ডিসেম্বরের প্রাথমিক টেট পরীক্ষা বন্ধ। কিন্তু কেন? জাস্টিস গাঙ্গুলি কড়া নির্দেশ দিলেন পর্ষদকে। বিস্তারিত জেনে নিন।

রাজ্যের প্রাথমিক টেট নিয়ে রাজ্যের পরিস্থিতি খুব শোচনীয়। তদন্তের ঘেরাটোপে আদালতের নির্দেশ মেনেই রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। সে মোতাবেক আগামী ডিসেম্বরেই হবার কথা প্রাথমিক টেট। কিন্তু এর মধ্যেই এমন কি ঘটে গেল, যে সেই পরীক্ষা বন্ধ হবার হুশিয়ারি দিলেন মাননীয় জাস্টিস অভিজিৎ গাঙ্গুলি মহাশয়।

Advertisement

অভিজিৎ বাবু প্রাথমিক টেট নিয়ে ন্যায়ের পক্ষে, অন্যায়কে বিন্দুমাত্র প্রশ্রয় দেন না।

এই প্রাথমিক টেট পরীক্ষা বন্ধ হবার প্রচুর সম্ভাবনা আছে। কারণ ২০১৪ এবং ২০১৭ সালে যে টেট পরীক্ষা হয়েছিল, সেই ক্ষেত্রে প্রচুর পরীক্ষার্থী আছে যারা এখনো চাকরির জন্য অপেক্ষায় আছে। এই সকল পরীক্ষার্থীদের নিয়োগ না করে এর মধ্যেই আবার নতুন করে টেট পরীক্ষা নিলে আগের টেট পাশ করা পরীক্ষার্থীরা বেশ বঞ্চিত হবেন বলেই তাদের মত।

কারণ ২০১৪ সালের প্রাথমিক টেট পরীক্ষার্থীরা ২ বার ইন্টারভিউ এর সুযোগ পেয়েছেন। কিন্তু ২০১৭ সালের পরীক্ষার্থীরা প্রাথমিক টেট পাশ করার পোর একবারও ইন্টারভিউ দেবার সুযোগ পান নি। ২০১৪ এবং ২০১৭ সালের টেট ব্যাচের প্রত্যেকেই তাদের নিজের নিজের যুক্তিতে অনড়। এর মধ্যেই ২০২২ সালে নতুন করে টেট পরীক্ষা হলে তারা অনেকটাই বঞ্চিত হবেন।

Ads

প্রাথমিক টেট পরীক্ষার জন্য বর্তমানে বিপুল সঙ্খ্যক আবেদন পত্র জমা পড়েছে। কিন্তু নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে আছে মাত্র ১১ হাজারের সামান্য বেশি শূন্যপদের কথা। সেক্ষেত্রে প্রতিযোগীতাও অনেকটাই। লটারির ভাগ্য নির্ণয়ের মতো পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। টেটের নতুন বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নিয়োগের

Advertisement

প্রস্তুতি শুরু করেছিল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। বুধবার কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন, দরকার পড়লে তিনি ওই পরীক্ষা বন্ধ করে দেবেন। ঠিক কী কারণে পরীক্ষা বন্ধ করতে চান তা স্পষ্ট করেননি বিচারপতি। তবে তিনি এটা স্পষ্ট করেই সকলকে বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের উপর তিনি বিভিন্ন বিষয়েই অত্যন্ত ক্ষুব্ধ। বিচারপতি বলেছেন, ‘‘পর্ষদ মোটেই বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করছে না”।

Advertisement

বুধবার প্রাথমিক টেটে নিয়োগ সংক্রান্ত একটি মামলা বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে উঠেছিল কোলকাতা হাইকোর্টে। সেই মামলার শুনানি চলাকালীনই এই মন্তব্য করেছেন জাস্টিস গাঙ্গুলি। তিনি বলেন, ‘‘প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ বন্ধুর মতো আচরণ করছে না। তাই আমি আমার আগের মন্তব্য প্রত্যাহার করতে বাধ্য হচ্ছি। তিনি বলেন, ‘‘আমি বলেছিলাম নিয়োগে বাধা দেব না। কিন্তু এখন যদি দেখি পর্ষদ আইন না মেনে কাজ করছে তবে পরীক্ষা বন্ধ করে দেব”।

Ads

পশ্চিমবঙ্গে TET – 2022, সবাই ঠিক হলে আসল ভুল কার? বিশদে জানুন।

গত সপ্তাহেই প্রাথমিকের নিয়োগ সংক্রান্ত একটি মামলার শুনানিতে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, তিনি নিয়োগের  বিরুদ্ধে নয়। প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের নতুন প্রক্রিয়া নিয়ে পরীক্ষার্থীদের মধ্যে যে আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল তা দূর করে বিচারপতি জানিয়েছিলেন, চাকরিপ্রার্থীদের স্বার্থের কথা ভেবেই তিনি বাধা দেবেন না।

তিনি বলেছিলেন, ‘‘যদি কোনও অভিযোগ বা মামলা হয়, তার বিচার চলতে পারে। কিন্তু নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ করার পক্ষে আমি নই। যদি না এমন কোনও খুব গুরুতর অভিযোগ সামনে আসে, যা এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব নয়”। এক সপ্তাহ কাটতে না কাটতেই নিজের বলা কথা ফিরিয়ে নিলেন বিচারপতি।

প্রাথমিক টেট এ জেলায় কত নতুন শূন্যপদ? জেনে নিন।

তাহলে কি হবে এই প্রাথমিক টেট পরীক্ষা? কোলকাতায় ২০১৪ এবং ২০১৭ সালের পরীক্ষার্থীদের রাস্তার অন্দোলন জারি আছে। তবে পর্ষদ সভাপতি জানিয়েছেন, তিনি স্বচ্ছ নিয়োগের পক্ষে। তবে যাদের বয়স পেরিয়ে গেছে, তাদের বাস্তব মেনে নেবার আর্জি জানিয়েছেন গৌতম পাল মহাশয়। কিন্তু সত্যি সত্যি কি তা সম্ভব? এখন সকল পরীক্ষার্থীদের নজর ডিসেম্বরের টেট পরীক্ষার দিকেই। এমন আরো আপডেট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে নজর রাখুন। ধন্যবাদ।
Written by Mukta Barai.

সম্পাদক

2 thoughts on “ডিসেম্বরের প্রাথমিক টেট পরীক্ষা বন্ধ। কিন্তু কেন? জাস্টিস গাঙ্গুলি কড়া নির্দেশ দিলেন পর্ষদকে। বিস্তারিত জেনে নিন।”

  1. Ī am Bansidhar Paramanik .My years old 51. I am Primary tet qualified 2014. I requested to you. My P.T.T.I course do not pass. I am very poor man. High court my helf to want.

    Reply

Leave a Comment

Advertisement