Education Policy – পশ্চিমবঙ্গের স্কুলে প্রত্যেক শনিবার হাফ ছুটি বাতিল। চালু হলো নতুন নিয়ম। শিক্ষক ও ছাত্র ছাত্রীদের মেনে চলতে হবে।

রাজ্যের নতুন শিক্ষানীতি তথা Education Policy অনুযায়ী প্রতি শনিবার হবে বিশেষ ক্লাস! শুধু তাই নইয়, নতুন প্রস্তাবে আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে। রাজ্যের স্কুল গুলিতে শিক্ষানীতিতে (Education Policy) এলো বড়সড় পরিবর্তন। একনজরে দেখে নিন।

Advertisement

West Bengal Education Policy

রাজ্যের প্রাইমারি স্কুলগুলিতে (Primary School) নিরাপত্তামূলক অ্যাডভাইসারি চালু করার কথা কিছুদিন আগেই ঘোষণা করেছিল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। আর তারই এক পদক্ষেপ হিসেবে এবার WBBPE পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ নিলো আরেক বিশেষ সিদ্ধান্ত। এখন থেকে Education Policy অনুযায়ী প্রতি শনিবার রাজ্যের সমস্ত সরকারি প্রাথমিক স্কুলগুলিতে করানো হবে বিশেষ ক্লাস। এ কথা স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।

WBBPE পর্ষদের ঘোষণাঃ

কিছুদিন আগেই এক সাংবাদিক বৈঠকে পর্ষদ সভাপতি শ্রী গৌতম পাল মহাশয় স্বয়ং এ কথা ঘোষণা করেছেন। প্রধানত প্রাথমিক স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদের নিরাপত্তার উদ্দেশ্যেই এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের পথ দুর্ঘটনা এবং তার নিরাপত্তা সম্পর্কে সচেতন করাই হল এই কর্মসূচির প্রধান লক্ষ্য। আর এবার রাজ্যের Education Policy সেই বিষয় অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে।

Ads

বৈঠকে সভাপতি মহাশয় এ কথাও জানিয়েছেন Education Policy মেনে খুব শীঘ্রই তারা সমস্ত জেলার ডিপিএসপি চেয়ারম্যানদের সঙ্গে বৈঠক করে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। এছাড়া বিভিন্ন স্কুলের আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার ব্যবস্থা নিয়েও তারা ভাবনা চিন্তা করছেন। এবং সেই মতে একাধিক প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে খুব শীঘ্রই এই নতুন নিয়ম চালু হবে। এবং তার জন্য শিক্ষকদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণ অ দেওয়া হবে।

Advertisement

কিছুদিন আগেই বেহালায় এক প্রাইমারি স্কুল পড়ুয়া ছাত্রের ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে ওঠে সারা রাজ্য। এমনকি রাজ্যের মানুষ এই নিয়ে স্কুল গুলির দায়িত্ব জ্ঞান হীনতাকে দায়ী করতে থাকে। তাদের সকলের একটাই অভিযোগ যে স্কুল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে কেন যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি ছোট ছোট শিশুদের নিরাপত্তার রক্ষার জন্য। সে যাই হোক এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে সেই কারণেই দীর্ঘ আলোচনার শেষে পর্ষদ সভাপতি এই ব্যবস্থা গ্রহণের কথা ঘোষণা করেন।

Advertisement
Chandrayaan 3 Missions (চন্দ্রযান ৩ প্রশ্নোত্তর)

তার ধারণা যদি স্কুলগুলিতে শিশুদের পথ নিরাপত্তার বিষয়ে শিক্ষাদান করা হয় তাহলে তারা এ বিষয়ে অবশ্যই সচেতন হবে। আর তাই তিনি এখন থেকে রাজ্যের প্রতিটি প্রাথমিক স্কুলে প্রতি শনিবার বিশেষ নিরাপত্তামূলক ক্লাস করার নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষক শিক্ষিকাদের। তবে শুধু তাই নয় পথ নিরাপত্তা বৃদ্ধির জন্য পরিকাঠামোগত ব্যবস্থাকেও আরো উন্নত করার চেষ্টা করা হবে পর্ষদ কর্তৃক।

