RBI এর নির্দেশে আরও একটি সরকারী ব্যাংক বাতিল হলো, গ্রাহকের টাকার কি হবে?

নিয়মানুসারে, RBI দ্বারা ঘোষিত দেউলিয়া ব্যাঙ্কের সব টাকা ফেরত পাবেন না আমানতকারীরা।

নিয়ম না মানায় RBI আবার দেউলিয়া ঘোষণা করা হলো আরও একটি ব্যাঙ্ককে। ভারতীয় অর্থনীতিতে বিশেষ ভুমিকা পালন করে থাকে RBI স্বীকৃত ব্যাঙ্কগুলি। তবে নিয়মের ঘেরাটোপে না থাকলে যেকোনো বিষয়েই অনিয়ম যেন পিছু ছাড়ে না। ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক তথা RBI এই বিষয়ে সব সময় সজাগ দৃষ্টি রেখে চলেছে ব্যাঙ্কগুলির ওপরে। কোথাও কোন অনিয়ম হলেই ডিজিটাল সিস্টেম ব্যবহার করে RBI ব্যাঙ্ক তার ওপরে যথাযথ ব্যবস্থা নিয়ে থাকে।

Advertisement

দীর্ঘ সময় ধরে চলতে থাকা সারা দেশ তথা বিশ্বের আর্থিক মন্দা কাটিয়ে উঠে সবে স্বচ্ছল হচ্ছে আর্থিক পরিস্থিতি। এর মধ্যেই ব্যাঙ্কের কারচুপির কথা শুনলে সাধারণ মানুষের চিন্তার শেষ থাকে না। কখন নিজেদের কষ্টার্জিত অর্থের ক্ষতিসাধন হয়ে যায় নিজের অজান্তে, সেই বিষয়েই সদা চিন্তিত হচ্ছেন গ্রাহকেরা। তাই আজ জেনে নিন, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তথা RBI সম্প্রতি কোন ব্যাঙ্ককে বাতিল ঘোষণা করে দিল।

সারা ভারতে RBI এর অধীনে মোট ১২ টি পাবলিক সেক্টর ব্যাঙ্ক, ২১ টি প্রাইভেট সেক্টর ব্যাঙ্ক, ১২ টি স্মল ফিন্যান্স ব্যাঙ্ক, ৪ টি পেমেন্ট ব্যাঙ্ক, ৪৩ টি রিজিওনাল রুরাল ব্যাঙ্ক, ৫২ টি আরবান কো – অপারেটিভ ব্যাঙ্ক এবং আরও রয়েছে অন্যান্য সেক্টরের ব্যাঙ্ক। এই সকল ব্যাঙ্কই নিয়ন্ত্রিত হয় ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের অধীনে। সম্প্রতি গত 17 আগস্ট, 2022, বিজয়াপুর, কর্ণাটকের ডেকান আরবান কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক লিমিটেড এর লাইসেন্স বাতিল করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া।  

Ads

এর ফলে উক্ত তারিখের পর থেকে ঐ ব্যাঙ্ক এ সমস্ত রকমের আর্থিক লেনদেন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে RBI এর গাইড লাইন মেনে। এর সাথে সাথে কর্ণাটক সরকারের সহযোগিতা কমিশনার এবং কো-অপারেটিভ সোসাইটিজের রেজিস্ট্রারকেও ব্যাঙ্ক বন্ধ করার জন্য একটি আদেশ জারি করার অনুরধ করা হয়েছে। এছাড়াও এই ব্যাঙ্কে নতুন কর্মীদের নিয়োগ না করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

Advertisement

কি কারণে তাদের লাইসেন্স বাতিল করলো RBI?
নিম্নোক্ত কারণের জন্য এই ব্যাঙ্কের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে।
i) ব্যাঙ্কের পর্যাপ্ত মূলধন নেই। এছাড়াও ভবিষ্যতে নতুন বিনিয়োগের মাধ্যমে উপার্জনের সম্ভাবনা নেই। এটি ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্ট, 1949-এর ধারা 56-এর সাথে অন্য ধারা 11(1) এবং ধারা 22 (3) (d) – এর বিধানগুলি মেনে চলে নি৷

