পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মীরা (West Bengal Satate Government Employee)

রাজ্য সরকারি কর্মী তথা পশ্চিমবঙ্গের সরকারি কর্মীরা (West Bengal Satate Government Employee) বেতন ছাড়াও একাধিক সুবিধা ভোগ করে থাকেন। সরকারি কর্মীদের সার্ভিস রুলে (Service Rules) একাধিক সুবিধার কথা উল্লেখ রয়েছে। আর বর্তমানে কেন্দ্র সরকারের আইন অনুযায়ী যেকোনো সুবিধা পেতে আধার লিংক বাধ্যতামূলক। আর এই নিয়ম মেনে রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্যও আধার লিংক (Aadhaar Link) নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা জারি হলো।

Advertisement

রাজ্য সরকারি কর্মীদের জরুরী নির্দেশ।

ভারতে বসবাসকারী প্রতিটি নাগরিকের কাছে আধার কার্ড (Aadhaar Card) হল এক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নথি। পড়াশোনা থেকে শুরু করে সরকারি চাকরি অথবা কোনো সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পাওয়া সমস্ত ক্ষেত্রেই প্রয়োজন হয় এই আধার কার্ড। বর্তমানে রেশন কার্ড (Ration Card), প্যান কার্ড (PAN Card), ব্যাংক অ্যাকাউন্ট (Bank Account) সবকিছুর সঙ্গে আধার কার্ড লিঙ্ক করানো বাধ্যতামূলক করা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে।

কারণ আধার কার্ডের মাধ্যমে সরকারের কাছে প্রতিটি ব্যক্তির খাঁটি তথ্যপ্রমাণ জমা থাকে। এছাড়াও এই তথ্য সহজেই ব্যবহারকারীরা তাদের বায়োমেট্রিক দ্বারা যখন তখন অ্যাক্সেস করতে পারেন। সেই কারণে কোনো ক্ষেত্রেই দুর্নীতি ঘটার সম্ভাবনা থাকে না। আর এবার কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ অনুসরণ করে আমাদের রাজ্য সরকারও চালু করল আধার লিঙ্কের ব্যবস্থা। এ ব্যাপারে গত কিছু দিন আগেই একটি নির্দেশিকা জারি করেছে রাজ্য সরকার।

Ads

কি নির্দেশ দেওয়া হয়েছে?

সেখানে বলা হয়েছে প্রতিটি সরকারি কর্মীদের মানতেই হবে এ নিয়ম। নইলে বন্ধ করে দেয়া হবে তাদের এই প্রাপ্য স্কিমের সুবিধা।
প্রতিটি সরকারি কর্মচারী এবং পেনশনভোগী সে রাজ্যের হোক বা কেন্দ্রের হেলথ স্কিমের সুবিধা সকলেই পেয়ে থাকেন। কারণ এটি তাদের প্রাপ্য অধিকার। তবে এবার এই সুবিধাই বন্ধ করে দিতে চলেছে আমাদের রাজ্য সরকার।

Advertisement
পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মী ( West Bengal State Govt Employees)

কোনো রাজ্য সরকারি কর্মী অথবা পেনশনভোগী যদি অবিলম্বে তাদের হেলথ স্কিমে আধার লিঙ্ক না করান, তবে তাদের বঞ্চিত করা হবে এই পরিষেবা পাওয়ার থেকে, এমনটাই জানানো হয়েছে সরকারের তরফে। পশ্চিমবঙ্গ হেলথ স্কিমের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট মারফত এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। সেই বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুযায়ী গত ৫ ই অক্টোবর ২০২৩ তারিখ থেকে যেসমস্ত হেলথ স্কিম গুলি রাজ্য সরকার চালু করেছে অথবা ভবিষ্যতে যে স্কিমগুলি চালু করবে সেগুলিতে নাম নথিভুক্ত কারী সকল ব্যক্তিকে আধার লিঙ্ক করাতে হবে বলে জানান হয়েছে।

Advertisement

আরও পড়ুন, সোনার দাম 6 মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন। এই সুযোগ হাত ছাড়া না করতে হলে আজই কিনে ফেলুন সোনার গয়না।

তবে কেউ যদি ইতিমধ্যেই এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে থাকেন, তার আর নতুন করে করার প্রয়োজন নেই।
পশ্চিমবঙ্গ হেলথ স্কিমের আওতায় সুবিধাভোগীরা আধার লিঙ্ক করালে তাদের প্রত্যেকের উদ্দেশ্যে একটি এনরোলমেন্ট সার্টিফিকেট ইস্যু করবে সরকার। স্কিমের সঙ্গে সংযুক্ত আধার কার্ডের নম্বরটি উল্লেখিত থাকবে এই সার্টিফিকেটের ওপর। তবে সরকারের তরফে জানানো হয়েছে যে এই আধার নম্বরটি নিরাপত্তার কারণে মাস্কড রাখা হবে।

Ads

অর্থাৎ রাজ্য সরকারি কর্মীদের সার্টিফিকেটের মধ্যে লুকানো অবস্থায় থাকবে এই নম্বরটি। প্রয়োজন বিশেষে যেকোনো সময়ে ওয়েবসাইট থেকে এই এনরোলমেন্ট সার্টিফিকেটটি ডাউনলোড করে নেওয়া যাবে। তাই যারা যারা এখনো পর্যন্ত রাজ্য সরকারি কর্মীরা তাদের আধার কার্ড পশ্চিমবঙ্গ হেলথ স্কিমের আওতায় সংযুক্ত করাননি তারা সত্বর এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে নিন। নইলে বন্ধ করে দেয়া হবে পরিষেবা।
Written by Nabadip Saha.

আরও পড়ুন, মহিলাদের জন্য কেন্দ্র সরকারের 5 টি দুর্দান্ত প্রকল্প। মোদী সরকারের বাজিমাত।

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *