Cyclone Mocha Effect – শুরু হয়ে গেল মোকার খেল, দহনজ্বালা বাংলায়, দুর্যোগ শুরু।

এখনো পর্যন্ত যা খবর, তাতে পশ্চিমবঙ্গে সরাসরি আঘাত হানার আশঙ্কা নেই বলেই জানা যাচ্ছে। তবুও Cyclone Mocha Effect থেকে পাড় পাচ্ছে না বঙ্গবাসী। ঝড় না হলেও বাংলার সব ঠাণ্ডা হাওয়া গিলে খাচ্ছে মোচা। যার জেরে পশ্চিম থেকে গরম হাওয়া ঢুকছে বাংলায়। দুই এক পশলা বৃষ্টি হলেও গরম কমছে না।

Advertisement

Cyclone Mocha Effect on West Bengal:

যদিও, সাইক্লোন এর গতিবিধির দিকে নজর রাখছে হাওয়া অফিস। বর্তমানে উপগ্রহ চিত্র (Satellite Picture) অনুযায়ী দক্ষিণপূর্ব বঙ্গোপসাগরের ঘূর্ণাবর্তটি ধীরে ধীরে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হচ্ছে। পোর্ট ব্লেয়ার, বাংলাদেশের কক্সবাজার এবং মায়ানমার উপকূল থেকে বেশ কিছুটা দূরেই অবস্থান করছে সাইক্লোন মোকা (Cyclone Mocha Effect) আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী যা জানা যাচ্ছে, আগামী ১৪ ই মে নাগাদ সাইক্লোন মোকা ল্যান্ডফল করতে পারে। কিন্তু তার ল্যান্ডফলের লোকেশন কি? কোথায় হিট করতে চলেছে মোকা, সেই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত স্পষ্ট কিছু না বললেও বাংলার দিকে আসছে না, তা এক প্রকার স্পষ্ট। তবে সাইক্লোন মোকার গতিবিধির ওপর নিয়মিত নজর রাখছে দিল্লির মৌসম ভবন।

এবার সাইক্লোন মোকা যত এগোচ্ছে, ততোই আবহাওয়ার বদল ঘটছে। বিশেষ করে এই মুহূর্তে বাংলায় যে শুষ্ক গরমের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, সেটাও এই সাইক্লোন মোকার পরোক্ষ প্রভাব (Cyclone Mocha Effect) সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প শুষে নিয়ে সাইক্লোন মোকা এগিয়ে যাচ্ছে। ১১ মে বৃহস্পতিবার, প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে চলেছে। তারপরেই বিকেল নাগাদ মোকা অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে ল্যান্ডফলের দিকে এগিয়ে যাবে।

Ads

তবে এখনো পর্যন্ত রাজ্যবাসীর কাছে স্বস্তির খবর, এটি পশ্চিমবঙ্গের দিকে এগোচ্ছে না। এটি বাংলাদেশ এবং মায়ানমার উপকূলবর্তী কোনো জায়গায় ল্যান্ড ফল করতে পারে। তবে কোথায় সঠিক হিট করবে সাইক্লোন মোকা, সেই বিষয়টি এখনো পর্যন্ত স্পষ্ট জানা যায়নি। মোকা কোন দিকে, কত গতিতে এগোচ্ছে, শেষ পর্যন্ত কোথায় গিয়ে হিট করতে পারে, সমস্তটাই জানার জন্য নজর রেখেছে মৌসম ভবন। এদিকে সাইক্লোন মোকার পরোক্ষ প্রভাবে (Cyclone Mocha Effect) শুরু হয়ে গিয়েছে বাংলা জুড়ে শুষ্ক গরমের আবহাওয়া।

Advertisement
Cyclone Mocha Live tracking (মোচা ঘূর্ণিঝড়)

আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তাপপ্রবাহের (Heatwave) পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। সেক্ষেত্রে পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, বাঁকুড়া সহ সংলগ্ন এলাকাগুলোতে তাপপ্রবাহের সর্তকতা রয়েছে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বলেই জানা যাচ্ছে। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গ থেকে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প শুষে নিয়ে (Cyclone Mocha Effect) এই সাইক্লোন মোকা এগিয়ে গিয়ে হিট করতে চলেছে বাংলাদেশ এবং মায়ানমার উপকূলবর্তী কোনো লোকেশনে।

Advertisement

ATM এর পিন নম্বর ভুলে গেছেন? টাকা তুলবেন কিকরে? এই মুহূর্তে কি করণীয়?

এখনো পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের দিকে সেরকমভাবে কোনো প্রভাব (Cyclone Mocha Effect) নাও পড়তে পারে। আর এর কারণেই সম্প্রতি রাজ্যজুড়ে তীব্র দাবদাহ শুরু হয়েছে। ফের শুরু হয়েছে শুষ্ক গরমের আবহাওয়া। তবে হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, এটা মোকার প্রভাবেই সাধারণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এই পরিস্থিতি থাকতে পারে। পরবর্তীতে আবহাওয়ার বদল হতে পারে। তবে সাইক্লোন মোকার গতিবিধি নিয়মিত নজরদারিতে রেখেছে মৌসম ভবন।

Ads

সুখবর বাংলা

Leave a Comment

Advertisement