Advertisement

ii) ব্যাঙ্ক নিম্নোক্ত ধারাগুলি মেনে চলতে ব্যর্থ হয়েছে৷ ধারাগুলি হলো 22(3) (a), 22 (3) (b), 22(3)(c), 22(3) (d) এবং 22(3)(e) ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্ট, 1949 এর ধারা 56 এর অন্তর্গত। iii) এর পরেও এই ব্যাঙ্ক থাকলে তা আমানতকারীদের জন্য বেশ ক্ষতিকর হবে। iv) বর্তমান আর্থিক অবস্থার কারণে ব্যাংকটি তার বর্তমান আমানতকারীদের সম্পূর্ণ অর্থ প্রদান করতে পারবে না।

Ads

ব্যাঙ্ক একাউন্ট থেকে ইচ্ছেমতো টাকা তুলছেন? জরিমানার অঙ্ক শুনলে চমকে যাবেন।

এই ব্যাঙ্কের লিকুইডেশনের সময়ে প্রত্যেক আমানতকারী তাদের আমানত বীমা এবং ক্রেডিট গ্যারান্টি কর্পোরেশন (DICGC) কাছ থেকে ডিআইসিজিসি অ্যাক্ট, 1961-এর বিধান অনুসারে, 5,00,000/- (কেবলমাত্র পাঁচ লাখ টাকা) পর্যন্ত আমানতের বীমা ফেরত পাওয়ার অধিকারী হবেন। ইতিমধ্যেই গ্রাহকেরা তাদের বীমাকৃত আমানত হিসেবে সর্বমোট ১৩.০৭ কোটি টাকা ফেরত পেয়েছেন। এছাড়াও আরও কিছু প্রশ্ন নিছে আলোচনা করা হল।

আরবিআই লাইসেন্স বাতিল করলে কী হয়?
লাইসেন্স বাতিল হয়ে গেলে, সমবায় কমিশনার এবং সমবায় সমিতির নিবন্ধককে ব্যাঙ্ক বন্ধ করার এবং একজন লিকুইডেটর নিয়োগের জন্য একটি আদেশ জারি করার জন্য অনুরোধ করা হয়। ফলস্বরূপ, ব্যাংকটি ব্যাংকিং ব্যবসা চালিয়ে যাওয়া বন্ধ করে দেয়।

একটির বেশি ব্যাংক একাউন্ট থাকলেই সাবধান করলো RBI, এই কাজ না করলে সব টাকা জলে।

RBI কি নতুন ব্যাঙ্ককে লাইসেন্স দেয়?
রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (আরবিআই) ব্যাঙ্কিং এবং অন্যান্য ব্যবসার ব্যবসা চালানোর জন্য সত্তাকে লাইসেন্স প্রদান করে যেখানে ব্যাঙ্কিং কোম্পানিগুলি জড়িত হতে পারে, যেমন ধারা 5 (b) এবং 6 (1) (a) থেকে (o) তে সংজ্ঞায়িত এবং বর্ণিত হয়েছে ) যথাক্রমে ব্যাংকিং নিয়ন্ত্রণ আইন, 1949 এর।

2022 সালে ভারতে কয়টি সমবায় ব্যাঙ্ক আছে?
এছাড়াও এই সমবায় ব্যাঙ্কগুলি ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় এবং ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্ট 1949, ব্যাঙ্কিং লজ অ্যাক্ট 1955 দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় এবং ভারতে মোট 31টি সমবায় ব্যাঙ্ক রয়েছে, যেগুলি তাদের কর্মচারীদের পরিষেবা প্রদানের জন্য পৃথকভাবে সরকারি সংস্থাগুলির অধীনে রয়েছে৷ এমন আরও গুরুত্বপূর্ণ খবর পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে নজর রাখুন। ধন্যবাদ।
Written by Mukta Barai.

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement