Anti ragging helpline number for Jadavpur Ragging Case (যাদবপুর র‍্যাগিং)

Anti ragging helpline number চালু হলো

Jadavpur Ragging Case তথা যাদবপুর কাণ্ডে তোলপাড় চলছে। আর এরই মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে Anti ragging helpline number ও এক গুচ্ছ নির্দেশিকা প্রকাশ করেছে রাজ্য সরকার। এখনো পর্যন্ত র‍্যাগিংয়ের ফলে মৃত্যুর ঘটনার অভিযোগে ১২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে পশ্চিমবঙ্গ অ্যান্টি র‍্যাগিং প্রিভেনশন অ্যাক্ট এর ৪ নম্বর ধারা যুক্ত করতে চলেছে পুলিশ। এই বিষয়ে আদালতে আবেদন করা হচ্ছে।

Advertisement

Jadavpur Ragging Case তথা যাদবপুরের এই র‍্যাগিংয়ের ফলে মৃত্যুর ঘটনায় রাজ্যের পুলিশ প্রশাসন যথেষ্ট কঠোর ভূমিকা নিচ্ছে। যাদবপুরের মেন হোস্টেলের তিনতলা থেকে বাংলার প্রথম বর্ষের এক পড়ুয়া ৯ আগস্ট নিচে পড়ে যায়। তারপরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। আর এই ঘটনাতে যাদবপুরের বেশ কিছু প্রাক্তনী এবং সিনিয়র ছাত্রদের বিরুদ্ধে র‍্যাগিংয়ের অভিযোগ ওঠে। পুলিশ তদন্তে নেমে সেই Ragging এর প্রমাণ পায়।

যাদবপুরের মেইন হোস্টেলের লবিতে ওই পড়ুয়াকে বিবস্ত্র করে ঘোরানোর প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ বলে জানিয়েছে। আর তারপরেই ধৃত ১২ জনের বিরুদ্ধে কঠোর ধারা যুক্ত করার পদক্ষেপ নিচ্ছে পুলিশ। আর এর পরেই রাজ‍্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অ্যান্টি র‍্যাগিং হেল্পলাইন নম্বর (Anti Ragging Helpline Number) চালু করলেন। নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামের অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, কলকাতা পুলিশের তরফে ২৪ ঘন্টার জন্য অ্যান্টি র‍্যাগিং হেল্পলাইন নম্বর চালু করা হচ্ছে।
এই হেল্পলাইন নম্বরটি হলঃ ১৮০০৩৪৫৫৬৭৮

Ads

কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে এই Anti Ragging Helpline ২৪ ঘন্টাই চালু থাকবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও জানিয়েছেন, যদি কোনো কলেজে, কোনো ইউনিভার্সিটিতে বা কোনো কর্মস্থলে কেউ র‍্যাগিং এর শিকার হন, তাহলে এই নম্বরে ফোন করে র‍্যাগিং এর বিষয়ে অভিযোগ জানাতে পারবেন। শুধু একটা ইনফরমেশন দিলেই হবে। আপনার নম্বর কনফিডেন্সিয়াল থাকবে। কেউ জানতে পারবে না।

Advertisement
Jadavpur Ragging Case - র‍্যাগিং

কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে র‍্যাগিং এর বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। যাতে কেউ কোনো ইনফরমেশন না পায় তার জন্য পুলিশ সেফ লকার তৈরি করবে।
আর মুখ্যমন্ত্রীর অ্যান্টি র‍্যাগিং হেল্পলাইন নম্বর চালু করার বিষয়ে আর্টস ফ্যাকাল্টি ইউনিয়নের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ছাত্রদের স্বার্থে এরকম হেল্পলাইন নম্বর চালু হলে আপত্তি নেই। এখন প্রশ্ন হলো, অ্যান্টি র‍্যাগিং হেল্পলাইন নম্বর চালু করতে এত দেরি হল কেন?

Advertisement

আরও পড়ুন, সোনার দাম কমেছে রেকর্ড হারে, 24K এর দাম আর কতদিন কম থাকবে।

প্রসঙ্গত, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে রাগিং এর ফলে এই মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজ্য জুড়ে তোলপাড় চলছে। অভিযুক্তদের কড়া শাস্তির দাবী জানাচ্ছেন সকলে। যাদবপুরের পাশাপাশি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়েও বেশ কিছু Ragging-এর ঘটনার অভিযোগ উঠতে দেখা গিয়েছে। ফলে রাজ্য সরকার এবার থেকে ২৪ ঘন্টার জন্য এই অ্যান্টি র‍্যাগিং হেল্পলাইন নম্বর (24 Hours Anti Ragging Helpline No.) চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Ads

আরও পড়ুন, চাঁদের মাটিতে 14 দিন ধরে কি কি করবে ল্যান্ডার বিক্রম? দেখুন পুরো মিশনের তালিকা।

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *