন কেন নিয়ম টা পরিবর্তন করছ

    Reply
    • যে ট্রেনারকে টেনার লিখে তার তো কোনো রকম সুযোগ পাওয়াই উচিত না।

      Reply
    • Age 36 years, madhyamik a 66%, Uchha madhyamik 60%, graduation 49% aar MA (Bengali), 50% aar tet a 69%. …….B. Ed ba prosikkhan newa nei……ebar boloon na Sir, chakri pawar jonno candidate ki eligible ?????

      Reply
  2. Non training keno primary te interview deba na I requested to you by kolkata high court age over der niyog karun jader age 50+

    Reply
  3. 2014 সালে যতজন Qualified হয়েছিল Trained and non trained সকলেরই interview নেওয়া উচিত ।

    Reply
  4. ওই সময় সরকার যে সার্কুলার দিয়ে চাকরির জন্য আবেদন করতে বলেছিল, সেই অনুযায়ী আবার Interview হবে বা হওয়ার কথা। সম্ভবত Trained candidates দের কথায় বলেছেন জজ সাহেব।

    Reply
  5. Age 36 years, madhyamik a 66%, Uchha madhyamik 60%, graduation 49% aar MA (Bengali), 50% aar tet a 69%. …….B. Ed ba prosikkhan newa nei……ebar boloon na Sir, chakri pawar jonno eligible sir ?

    Reply

Leave a Comment

Advertisement