E Shram Card – আপনার কাছে ই-শ্রম কার্ড থাকলে প্রতিমাসে পাবেন 3000 টাকা করে, জেনে নিন আবেদন পদ্ধতি।

আপনি কি অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিক? আপনার কি ই-শ্রম বা E Shram Card করানো রয়েছে? তাহলে আপনার জন্য রয়েছে দুর্দান্ত খবর। কেন্দ্র সরকারের একটি জনপ্রিয় প্রকল্প E Shram Card. এই কার্ডের মাধ্যমের এবার প্রতি মাসে 3000 হাজার টাকা পাওয়া যাবে। একই সাথে মিলবে আরও অনেক সুবিধা। আপনি যদি একজন ই-শ্রম কার্ড হোল্ডার হয়ে থাকেন তাহলে প্রতিবেদনটি পড়ুন।

Advertisement

E Shram Card Apply and Get Benefits

ই-শ্রম কার্ড কী? আমাদের দেশে এমন বহু সংখ্যক মানুষ রয়েছে, যারা অসংগঠিত বা অস্থায়ী শ্রমিক। আরো ভালো করে বললে, দিন মজুর। এই সমস্ত মানুষদের ভবিষ্যৎ সঞ্চয় বলে কিছু থাকে না। তাই এই সব শ্রমিকদের নিরাপদের কথা ভেবে মোদী সরকার 2021 সালের অগাস্ট মাসে ই-শ্রম কার্ডের সূচনা করেন।

দেশের 40 কোটি মানুষ অসংগঠিত ক্ষেত্রে কাজ করে। এর মধ্যে 29 কোটির বেশি মানুষের জন্য ই-শ্রম কার্ড ইস্যু করেছে কেন্দ্র। যার মধ্যে 2 কোটির বেশি মানুষকে এই কার্ডের মাধ্যমে পরিষেবা দেওয়া শুরু হয়েছে। আগামীতে এই সংখ্যা আরও বাড়বে। কারন যেকোনো মানুষই চাইবেন তাদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে।

Ads

রেশন বন্টনে নতুন নিয়ম! অযোগ্যদের শনাক্ত করতে চালু হলো ইউনিট

ই-শ্রম কার্ডের সুবিধা: দিন মজুর, অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকদের আর্থিক দিক থেকে নিরাপত্তা দেওয়ার জন্যই কেন্দ্র এই প্রকল্পের সূচনা করেছে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে একাধিক সুবিধা পাওয়া যাবে। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য, প্রতি মাসে 3000 টাকা করে পেনশন। E Shram Card এ নাম নথিভুক্ত থাকলে প্রধানমন্ত্রী শ্রম যোগী মানধান যোজনা-র মাধ্যমে 60 বছর বয়সের পর 3000 টাকা করে পেনশন পাওয়া যাবে।

Advertisement

কর্মরত অবস্থায় 1 লক্ষ টাকার স্বাস্থ্য বীমা ও 2 লক্ষ টাকা পর্যন্ত জীবন বীমা পাওয়া যাবে। এছাড়া E Shram Card থাকলে PMAY, PMJAY, PM Kisan সহ একাধিক প্রকল্পের সুবিধা নিতে পারবে। এছাড়া আপনি অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিক হয়েও যদি আপনার এই E Shram Card না থাকে, তাহলেও আজকের প্রতিবেদনটি পড়ুন।

Advertisement

যোগ্যতা: ই-শ্রম কার্ড সকলের জন্য নয়। শুধু মাত্র অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকদের জন্য এই যোজনা আনা হয়েছে। ভারতের অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মরত শ্রমিকরা ই-শ্রম কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবে। এই কার্ডে আবেদন করতে হলে বয়স হতে হবে 16 থেকে 59 বছর। তবে যে সব ব্যাক্তি EPF বা ESI-র সুবিধা পায়, তারা এই কার্ডের সুবিধা পাবে না।

Ads

আবেদন পদ্ধতি: E Shram Card এর সুবিধা নেওয়ার জন্য আজই আবেদন সেরে ফেরুল। কেন্দ্র সরকার ই-শ্রম কার্ডের জন্য আলাদা ভাবে পোর্টাল খুলেছে। সরকারি পোর্টালটি হলো www.eshram.gov.in। এই ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনি এই কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারেন। এর জন্য উক্ত পোর্টালে গিয়ে আপনার মোবাইল নম্বর দিয়ে রেজিস্টার করে নিতে হবে।

পুরনো আধার কার্ড বাতিল, ফের লম্বা লাইনে দাঁড়াতে হবে? কী করতে হবে? জানুন

তারপর সঠিক তথ্য আবেদনপত্র পূরণ এবং প্রয়োজনীয় নথি স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে। এই কাজটি আপনি আপনার স্মার্টফোন থেকেও করতে পারেন কিংবা নিকটবর্তী কোনো CSC সেন্টারে গিয়েও করতে পারেন। আবেদন করার সময় গুরুত্বপূর্ণ কিছু নথি অবশ্যই লাগবে, যেমন আধার কার্ড, আধার কার্ডের সঙ্গে লিঙ্ক থাকা মোবাইল নম্বর এবং ব্যাঙ্কের বই।

সুখবর বাংলা

Leave a Comment

Advertisement