রাজ্যে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের প্রাপ্ত নম্বর বেড়ে যাবে অনেকটাই, নতুন উপায়গুলি পরীক্ষা দিতে যাওয়ার আগে জেনে নিন।

রাজ্যে মাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর বাড়াতে হলে কিভাবে কি করবেন, তা জেনে রাখা প্রত্যেক পরীক্ষার্থীর জেনে রাখা অত্যন্ত জরুরী। যেহেতু মাধ্যমিক পরীক্ষা বর্তমানে চলছে, সুতরাং পরীক্ষার্থীরা যে সিলেবাস শেষ করে এখন রিভিশনে ব্যাস্ত, তাআ আর আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে নিজের শরীরকে সুস্থ আর চাঙ্গা রেখে মনে জোড় আনতে কি করবেন, চলুন ১ মিনিটে তা জেনে নেওয়া যাক।

Advertisement

মাধ্যমিক পরীক্ষায় নম্বর বাড়াতে বিশেষ টিপস জানা দরকার।

চলছে পরীক্ষার মরশুম। কীভাবে মাথা ঠান্ডা রাখবেন কয়েকটি সহজ জিনিস দিয়ে, দেখে নিন। ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। মার্চের ১৪ তারিখ থেকে একাদশ আর দ্বাদশের পরীক্ষা শুরু হবে। তারপর বিভিন্ন এন্ট্রান্স এক্সাম তো লেগেই আছে। পরীক্ষার এই মরশুমে রান্নাঘরের কয়েকটি সহজ জিনিস দিয়ে নিজেকে সুস্থ ও চিন্তামুক্ত রাখা যায়। দেখে নিন সম্পূর্ণ তালিকা।

এক, ডাবের জল –
মার্চ মাস শুরু হতে চলেছে, সাথে টেক্কা দিয়ে বাড়বে গরমও। গ্রীষ্মকাল তো বটেই তাছাড়াও সারাবছরই ডাবের জল খাওয়া শরীরের জন্য  খুবই উপকারী। এতে থাকে পর্যাপ্ত পরিমানে পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম, যা মাথা এবং শরীর দুই-ই ঠান্ডা রাখে৷ ফলে সম্ভব হলে পরীক্ষার সময় আপনার সন্তানকে নিয়মিত ডাবের জল পান করান।

Ads

দুই, তরমুজ –
তরমুজ ফলের মধ্যে জলের পরিমান ৯০ শতাংশেরও বেশি থাকে। তাই গরমকালে তরমুজ খেতে দেহ ঠান্ডা থাকে। এতে থাকে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ও মিনারেলও। তাই পরীক্ষার সময় বাচ্চাদের ডায়েটে তরমুজ অবশ্যই রাখা উচিত।

Advertisement

সাপ্তাহিক রাশিফল (27শে ফেব্রুয়ারি থেকে 5ই মার্চ) – মেষ থেকে মীন, পার্ট-1 দেখে নিন।

তিন, শসা –
তরমুজের মতই শসাতেও জলের পরিমান ৯০ শতাংশের বেশি। তাই এটি শরীরে জলের ঘাটতি পূরণে বিশেষভাবে সাহায্য করে। পরীক্ষার সময় টেনশনের ফলে ঠিক মত জল খাওয়া হয়ে ওঠেনা অনেকেরই, তাই নিয়মিত শসাও খেলে সেই ঘাটতি সহজেই পূরণ হয়ে যায়।

Advertisement

চার, আখের গুড়ের সরবত –
আখের গুড় স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। এতে থাকে Fructose ও Gluctose, যার ফলে এটি শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম। তাই গরমকালে আখের গুড়ের সরবত খেলেও শরীর ঠান্ডা থাকে।

Ads

মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্ন পত্র ফাঁস করলো কারা, ধরা পড়ে গেল, পরীক্ষার্থীরা মহা চিন্তায়।

পাঁচ, পুদিনা পাতা –
পরীক্ষার সময় টেনশন, দুশ্চিন্তা, ঘুম কম হওয়ার মত বিষয়গুলো হয়ে থাকে। তাই শরীর সুস্থ রাখার পাশাপাশি মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখাও খুব জরুরি । এই সময় পুদিনা পাতা হয়ে উঠতে পারে মহৌষধ। এতে থাকে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও ভিটামিন। পুদিনা আবার খাবার হজমেও খুব ভালো সাহায্য করে৷ এই খাবারগুলো ডায়েটে রাখার পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খাওয়া এবং ঘুমানোর দিকেও খেয়াল রাখতে হবে। তাহলে সুস্থ শরীর এবং মন নিয়ে পরীক্ষার দিনগুলো খুব সহজেই উতরে যাওয়া যাবে।
Written by Parna Banerjee.

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement