Provident Fund – এখন ঘরে বসে আপনার PF অ্যাকাউন্টের যাবতীয় তথ্য জানুন এই কয়েকটি উপায়ে।

বিভিন্ন সংস্থায় কর্মরত সরকারি কিংবা বেসরকারি কর্মীদের একটি ভরসার জায়গা প্রভিডেন্ট ফান্ড তথা Provident Fund. এখানে কর্মীর বেতন থেকে কিছু টাকা ও নিয়োগ কর্তা কিছু পরিমান টাকা জমা করে। পিএফ অ্যাকাউন্টে সঞ্চিত এই অর্থ অবসর জীবনে বিশেষ ভাবে কাজে লাগে। অর্থাৎ প্রভিডেন্ট ফান্ড কর্মচারীদের সঞ্চয়ের সেরা মাধ্যম। আপনারও যদি পিএফ অ্যাকাউন্ট থেকে থাকে এবং আপনার অ্যাকাউন্টে কত ব্যালেন্স আছে তা জানতে চান, তাহলে আজকের প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

Advertisement

Public Provident Fund Account Balance Check in Online

কেন্দ্র সরকার 1956 সালে প্রভিডেন্ট ফান্ড নামক একটি স্কিম চালু করেছিল। যেটি বর্তমানে এমপ্লয়েস প্রভিডেন্ট ফান্ড বা EPF নামেও পরিচিত। এটি পরিচালনা করে Employees Provident Fund Organisation বা EPFO। এটি বিভিন্ন সংস্থায় কর্মরত কর্মীদের একটি সঞ্চয় স্কিম। যেখানে প্রতি মাসে একটি নির্দিষ্ট পরিমান টাকা কর্মীদের প্রভিডেন্ট ফান্ড তথা Provident Fund অ্যাকাউন্টে ঢুকতে থাকে।

এর ফলে কর্মীদের ভবিষ্যতে আর্থিক ভাবে নিরাপদ হয়। এখানে কর্মীদের মূল বেতন থেকে 12 শতাংশ টাকা কেটে প্রভিডেন্ট ফান্ড তথা Provident Fund এ জমা করা হয়। কর্মী যে সংস্থায় কাজ করেন, সেই সংস্থার তরফ থেকেও ওই সমপরিমান টাকা PF এ জমা করা হয়। প্রতি মাসেই পিএফ অ্যাকাউন্টে এই টাকা ঢুকতে শুরু করে। কর্মী অবসর জীবনের শেষে গিয়ে এই টাকা সুদ সহ ফেরত পায়।

Ads

বিশেষ করে বেসরকারি সংস্থায় যে সব কর্মীচারী কাজ করেন, তাদের কাছে প্রভিডেন্ট ফান্ড তথা Provident Fund খুবই ভরসার একটি জায়গা। এবার অনেকের মনেই পিএফ অ্যাকাউন্ট নিয়ে নানা প্রশ্ন থাকে। কোনো সংস্থায় যুক্ত হওয়ার পর পিএফ অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকতে শুরু করেছে কিনা, কোম্পানি প্রাতি মাসে টাকা দিচ্ছে কিনা এ নিয়ে কম বেশি অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগে।

Advertisement

তবে আপনি চাইলে নিজেই অফলাইন কিংবা অনলাইনের মাধ্যমে আপনার প্রভিডেন্ট ফান্ড তথা Provident Fund অ্যাকাউন্টের যাবতীয় তথ্য জানতে পারবেন। এর জন্য অবশ্য আপনার Universal Account Number বা UAN নম্বর ও পাসওয়ার্ড থাকা অবশ্যক। এগুলো থাকলে কীভাবে আপনি আপনার PF অ্যাকাউন্টের সমস্ত তথ্য খুব সহজে জানতে পারবেন, তা নিম্নে আলোচনা করা হলো।

Advertisement

এলআইসি এর দুর্দান্ত পলিসি! 200 টাকা বিনিয়োগে প্রতিমাসে পাবেন 15 হাজার টাকা পেনশন।

১) আপনার হাতে থাকা স্মার্ট ফোনে একটি অ্যাপ ডাউনলোড করেও আপনি প্রভিডেন্ট ফান্ড তথা Provident Fund সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য জানতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে গুগল প্লে স্টোর থেকে Umang App ডাউনলোড করতে হবে। তারপর অ্যাপে লগইন করে UAN নম্বর বসাতে হবে। এরপর আপনার রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি আসবে। এই ওটিপি বসিয়ে Membar ID তে ক্লিক করলেই পিএফ সম্পর্কে সমস্ত তথ্য জানতে পারবেন।

Ads
অটল পেনশন যোজনা তথা Atal Pension Yojana

২) অন্যদিকে EPFO পোর্টাল থেকে প্রভিডেন্ট ফান্ড তথা Provident Fund এর যাবতীয় তথ্য জানা যাবে। এর জন্য, প্রথমে আপনাকে https://www.epfindia.gov.in ওয়েবসাইটে যেতে হবে। এখান থেকে লগইন করে Our Service অপশনে ক্লিক করতে হবে। তারপর Drop down Menu থেকে For Employees Option বেছে নিয়ে Membar Passbook অপশনে যেতে হবে। এখানে আপনার UAN নম্বর ও পাসওয়ার্ড বসিয়ে ক্লিক করলেই PF এর সমস্ত তথ্য সামনে দেখতে পাবেন।

এই কার্ড করলে বিনা সুদে 10 লাখ টাকা দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই টাকা পেতে কিভাবে আবেদন করবেন?

৩) এছাড়া আপনি খুব সহজে প্রভিডেন্ট ফান্ড তথা Provident Fund এর সঙ্গে রেজিস্টার মোবাইল নম্বর থেকে 7738299899 নম্বরে মেসেজ পাঠিয়েও পিএফ সম্পর্কে সব তথ্য জানতে পারবেন। এর জন্য মেসেজ বক্সে গিয়ে “EPFOHO UAN” টাইপ করে উক্ত নাম্বরে পাঠিয়ে দিন। এছাড়া 9966044425 নম্বরে মিসড কল দিয়েও প্রভিডেন্ট ফান্ড তথা Provident Fund অ্যাকাউন্টের ব্যালেন্স জানা যায়।

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement