লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্প - Lakshmir Bhandar Scheme

লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্প (Lakshmir Bhandar) নিয়ে নয়া আপডেট, কি করতে হবে, জেনে নিন।
রাজ্যের ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে লক্ষ্মীর ভান্ডার ছিল মাস্টারস্ট্রোক। বিজেপি, সিপিএম, কংগ্রেসসহ বিরোধী দলগুলিকে ধুলোর মতো উড়িয়ে দিয়ে ফের তৃতীয়বারের জন্য বাংলার ক্ষমতা দখল করে তৃণমূল সরকার। লক্ষ্মীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar) প্রকল্প তারপরেই চালু করা হয়।

Advertisement

লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্প – Lakshmir Bhandar Scheme

নির্বাচনের আগে বাংলার মহিলাদের জন্য প্রতিমাসে একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ আর্থিক সহায়তা দেওয়ার যে ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সেই ঘোষণা অনুযায়ী লক্ষ্মীর ভাণ্ডার চালু হয়ে যায়। আর প্রতিমাসে সেই পরিমানে টাকা পাচ্ছেন। তবে কয়েক মাস যাবত অনেকের ই টাকা পেতে সমস্যা হচ্ছে। কি কারনে এই সমস্যা, গ্রাহকদের কি করতে হবে, সমস্ত কিছু জানতে পুরো প্রতিবেদন পড়ুন।

Ads

কত টাকা দেওয়া হয়?

সরকারি নিয়ম অনুযায়ী লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে তপশিলি জাতি এবং উপজাতির মহিলারা প্রতিমাসে ১ হাজার টাকা করে ভাতা পান। সাধারণ এবং ওবিসি সম্প্রদায় ভুক্ত মহিলারা প্রতিমাসে ৫০০ টাকা করে ভাতা পেয়ে থাকেন। আর এই টাকা কেবলমাত্র মহিলাদের একাউন্টেই তাদের হাত খরচের জন্য দেওয়া হয়।

Advertisement

লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের গুরুত্ব

পশ্চিমবঙ্গের মধ্যবিত্ত, নিম্ন মধ্যবিত্ত, আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া পরিবারের মহিলাদের প্রতি মাসে এই নির্দিষ্ট পরিমাণ আর্থিক সহায়তা সরকারের তরফে দেওয়ায় যথেষ্ট উপকৃত হচ্ছেন তারা। এবার লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা যাতে কোনোভাবেই মাঝপথে কোনো সমস্যার কারণে বন্ধ না হয়ে যায়, সেই কারণে সরকারের তরফে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। কি সেই নির্দেশিকা?

Advertisement
PM Awas Yojana list - আবাস যোজনা ঘরের লিস্ট 2023

লক্ষ্মীর ভান্ডারের নতুন নিয়ম

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চান লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে সমস্ত মহিলারা যেভাবে প্রতি মাসে নির্দিষ্ট অংকের টাকার আর্থিক সহায়তা পেয়ে থাকেন, তা যেন ধারাবাহিকভাবে নিয়মিত তারা পেতে পারেন। সেই কারণেই সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে নির্দিষ্ট ব্যাংক একাউন্টটি ওই মহিলার নামেই হতে হবে অর্থাৎ একক ব্যাংক একাউন্ট (Single Bank Account) হতে হবে। এবং একাউন্ট টি আধার লিংক করাতে হবে। এই কাজ গুলো না করলে একাউন্টের টাকা পেতে সমস্যা হবে। এছাড়া ব্যাংকিং জটিলতার কারনে অনেকেই টাকা সময়মতো পাননি, সেই ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে, ব্যাংক গুলিকে।

Ads

আরও পড়ুন, বাজারে ছেয়ে গেছে 500 টাকার জাল নোট, কিভাবে চিনবেন?

সরকারি ঘোষণাঃ

ব্যাংক একাউন্ট এর সঙ্গে আধার কার্ডের লিংক করে নেওয়া জরুরি। সঠিকভাবে প্রতিমাসে যাতে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা মহিলাদের ব্যাংক একাউন্টে পৌঁছে যায়, তাই এই নিয়মগুলো মেনে নেওয়া প্রয়োজন। বাংলার এই লক্ষ্মীর ভান্ডার ইতিমধ্যেই আন্তর্জাতিক স্তরে পুরস্কার পেয়েছে। মহিলা ও শিশু কল্যাণ বিভাগে প্লাটিনাম পুরস্কার পেয়েছে। আন্তর্জাতিক স্করে স্কচ পুরস্কার দেওয়া হয়েছে এই স্কিমটিকে। ফলে সম্প্রতি লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে মহিলাদের নিয়মিত টাকা পাওয়ার জন্য উপরিউক্ত নিয়মগুলি মেনে একাউন্টের সঙ্গে আধার কার্ডের লিংক করে নিতে হবে।

আবাস যোজনা ঘরের লিস্ট 2023, কারা কারা ঘর পাচ্ছেন, দেখুন এই মাসের তালিকা।

সুতরাং লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা পেতে হলে, ব্যাংকে গিয়ে KYC জমা দিন, নিজের নামে একাউন্ট করুন। এবং যারা চাকরি করেন তারা এই টাকা পাবেন না। তবে এবার থেকে বিধবারাও লক্ষ্মীর ভান্ডার এর টাকা পাবেন। এই বিষয়ে আপনার কোনও প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন। এবং সমস্ত রকমের সরকারী প্রকল্প, অর্থনৈতিক খবর, শিক্ষা চাকরি ও ব্যবসার পরামর্শ পেতে সুখবর বাংলা ওয়েবসাইট ফলো করুন। এবং আপনাদের কোনও প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করুন।

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *