Primary TET Scam – জমা পড়লো 42 হাজার শিক্ষকের তালিকা। ঘোর বিপদ প্রাথমিক শিক্ষকদের?

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি তথা Primary TET Scam নিয়ে একাধিক মামলা চলছে কলকাতা হাইকোর্টে। গতকাল এই মামলার শুনানি চলাকালীন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় পর্ষদকে 42 হাজার 949 জন প্রার্থীর প্যানেল প্রকাশ করার নির্দেশ দিয়েছে। আগামী 10 দিনের মধ্যে এই প্যানেল প্রকাশ করতে হবে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে। 3rd জানুয়ারি অর্থাৎ গতকাল বুধবার কলকাতা কলকাতা হাইকোর্টে 2016 সালের নিয়োগ দুর্নীতি মামলার শুনানি ছিল।

Advertisement

WBBPE Primary TET Scam Teachers Panel Submitted

বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে গতকালের রায় বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। গতকাল 2016 সালের Primary TET Scam মামলার শুনানিতে বিচারপতি গাঙ্গুলি পর্ষদকে আগামী 10 দিনের মধ্যে প্যানেল প্রকাশের নির্দেশ নিয়েছে। গতকাল কাল 2016 সালের মালার শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্ট পর্ষদকে আগামী 10 দিনের মধ্যে প্যানেল প্রকাশ করার নির্দেশিকা দিয়েছে। এই প্যানেলে 42 হাজারের বেশি প্রার্থীর নাম রয়েছে।

প্যানেলে 42,949 জন প্রাথমিক শিক্ষকের নাম রয়েছে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এই প্যানেল কোর্টে জমা না করলে ওই প্যানেলের হার্ড কপি এবং সফ্ট কপি কলকাতা হাইকোর্টে জমা করার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলী। উল্লেখ্য, 2014 সালের টেট পরীক্ষার উপর ভিত্তি করে 2016 এবং 2020 সাল নাগাদ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছিল। এই সময় 42 হাজারের বেশি প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছিল।

Ads

আগামীকাল প্রাইমারি টেট রাজ্যে। পরীক্ষার দিতে যাওয়ার আগে জরুরী বিষয়গুলি দেখে

বেআইনি পথে শিক্ষক নিয়োগ বা Primary TET Scam করা হয়েছিল। এই অভিযোগ এনে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন মৌটুসী রায় সহ একাধিক চাকরিপ্রার্থী। তাদের অভিযোগ ছিল মেধা থাকস সত্ত্বেও তাদের মেধা তালিকায় নাম আসেনি। এর আগে বিচারপতি অমৃতা সিনহার বেঞ্চ এই নিয়োগ মামলার শুনানিতেও প্যানেল প্রকাশের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তবে কোর্টের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ করেছিল পর্ষদ।

Advertisement
Primary TET Scam (প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি)

পর্ষদের প্রশ্ন ছিল, 2016 সালের নিয়োগের পর 2023 সালে কীভাবে প্যানেল প্রকাশের নির্দেশ দিচ্ছে কোর্ট। পর্ষদ জানিয়েছিল, সে সময় জেলাভিত্তিক প্যানেল প্রকাশ করা হয়েছিল। যা এখনো পর্ষদের অফিসিয়াল ওয়াবসাইটে রয়েছে। তবে এখন আর নতুন করে প্যানেল প্রকাশ করা সম্ভব নয়। এই মামলা এখনো নিস্পত্তি হয়নি। বিচারপতি অমৃতা সিনহার এই রায়কে স্থগিতাদেশ দিয়েছে বিচারপতি সৌমেন সেনের ডিভিশন বেঞ্চ।

Advertisement

2017 সাল থেকে চাকরি পাওয়া সমস্ত শিক্ষক বিপদে। 10 দিনের মধ্যে লিস্ট জমা করার নির্দেশ।

এরই মাঝে গতকাল 42,949 জন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের বা Primary TET Scam এর প্যানেল প্রকাশ করার নির্দেশ দিয়েছে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। এর ফলে কিছুটা ধন্দে পড়েছে উভয় পক্ষের আইনজীবীরা। একই মামলা বা রায়ের স্থগিতাদেশ দেওয়ার পর কীভাবে আবার এই নির্দেশ দেয় কোর্ট, এই প্রশ্নও উঠেছে। আগামী 15th জানুয়ারি এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে।

Ads

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement