বড় জরিমানার শাস্তি পেল LIC ! কোটি কোটি টাকা জরিমানা। মাথায় হাত সকল পলিসি গ্রাহকদের।

নিয়ম ভঙ্গের জেরে এবার শাস্তি পেল দেশের সর্ববৃহৎ ইন্সুরেন্স কোম্পানি LIC (Life Insurance Corparation of India). সংস্থার কাছে নোটিশ গেল বিরাট অংকের টাকা জরিমানা প্রদানের। যার ফলে কুপোকাত হয়ে পড়ল এই বিশ্বস্ত বীমা কোম্পানি। কারণ এর ফলে ব্যাপক ক্ষতি হতে পারে বলে আশঙ্কা কোম্পানির কোষাগারে। যার থেকে নিস্তার পাবেন না তার গ্রাহকরাও।

Advertisement

RBI imposes fines and Tax Notice against LIC

বর্তমানে অনেক বিনিয়োগকারীদেরই মাথায় হাত পড়েছে এই কথা শুনে। তাই অনেকেই সাবধান হয়ে যাচ্ছেন ইতিমধ্যে। আপনি যদি LIC তে টাকা বিনিয়োগ করে থাকেন, তবে আপনিও দ্রুত সাবধান হয়ে যান।

গত দু মাস আগেই দেশের সর্ববৃহৎ পাবলিক সেক্টর ব্যাংক স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার ওপর মোটা অংকের টাকা জরিমানা আরোপ করেছিল রিজার্ভ ব্যাংক (RBI). অভিযোগ ছিল ব্যাংকিং সিস্টেমের ঋণ সম্পর্কিত কিছু রেগুলেশন মানে নি এই ব্যাংক। তবে শুধু স্টেট ব্যাঙ্কই নয়, সেই সঙ্গে পাঞ্জাব ন্যাশনাল এবং সিন্ড ব্যাংক, এই দুটি বড়ো পাবলিক সেক্টর ব্যাংকের উপরেও তার কয়েকদিন আগেই জরিমানার শাস্তি দিয়েছিল আরবিআই।

Ads

অনেকগুলি সমবায় ব্যাংকও পেয়েছে সেই একই শাস্তি। এমনকি নিয়ম ভঙ্গের জেরে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ব্যাংকের লাইসেন্সও বাতিল করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
আর এবার অভিযোগের দায় চাপলো ভারতীয় জীবন বীমা নিগমের ওপর। সূত্রের খবর, নিজের প্রতিটি বন্ড ক্রয় বিক্রয়ের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে জিএসটি প্রদান করতে হয় LIC কে। কিন্তু গত ২০১৭-১৮ সাল থেকে সংস্থার তরফে বকেয়া রাখা হয়েছে সেই জিএসটি। সময় মতো তারা পেমেন্ট করেনি এর টাকা। সেই কারণেই সরকার বিপুল জরিমানার শাস্তি দিল এবার এই সংস্থাকে।

Advertisement

কারা পেলো জরিমানার শাস্তি?

সূত্রের খবর, ভারতের দুটি রাজ্যের শাখা কে এক্ষেত্রে জরিমানা প্রদানের শাস্তি দিয়েছে জীবন বীমা নিগম। এই দুই রাজ্যের সরকারের কাছে সরাসরি সমস্ত বকেয়া টাকা ফেরত চেয়ে নোটিশ পাঠিয়েছে এলআইসি।
এরমধ্যে একটি হল,
১. তেলেঙ্গানা রাজ্যের এবং
অপরটি হল,
২. শ্রীনগরের LIC সংস্থা।

Advertisement

কত টাকা জরিমানা?

জীবন বীমা নিগমের বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, দুই রাজ্যের কাছ থেকে মোট ১৮৩.৩৭ কোটি টাকা জরিমানার অর্ডার আরোপ করা হয়েছে। এর মধ্যে ,
১. তেলেঙ্গানা রাজ্যের LIC এর কাছ থেকে 183 কোটি টাকা ডিমান্ড করা হয়েছে। যার মধ্যে জিএসটি বাবদ ৮১.২ কোটি টাকা প্রাপ্য সংস্থার। কিন্তু এই টাকা না দেওয়ার জন্য বর্তমানে পেনাল্টি স্বরূপ আরো ৯৩.২ কোটি টাকা দিতে হবে তাকে। তার সঙ্গে সুদ রয়েছে আরো ৮.১ কোটি টাকা। সব মিলিয়ে টাকার পরিমাণ ১৮২.৫ কোটি টাকা।

Ads
Best investment options (দ্রুত টাকা বাড়ানোর উপায়)

২. বাকি ৩৭ কোটি টাকা জরিমানা চেয়ে পাঠানো হয়েছে শ্রীনগর অঞ্চলের জীবন বীমা নিগমের কাছ থেকে। সংস্থার নোটিশ থেকে জানা গেছে, শ্রীনগরের মোট পেন্ডিং জিএসটি হলো ১০ হাজার ৪৬২ টাকা। তা ঠিক সময় না দেওয়ার জন্য এখন পেনাল্টি দিতে হব অতিরিক্ত ২০ হাজার টাকা। এছাড়া ইন্টারেস্ট বা সুদের পরিমাণ ৬ হাজার ৩৮২ টাকা। সব মিলিয়ে মোট টাকার পরিমাণ দাঁড়াচ্ছে ৩৬,৮৪৪ টাকা।

আরও পড়ুন, কমে গেল ছুটি। পশ্চিমবঙ্গের সরকারী স্কুলের ছুটির তালিকা প্রকাশ। রইলো PDF Download Link.

এদিকে এই রাজ্য গুলির ওপর এরূপ জরিমানার ভার চাপায় মাথায় হাত পড়েছে সেই সমস্ত রাজ্যের এলআইসি গ্রাহকদের। বিনিয়োগকারীদের এখন চিন্তা তাদের ঠিক কতটা ক্ষতি হবে এক্ষেত্রে। তাদের মনে ভয় ঢুকেছে যে গচ্ছিত সমস্ত টাকা-পয়সা কি মার যেতে চলেছে এবার তাহলে। যদিও জীবন বীমা নিগমের তরফে এই ব্যাপারটি নিয়ে গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে, “২ টি রাজ্যের ওপর মোটা অংকের জরিমানা প্রদানের শর্ত দেওয়া হয়েছে ঠিকই। কিন্তু এর মাধ্যমে কোন গ্রাহকের টাকা-পয়সার কোন ক্ষতি হবে না। এক টাকাও মার যাবে না কারোর কাছ থেকে।”

আরও পড়ুন, পশ্চিমবঙ্গের সরকারী কর্মীরা এবার কাজে ফাঁকি দিলেই 10 হাজার টাকা জরিমানা। নতুন নিয়ম চালু।

সুখবর বাংলা

Leave a Comment

Advertisement