Ads

আরও পড়ুন, বাংলার ছাত্র ছাত্রীদের জন্য চালু হলো বিকাশ ভবন স্কলারশিপ, আবেদন করলেই নগদ টাকা।

এর আগেই অবশ্য স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদের পথ নিরাপত্তার বিষয়ে সচেতন করার জন্য একাধিক কর্মসূচি নেওয়া হয়েছিল পর্ষদের তরফে। যেমন তাদের পাঠ্যবইতে এ বিষয়টিকে আলাদা অধ্যায় হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। এছাড়াও শিক্ষক শিক্ষিকারা ক্লাসে এই বিষয়ে নিয়ে আলোচনার মাধ্যমে শিক্ষাদান করে থাকতেন ছাত্র ছাত্রীদের। কিন্তু তা সত্ত্বেও দুর্ঘটনাকে সম্পূর্ণভাবে প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়নি। আর তাই এবার কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছে WBBPE পর্ষদ।

এই প্রসঙ্গে উল্লেখ করতে হবে যে আমেরিকা এবং পশ্চিমের দেশ গুলিতে প্রাইমারি স্তরের ছাত্র ছাত্রীদের স্কুলে পথ নিরাপত্তা এবং ট্রাফিক আইন সম্পর্কে শেখানো পড়ানোর রীতি চালু আছে। আর তাই বিশেষজ্ঞরা মনে করেন সেখানকার জীবনযাত্রা এত বেশি ব্যস্ত হওয়ার সত্বেও মানুষ নিরাপদে পথে চলাচল করতে পারে। সেই অনুকরণে আমাদের রাজ্যেও চালু হতে চলেছে এই বিশেষ নিয়ম।

পর্ষদ কর্তৃক জানানো হয়েছে যে এখন থেকে শনিবার আর হাফ ছুটি হবে না স্কুলগুলিতে। বরং প্রতিদিনের মতোই পুরো ক্লাস করানো হবে। তবে টিফিনের পর সেই ক্লাস রাখা হবে শুধুমাত্র পথ নিরাপত্তার এবং ট্রাফিক আইন সচেতনতা সম্পর্কে। এছাড়াও নিরাপত্তা মূলক অ্যাডভাইসারির অঙ্গ হিসেবে প্রাথমিক স্কুলগুলিতে ঢোকা এবং বেরোনোর সময়েও ছাত্র ছাত্রীদের নিরাপত্তার দিকে লক্ষ্য রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পর্ষদ মারফত।

আরও পড়ুন, শত অভাবের মধ্যেও পশ্চিমবঙ্গে ভাতা বাড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী। কাদের কত বাড়ছে?

এ ব্যাপারে স্থানীয় এলাকার পুলিশ প্রশাসনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এমনিতেই পুলিশ প্রশাসন হাইস্কুল গুলিতে যেমন সেভ ড্রাইভ সেভ লাইফের ক্যাম্পেইন চালায়। ঠিক তেমনি প্রাইমারী স্কুল গুলোতেও নিরাপত্তামুলক পাঠদান করা হবে। এখনো পর্যন্ত এই কয়েকটি ব্যবস্থা গ্রহণেরই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পর্ষদ। তবে আগামী দিনে বিভিন্ন মহলের সঙ্গে আলোচনা করে নতুন শিক্ষানীতি তথা Education Policy অনুযায়ী নিরাপত্তমূলক ব্যবস্থাকে আরো বৃদ্ধি করা হবে বলে জানানো হয়েছে।
Written by Nabadip Saha.

সুখবর বাংলা

1 thought on “Education Policy – পশ্চিমবঙ্গের স্কুলে প্রত্যেক শনিবার হাফ ছুটি বাতিল। চালু হলো নতুন নিয়ম। শিক্ষক ও ছাত্র ছাত্রীদের মেনে চলতে হবে।”

Leave a Comment

Advertisement