মহার্ঘ ভাতা wb DA latest order high court

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারী কর্মীদের বকেয়া মহার্ঘ ভাতা তথা DA সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কর্মী এবং সরকারের মধ্যে আইনি লড়াই চলছে বহুবছর ধরেই। এই মহার্ঘ ভাতা সংক্রান্ত মামলা কখনও হাইকোর্ট আবার কখনও স্যাট। আবার সুপ্রিম কোর্টে এই মহার্ঘ ভাতা সংক্রান্ত মামলা যাওয়াতে বেশ অসন্তুষ্ট রাজ্য সরকারি কর্মীরা।

Advertisement

তবে আদালতের রায় মেনে হয়তো খুব শীঘ্রই রাজ্য সরকারি কর্মীদের বকেয়া মেটাবে সরকার। কারণ রাজ্যের বিদ্যুৎ দপ্তরের ক্ষেত্রেও বকেয়া মহার্ঘ ভাতা নিয়ে এমনই ঘটনা ঘটেছিল। অবশেষে সুদ সমেত বকেয়া মেটানো হচ্ছে তাদের। এ বিষয়ে সম্প্রতি 500 কোটির বিশেষ তহবিল গঠন করা হয়েছে। আসুন, বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

পশ্চিমবঙ্গে মহার্ঘ ভাতা তথা DA, বিষয়ে 30 শে নভেম্বরের জন্য রাজ্য সরকার ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে।

রাজ্য সরকারের অনেক হেভিওয়েট মন্ত্রীদের বক্তব্যে পশ্চিমবঙ্গে বকেয়া মহার্ঘ ভাতা বিষয়ে একথা বারংবার শোনা গেছে যে, রাজ্য সরকার তার নিজের কর্মীদের পাশেই আছে। ডিএ দেওয়া নাকি শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা মাত্র। এদিকে রাজ্যের আয় বেড়েছে অনেক। কেন্দ্র ইতিমধ্যেই রাজ্যের বেশ কিছু বকেয়া মিটিয়ে দিয়েছে বলেই জানা যাচ্ছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম থেকে।

Ads

GST আদায়ের Monthly Trends অনুযায়ী, রাজ্য সরকার নিজের রাজস্ব আদায়ের নিরিখে আগের থেকে এগিয়ে গিয়েছে অনেকটাই। কেন্দ্র GST চালু করার পর থেকেই দেশের প্রত্যেকটি রাজ্যেই খুশির হাওয়া বইতে দেখা যাচ্ছে। পিছিয়ে নেই বাংলাও। এই অর্থবর্ষে অর্থাৎ 2022-2023 এর শুরু থেকে অক্টোবর, 2022 পর্যন্ত মোট রাজ্যের SGST এবং কেন্দ্রের IGST এর শেয়ার বাবদ রাজ্যের মোট আয় 22,993 কোটি টাকা। এটি গত বছরের ঐ একই সময়ের তুলনায় শতকরা বৃদ্ধি হয়েছে 31 শতাংশ।

Advertisement

অপরদিকে রাজ্যকে কেন্দ্র প্রতি মাসেই 58,333 কোটি টাকা দিয়ে থাকে। এর মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গ পেয়েছে 8,777 কোটি টাকা। কেন্দ্রীয় করের টাকা প্রত্যেক রাজ্য মোট 14 টি কিস্তিতে পেয়ে থাকে। প্রথম 11 মাসে 11 কিস্তি এবং শেষ মাসে একসাথে  কিস্তির টাকা দেওয়া হয়ে থাকে। এবারেও নভেম্বরে রাজ্যকে তার পাওনা মিটিয়েছে কেন্দ্র।

Advertisement

সুতরাং রাজ্য হাইকোর্টে বারংবার জানিয়েছে যে, পশ্চিমবঙ্গে মহার্ঘ ভাতা মেটানোর মতো টাকা নেই রাজ্যের কাছে। রাজ্যের অর্থের ভাঁড়ার শূন্য। রাজ্য সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা মেটালে রাজ্যের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ভেঙ্গে পড়বে। তাহলে রাজ্য সরকারের হাইকোর্টের হলফনামায় ঐরূপ মন্তব্যের কারণ কি? পশ্চিমবঙ্গে মহার্ঘ ভাতা বিষয়ক মামলার হলফনামায় অর্থ সচিবের দেওয়া বক্তব্যের সাথে বাস্তবিক কতটা মিল আছে, সেটাই দেখার।

Ads

LPG গ্যাস সিলিন্ডারের নয়া নিয়ম। 90 দিনের মধ্যে একাজ করলেই মিলবে 3 টি সুবিধা। বিশদে দেখে নিন।

কোলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে আগামী 30 শে নভেম্বর, 2022 হল ডেডলাইন। এরপরেই কোলকাতা হাইকোর্ট কড়া সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে। এমনটাই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে বিচারপতিদের বক্তব্যে। রাজ্য সরকারের করা SLP সুপ্রিম কোর্টে বাল্যসুলভ 10 টি ভুলের কারণে পড়ে আছে ডিফেক্ট লিস্টে। সেক্ষেত্রে অন্যান্য ভুলের সাথে দেখা গেছে কোর্ট ফি এর যৎসামান্য অর্থ বাকি রাখা হয়েছে। এর কারণ কি হতে পারে? সুচিন্তিত মতামত জানাতে পারেন কমেন্ট বক্সে।

তবে রাজ্য এখন উভমুখী চাপের মধ্যে আছে। একদিকে কোলকাতা হাইকোর্টের 30 শে নভেম্বরের ডেডলাইন। এর মধ্যেই সিদ্ধান্ত জানাতে হবে আদালতে। কোলকাতা হাইকোর্ট অনন্ত কাল ধরে সময় দেবে না রাজ্যকে। ওদিকে 90 দিনের মধ্যে সংশোধন না করলে সুপ্রিম কোর্ট স্ক্রুটুনিও করবে না। আর স্ক্রুটুনি না করলে সুপ্রিম কোর্টে মামলাও গ্রহণ করা হবে না। এবারে রাজ্য এই 30 শে নভেম্বর কি মতামত পোষণ করবে, সেদিকেই নজর রাজ্য সরকারি কর্মীদের।

DA বকেয়া থাকলেও সরকারি কর্মীদের নতুন ভাতা যোগ করে বেতন বৃদ্ধি করলো সরকার, ঝড়ের গতিতে বাড়বে বেতন।

অপরদিকে রাস্তার আন্দোলনেও পিছিয়ে নেই রাজ্য সরকারি কর্মীদের সম্মিলিত অরাজনৈতিক সংগঠন, সংগ্রামী যৌথমঞ্চ। তাদের দাবি, অবিলম্বেই তারা কর্মবিরতি শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন। আগামী বছর থেকেই হয়তো তার বাস্তব রূপ দেখা যাবে। এক্ষেত্রে বেশ ভালো সাড়া মিলবে বলেই তাদের দাবি।

রাজ্য সরকারি কর্মী সংগঠনের নেতৃত্বের দাবি, অবিলম্বেই তারা তাদের সফলতার ছোঁয়া পাবেন। পরবর্তী দিনে কি সিদ্ধান্তে পৌঁছায় কোলকাতা হাইকোর্ট, সেটাই দেখার। আপডেট পেলেই আপনাদের সামনে তৎক্ষণাৎ নিয়ে আসা হবে। নজর রাখুন ওয়েবসাইটে। ধন্যবাদ।
Written by Mukta Barai.

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *