Pension Seva – সকল সরকারি কর্মী ও পেনশনারদের জরুরী নির্দেশ। না মানলে পেমেন্ট আটকে যাবে।

সমস্ত সরকারি কর্মী ও পেনশনভোগীরা এই নথি জমা না দিলে বন্ধ করে দেওয়া হবে পেনশন। Pension Seva Portal এ শেষ সময়সীমা জানাল সরকার। শুধু পেনশন গ্রাহকেরাই নয়, যারা খুব শীঘ্রই অবসর নেবেন, এবং ইতিমধ্যেই যাদের পেনশন ফাইল রেডি হচ্ছে, তাদের জন্য ও এটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা। তাই পুরো প্রতিবেদন পড়ে নিন।

Advertisement

Pension Seva Portal for Pensioners

আপনি কি রাজ্য অথবা কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ একজন সরকারি কর্মী বা পেনশন ভোগী? তাহলে আপনার জন্য আজ রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ আপডেট। সম্প্রতি দেশের সকল অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী তথা পেনশন ভোগীদের উদ্দেশ্যে সরকার মারফত বার্তা দেওয়া হয়েছে এই বিশেষ নথি জমা করার। সঙ্গে এটিও জানানো হয়েছে যে যদি কোন ব্যক্তি বিষয়টিকে এড়িয়ে গিয়ে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে Pension Seva Portal এ সেই নথি জমা না দেয় তবে তার পেনশন আটকে দেওয়া হবে পরের মাস থেকে।

রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকার উভয়েরই পেনশন ভোগীদের এই কাজ সম্পন্ন করতে হবে। ইতিমধ্যেই সরকার মারফত Pension Seva বিষয়ে একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। যে নির্দেশিকায় উল্লেখ করা আছে নথি জমা করা সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য সমূহ যেমন কিভাবে জমা করতে হবে, কোথায় গিয়ে জমা দিতে হবে বা কত তারিখের মধ্যে জমা করতে হবে ইত্যাদি। সবিস্তারে জানতে শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

Ads

Submission of Life Certificate in Pension Seva Portal

লাইফ সার্টিফিকেট জমা (Life Certificate Submission)করা হল সমস্ত পেনশনারদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রক্রিয়া। কারণ এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ না করলে সরকার থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয় সেই পেনশনভোগীদের পেনশন। সাধারণত প্রতিবছরই সকল অবসরপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারি কর্মী তথা পেনশন ভোগীদের নির্দিষ্ট সময় Pension Seva এ জমা করতে হয় এই লাইফ সার্টিফিকেট।

Advertisement
Post Office Savings Schemes - পোষ্ট অফিসের সঞ্চয় প্রকল্প

এইবারেও সরকার ঘোষণা করে দিল এই লাইফ সার্টিফিকেট জমা করার নির্দিষ্ট সময়সীমা। আগামী ১ নভেম্বর থেকে ৩০শে নভেম্বর পর্যন্ত জমা নেওয়া হবে সকল পেনশন ভোগীদের লাইফ সার্টিফিকেট। আপনারা চাইলে বাড়িতে বসে অনলাইনের মাধ্যমেই অথবা কোন নিকটবর্তী সাইবার ক্যাফেতে গিয়ে ডিজিটাল পদ্ধতিতে লাইফ সার্টিফিকেট জমা করতে পারেন।

Advertisement

Life Certificate submission online

তবে যাদের ক্ষেত্রে এই সুবিধা প্রযোজ্য নয় তারা নিজের নিজের ব্যাংকের শাখায় গিয়েও জমা করে আসতে পারেন এই লাইফ সার্টিফিকেট এবং পরে সেগুলো Pension Seva আপডেট হয়ে যাবে।
কেন্দ্রীয় সরকার তার অধীনস্থ কর্মচারীদের জন্য অনেক আগেই অনলাইনে লাইফ সার্টিফিকেট জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া চালু করেছে।

Ads

lLfe Certificate submission last date

সেই অনুযায়ী তারা নিজেদের বাড়ি থেকেই বা কাছের কোন সাইবার ক্যাফে থেকে সহজেই জমা করে দিতে পারেন এই লাইফ সার্টিফিকেট। তবে আমাদের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারও এই বিষয়ে ভাবনা চিন্তা করছে। সরকারি তরফ থেকে এও জানানো হয়েছে যে উপরমহল থেকে চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়া গেলে এই সেপ্টেম্বর মাস থেকেই হয়তো রাজ্যেও ডিজিটাল লাইফ সার্টিফিকেট গ্রহণ পদ্ধতি চালু করা হবে।

আরও পড়ুন, আপনার জমানো টাকায় বেশি সুদ চাইলে এই ৫টি সরকারি ব্যাংকের এই স্কীমে টাকা রাখুন।

যার ফলে সুবিধা হবে এবার রাজ্য সরকারি কর্মীদেরও। আর তাদেরকে কষ্ট করে ব্যাংকে গিয়ে লাইন দিয়ে জমা দিতে হবে না লাইফ সার্টিফিকেট। আপনি অত্যন্ত সহজে ঘরে বসেই এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে ফেলতে পারবেন কোনরকম পরিশ্রম ছাড়াই। এজন্য কেবলমাত্র দরকার একটি স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটারের।

How to submit Digital Life Certificate Online?

কিভাবে জমা করতে হবে ডিজিটাল লাইফ সার্টিফিকেট?
১. প্রথমে আপনার স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটারে আপনাকে দুটি সফটওয়্যার অথবা অ্যাপ্লিকেশন ইন্সটল করতে হবে। Pension Seva এর

  • Jeevan Praman
  • Jeevan Praman Face Application.

২. এরপর প্রথম অ্যাপটি ওপেন করে নিজের আধার কার্ড, মোবাইল নম্বর এবং ইমেইল আইডি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।
৩. তারপর আপনার মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি যাবে এবং সেটিকে বসিয়ে ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ করতে হবে।

৪. রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে গেলে একটি নতুন ইন্টারফেস খুলে যাবে।
৫. এখানে যথাক্রমে পেনশনারের নাম, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর, পিপিও নম্বর, পেনশন টাইপ, পেনশন অনুমোদনকারী অথরিটির নাম ও অন্যান্য বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় উল্লেখ করতে হবে।

৬. তারপরের সেকশনে এসে উল্লেখ করতে হবে আপনি আবার কোন চাকরি জয়েন করেছেন কিনা অথবা বর্তমানে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ কিনা।
৭. এরপর দ্বিতীয় অ্যাপটি ওপেন করে ফেস ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। এজন্য নিজের একটি তাৎক্ষণিক ছবি ক্যামেরার মাধ্যমে তুলে সেটিকে আপলোড করতে হবে কম্পিউটার বা স্মার্টফোন থেকে।

আরও পড়ুন, গনেশ চতুর্থী উপলক্ষ্যে সোনা কেনার দারুন সুযোগ। আবার দাম কমলো। কলকাতায় আজ সোনার দাম

৮. সবশেষে Pension Seva Portal এ ফেস ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ হলে আবার আগের অ্যাপটিতে এসে নিজের আধার কার্ড নম্বর ভেরিফিকেশন করতে হবে। আর আধার কার্ড ভেরিফাইড হওয়ার পরই আপনি সমস্ত তথ্য এবং ছবি সহ আপনার লাইফ সার্টিফিকেট ফর্মটিকে সাবমিট করতে পারবেন। এরপরই সম্পূর্ণ হয়ে যাবে এই প্রক্রিয়া। প্রয়োজনে আপনি আপনার লাইফ সার্টিফিকেট ফর্মের একটি হার্ডকপি প্রিন্ট করে নিতে পারেন।
Written by Nabadip Saha.

সুখবর বাংলা

Leave a Comment

Advertisement