বিশেষ কারনে পশ্চিমবঙ্গের সরকারি কর্মীদের দুর্গা পুজোর ছুটি বাতিল, জানালেন রাজ্যের মন্ত্রী। জারি হলো সরকারি বিজ্ঞপ্তি।

এবছর দুর্গাপূজায় রাজ্যের সরকারি কর্মচারীদের একাংশের ছুটি বাতিল (Durga Puja Holiday 2023) তথা ছুটি থাকবে না, এমনটাই জানানো হলো সরকারের তরফ থেকে। আর প্রায় এক মাস পরেই আসতে চলেছে দুর্গাপুজো। বাঙালির সেরা উৎসব। সারা বছর আমরা যে যত কাজেই ব্যস্ত থাকি না কেন, এই সময়ে সকলেই চাই পুজোর দিনগুলিতে আনন্দে মেতে উঠতে এবং একটানা লম্বা ছুটি কাটাতে।

Advertisement

কাদের দুর্গা পুজোর ছুটি বাতিল?

স্কুল কলেজ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে অনেক রকমের সরকারি অফিস কাছারি বন্ধ থাকে এই সময়টুকুতে রাজ্যে। পুজো পেরোলেই আবার চালু হয় সেই সমস্ত স্থানের কাজকর্ম। ফলে পড়ুয়া ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে সরকারি কর্মচারীরা পর্যন্ত সারা বছর ধরে অপেক্ষা করে থাকেন এই পুজোর সময় টার জন্য। তবে এ বছর পূজোতে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে সেই ছুটি বাতিল বলে ঘোষণা করায় স্বাভাবিকভাবেই ভেঙে পড়েন অনেক মানুষ।

Durgapuja Holiday 2023

কিন্তু পরে অবশ্য সরকার এটিও জানায় যে বিশেষ কিছু সরকারি ক্ষেত্রের কাজকর্মই চালু রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এই ঘোষণা মারফত। অন্যান্য অফিস গুলি অবশ্যই ছুটি থাকবে পুজোর সময়। তবে এবার চলুন আর কথা না বাড়িয়ে দেখে নি দূর্গা পূজার সময়ে রাজ্যের কোন সরকারি কর্মচারীরা ছুটি পাবেন আর কাদের ছুটি বাতিল।

Ads

বুধবার এক সাংবাদিক বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিদ্যুৎ মন্ত্রকের অধিপতি শ্রী অরূপ বিশ্বাস বলেন যে এ বছর দুর্গাপুজোয় বিদ্যুৎ দপ্তরের কোনো কর্মীকে ছুটি দেওয়া হবে না। তিনি আরো বলেন দুর্গাপুজোর দিনগুলিতে সরকার খেয়াল রাখবে যাতে রাজ্যের সর্বত্র বিদ্যুৎ সংযোগ পরিষেবা অটুট থাকে, আর সেই কারণেই এই ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Advertisement
Vishwakarma Puja Holiday বা বিশ্বকর্মা পূজা ছুটি

ওদিন সাংবাদিক বৈঠকে তিনি ব্যক্ত করেছেন যে এ বছর রাজ্যে দুর্গাপুজোর সময় মোট ৭১ হাজার বিদ্যুৎ কর্মীকে রাস্তায় ডিউটি দেওয়া হবে। সেই সঙ্গে ৩৫৭ টি মোবাইল ভ্যান প্রস্তুত রাখা হবে প্রতিটি পুজো কমিটির প্যান্ডেলে। কোন কারনে বিদ্যুৎ পরিষেবায় বিঘ্ন ঘটলে যাতে সত্বর ব্যবস্থা গ্রহণ করা যায় সেই কারণেই এ বছর এই কড়াকড়ি ব্যবস্থা করা হয়েছে সরকারের তরফ থেকে, এমনটা জানান বিদ্যূৎমন্ত্রী।

Advertisement

আরও পড়ুন, প্রাথমিক টেট পরীক্ষার ফর্ম ফিলাপ Step By Step, দেখেনিন সম্পূর্ণ আবেদন প্রক্রিয়া

এছাড়াও এবছর দুর্গাপুজোর সময় প্রতিটি পুজো কমিটিকে সমগ্র বিদ্যুৎ বিলের ওপর মোট ৬৬ শতাংশ ছাড় প্রদান করা হবে বলে জানানো হয়েছে বিদ্যুৎ দপ্তরের তরফ থেকে। পাশাপাশি পূজা প্যান্ডেল গুলিকে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্নতার অসুবিধা থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ সংস্থা পাওয়ার গ্রিড, কোল ইন্ডিয়া এবং ন্যাশনাল থার্মাল পাওয়ার কর্পোরেশনের কাছে বিদ্যুৎ চেয়ে কোটেশন জমা দেওয়া হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার মারফত।

Ads

আরও পড়ুন, ব্যাংক একাউন্টের টাকা হচ্ছে গায়েব। আধার প্রতাড়নার হাত থেকে কিভাবে বাঁচবেন?

অন্যদিকে আবার যে কোন রকম অভিযোগ জানানোর জন্য একটি হেল্পলাইন নাম্বারও চালু করা হয়েছে বিদ্যুৎ দপ্তরের পক্ষ থেকে যেটি হলো ১৯১২১। এছাড়াও সিইএসসি বোর্ডকে রাজ্যের সর্বত্র যাতে সেই সময় বিদ্যুৎ পরিষেবা নিরবচ্ছিন্ন থাকে, সেই বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করার নির্দেশও জারি করা হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে। এবছর দুর্গাপূজায় রাজ্যের কোথাও যাতে লোডশেডিং এর কারণে মানুষের পুজোর আনন্দে বিঘ্ন না ঘটে, সেই কারণে চরমভাবে সজাগ থাকতে চলেছে সরকার কর্তৃপক্ষ।
Written by Nabadip Saha.

সুখবর বাংলা

Leave a Comment

Advertisement