মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি নিয়ে সরকারি কর্মীদের জন্য দারুণ উপহার, বেতন-পেনশন নিয়ে সুখবর!

ডিএ মামলার মধ্যেই সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি সংক্রান্ত সুখবর। রাজ্যের সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি বেতনের অংশ বিশেষ। কেন্দ্রের AICPI অর্থাৎ All India Consumer Price Index অনুসারে কেন্দ্রের কর্মীদের দেওয়া হয় মহার্ঘ ভাতা। তবে মহামারীর সময়কালে দীর্ঘ ১৮ মাসের বকেয়া DA থেকে বঞ্চিত হয়েছিলেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা। আর ওপর দিকে রাজ্যের সরকারি কর্মীদের ষষ্ঠ বেতন কমিশনে মিলছে ৬ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা। তবে পঞ্চম বেতন কমিশনের বিপুল বকেয়া মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি নিয়ে কোলকাতা শহীদ মিনারে চলছে আন্দোলন, অনশন।

Advertisement

নতুন হারে শীঘ্রই কেন্দ্রের মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি সরকারি কর্মীদের, দারুণ উপহার।

রাজ্যের সরকারি কর্মীরা নিজেদের ন্যায্য মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধির দাবিতে রাস্তায় বসে অনশন করছেন আর কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মীদের মুখে আবারও হাসি ফোটাতে ডিএ বৃদ্ধির কথা ভাবছে মোদী সরকার। রাজ্যের কর্মীদের তৃণমূল সরকার আদৌ ডিএ দেবেন কিনা তা সময় বলবে কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মীদের বেতন বেশ খানিকটা বাড়তে চলেছে খুব শীঘ্রই। অপরদিকে রাজ্যের সরকারি কর্মীদের অনশন, আন্দোলন অব্যহত। আজ থেকে আবার “ডিজিটাল স্ট্রাইক” শুরু করেছেন পশ্চিমবঙ্গের সরকারি কর্মীরা।

কেন্দ্রের তরফে কর্মীদের জন্য প্রতি বছরে ২ বার করে মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি করা হয়। সাধারণত জানুয়ারি এবং জুন এই দুই মাসে ডিএ বাড়ানো হয়। চলতি বছরের জুন মাসে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে ডিএ বৃদ্ধির ঘোষণার প্রতীক্ষা করছেন কেন্দ্রীয় কর্মচারীরা। ডিএ র পাশাপাশি বাড়তে পারে কেন্দ্রীয় সরকারের পেনশনভোগীদের জন্য ডিয়ারনেস রিলিফও।

Ads

বিভিন্ন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী সংগঠনগুলি আশা করছে জুন মাসে সরকার ৪ শতাংশ হারে ডিএ ও ডিআর বৃদ্ধির ঘোষণা করতে পারে৷ ভাবনা যদি বাস্তবএ রূপান্তরিত হয়, সেক্ষেত্রে কর্মীদের ডিএ ৩৮ শতাংশ থেকে বেড়ে সোজা ৪২ শতাংশে পৌঁছাবে। ফলত কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের বেতন একলাফে অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধির সিদ্ধান্তে দেশের প্রায়  ৪৮ লাখ কেন্দ্রীয় কর্মচারী এবং ৬৩ লাখ পেনশনভোগী উপকৃত হবেন।

Advertisement

আধার কার্ডে নিজের নাম, ঠিকানা, মোবাইল নম্বর, ছবি পাল্টাতে চান! এভাবে করলে কোন টাকা লাগবে না। পদ্ধতি দেখুন।

কেন্দ্রীয় সরকার প্রতি ছয় মাসে এই ডিএর হার পরিবর্তন করে, অর্থাৎ বছরে দুই বার এই ডিএ বাড়ে। জানুয়ারি এবং জুন মাসে ডিএ বাড়ানো হয়ে থাকে। সাধারণত মুদ্রাস্ফীতি থেকে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের স্বস্তি দিতেই এই সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। দেশের মুদ্রাস্ফীতি যত বাড়ে, সরকারের তরফে দেওয়া ডিএ-র পরিমাণও ততটাই বৃদ্ধি পায়। জুন মাসে মোদী সরকার ৪ শতাংশ হারে ডিএ বৃদ্ধি করবে বলে বিভিন্ন রিপোর্টে উল্লেখ করা হচ্ছে।

Advertisement

আর হেয়ালি নয়, প্যান আধার লিংক না করলে এই 22 টি সরকারী সুবিধা পাবেন না।

বর্তমানে যদি কোনও কর্মচারীর বেতন যদি ১৮,০০০ টাকা হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে এতদিন তিনি ৩৮ শতাংশ হারে ডিএ পেতেন যা ৬,৮৪০ টাকা হচ্ছে। জুন মাসে এই ডিএ-র হার বেড়ে ৪২ শতাংশ হলে ওই কর্মচারীর ডিএ বেড়ে হবে দাঁড়াবে ৭,৫৬০ টাকায়। অর্থাৎ কেন্দ্রীয় কর্মীদের বেতন বহুলাংশে বৃদ্ধি পেতে চলেছে এই নতুন হারে ডিএ বৃদ্ধি হবার পর।
Written by Parna Banerjee.

Ads

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement