ভারতীয় রেল – এর টিকিটে আচমকা ভাড়া বৃদ্ধিতে ক্ষুব্ধ যাত্রীদের রেল অবরোধ! বিশদে জানুন।

অসন্তুষ্ট যাত্রীরা অবশেষে ভাড়া বাড়ানোতে ভারতীয় রেলকে দুষেই নামছেন রাস্তায়।

সারা ভারতের লোকাল ট্রেন হোক বা হোক সুপার ফার্স্ট, ভারতীয় রেল এর প্রত্যেকটি ট্রেনই যেন বেশ কার্যকরী ভুমিকা পালন করে যাত্রী ভ্রমণের ক্ষেত্রে। এই উৎসবে বিশেষত লোকাল ট্রেনের মাধ্যমেই যাত্রীরা বিভিন্ন জায়গায় মাতৃ প্রতিমা দর্শনের জন্য যাতায়াত করে থাকেন। আবার এই উৎসবের ছুটিতেই ভারতের নানা প্রান্তে বিশেষত ভ্রমণের জন্যই দেশবাসী নির্ভর করে থাকে ভারতীয় রেল এর ওপরেই। তবে এই ভাড়া বৃদ্ধি কতটা প্রভাব ফেলতে চলেছে জনজীবনে?

Advertisement

যাত্রীরা ভারতীয় রেল এর অন্তর্গত বিভিন্ন ট্রেনে যাতায়াত করে থাকেন এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে। কিছু কিছু ট্রেনে যাত্রীদের জন্য থাকে একেবারে রাজকীয় আয়োজন। তা সত্ত্বেও বিভিন্ন জায়গায় ট্রেনের বেশ খামতিও রয়েছে বলে অভিযোগ নিত্যযাত্রীদের। নতুন করে ট্রেনের ক্যাটারিং, যাত্রী পরিষেবা বা অন্যান্য পরিষেবায় তেমন কোন পরিবর্তন আনা হয় নি। তবে সুপার ফার্স্ট ট্রেনে এই ভাড়া বৃদ্ধি নিয়েই ক্ষুব্ধ হলেন যাত্রীরা।

কোন ট্রেনগুলিকে বলা হবে সুপার ফার্স্ট ট্রেন?
রেলের নিয়ম অনুযায়ী, যেই সকল ট্রেন গুলি গড়ে ৫৬ কিলোমিটার বেগে চলাচল করে সেই সকল ট্রেনগুলিকে বলা হয় সুপার ফার্স্ট ট্রেন। ট্রেনের টাইম টেবিলেও এই উল্লেখ করা থাকে। এর এখানেই গণ্ডগোলের সূত্রপাত। এই নতুন নামকরণের সাথে সাথেই ১০০ বা ১৫০ কিলোমিটার বেগে চলা ট্রেনের ভাড়ার মতোই এই সকল ট্রেনের ভাড়াও বাড়ছে। আর এই বিক্ষোভের জেরেই যাত্রীরা কি করতে পারেন রেল অবরোধ? জল্পনা শুরু হয়েছে এই বিষয়ে।

Ads

মহিলাদের জন্য নয়া উদ্যোগ ভারতীয় রেলের, না জানলে করতে হবে আপসোস।

কেন বাড়ছে এই ট্রেন ভাড়া?
শুধুমাত্র সুপার ফার্স্ট ট্রেন নাম দিয়েই বাড়ানো হচ্ছে রেলের ভাড়া। কিন্তু অন্যান্য সুপার ফার্স্ট ট্রেনের মতো সুবিধা মিলছে না কিছুই। সারা দেশের মোট ১৩০ টি ট্রেনের নামে এই পরিবর্তন করেই ভাড়া বাড়াচ্ছে ভারতীয় রেল। এক্ষেত্রে ট্রেনগুলির এসি ১ এবং এক্সিকিউটিভ ক্লাসে ৭৫ টাকা, এসি ২, এসি ৩ এবং চেয়ার কারে ভাড়া বাড়ছে ৪৫ টাকা, স্লিপার ক্লাসে যাত্রী প্রতি বাড়ানো হচ্ছে ৩০ টাকা।

Advertisement

রেল যাত্রীরা কেন এতোটা ক্ষুব্ধ?
একবারে এই বিপুল পরিমাণ ভাড়া বৃদ্ধি করার ফলে বেশ ক্ষুব্ধ হচ্ছেন যাত্রীরা। তাদের বক্তব্যে, ভাড়া বাড়লে সুযোগ সুবিধা, নিরাপত্তা ইত্যাদি আনুসাঙ্গিক বিসয়ের দিকেও লক্ষ্য দিতে হবে ভারতীয় রেলকে। কিন্তু সেই সকল বিষয়ে তেমন কোন বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয় নি। তাই শুধুমাত্র এই একটি বিষয়ের ওপরে ভিত্তি করে কেন হবে ভাড়া বৃদ্ধি, তাও আবার এতোটা – প্রশ্ন উঠছে সারা ভারতে।

Advertisement

ট্রেনে পকেটমার বা ব্যাগ চুরি হলে এবার ক্ষতিপুরণ দেবে ভারতীয় রেল।

এছাড়াও ৬ জন যাত্রীর PNR বুকিং এর ক্ষেত্রে এসি ১ এর ক্ষেত্রে ৪৫০ টাকা, এসি ২ তে ২৭০ টাকা, এসি ৩ এবং স্লিপার ক্লাসের জন্য বুকিং এর ভাড়ার সাথে সাথে অতিরিক্ত পেমেন্ট করতে হবে। যাত্রীদের একাংশের মতে, এই বিষয়ে তারা বেশ ক্ষুব্ধ। তাদের অভিযোগ, অধিকাংশ ট্রেনই নির্দিষ্ট স্টেশন থেকে ছাড়ার সময়ে মানে না টাইম টেবিল। গন্তব্যে পৌছাতেও কয়েক ঘণ্টা পর্যন্ত লেট করে।

Ads

ফলস্বরুপ, অনেকেরই ফ্লাইট মিস হয়, অনেকের হোটেল বুকিং এ অসুবিধায় পড়তে হয় হোটেল বুকিং এ। এমনকি ভারতীয় রেল এর অন্তর্গত বিভিন্ন ট্রেন রাতে অসময়ে দেরি করে পৌঁছলে সারা রাতই কাটাতে হয় প্ল্যাটফর্মেই। এমন আরও আপডেট নিউজ পেতে সাথে থাকুন আমাদের। আর আপনার কিছু জানার থাকলে অবশ্যই মতামত জানান কমেন্ট বক্সে। তথ্য পেয়ে উপকৃত হলে অন্যকেও জানার সুযোগ করে দিন। ধন্যবাদ।
Written by Mukta Barai.

Leave a Comment

Advertisement