WBCHSE – উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষ নিয়ে নতুন ঝামেলা। পরীক্ষার্থী ও শিক্ষক, উভয়ের জানা দরকার।

রাজ্যের উচ্চ মাধ্যমিক পরিচালনা করে WBCHSE অর্থাৎ West Bengal Council of Higher Secondary Education. এবারে পরীক্ষার ঠিক আগেই সংসদ থেকে জানালো নতুন কিছু নির্দেশিকা। এগুলি না জানলে হয়তো সামান্য ভুল পদক্ষেপে হতে পারে অনেক বড় শাস্তি। তাই অহেতুক ঝামেলা এড়াতে জানতে হবে এই নতুন নির্দেশিকা। এবারের উচ্চ মাধ্যমিকে লক্ষ লক্ষ পরীক্ষার্থীর সুবিধার্থেই আগে থেকে নির্দেশিকা দিয়ে বিষয়টি সম্পর্কে জানিয়ে দিল WBCHSE.

Advertisement

WBCHSE কর্তৃক প্রকাশিত নিয়ম লঙ্ঘন করলেই হবে উচ্চ মাধ্যমিকের রেজিস্ট্রেশন বাতিল।

১৪ মার্চ, মঙ্গলবার থেকে রাজ্য জুড়ে শুরু হচ্ছে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। পরীক্ষার প্রাক মুহুর্তে পর্ষদের তরফে  একগুচ্ছ নির্দেশিকা জারি করা হল। এর মধ্যেই প্রথমেই পর্ষদ কড়া অবস্থান জানিয়েছে পরীক্ষার হলে ফোন ব্যবহার করা নিয়ে। পরীক্ষা চলাকালীন তো নয়ই, এমনকী পরীক্ষা কেন্দ্রেও মোবাইল ফোন নিয়ে ঢোকা যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে পর্ষদ। পরীক্ষার হলে মোবাইলের ব্যবহার রুখতে জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষায় ব্যবহৃত রেডিয়ো ফ্রিকোয়েন্সির বিশেষ প্রযুক্তিও এ বার পাইলট প্রজেক্ট হিসাবে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় ব্যবহার করতে চলেছে সংসদ।

মোবাইল বা স্মার্টওয়াচ বা অন্যান্য কোনো ইলেকট্রনিক যন্ত্র সহ পরীক্ষার হলে ধরা পড়লে অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন বাতিল করা হবে সংসদের তরফে। এমন হলে সেই  পরীক্ষার্থী আর কখনও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় বসতে পারবেন না। সাথে জানানো হয়েছে, পরীক্ষার্থীদেরকে পরীক্ষা শুরুর ঘণ্টাখানেক আগেই পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে হবে। পরীক্ষা শুরু হবে সকাল ১০টা থেকে আর পরীক্ষা শেষ হবে ১টা ১৫ মিনিটে।

Ads

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে WBCHSE. না জানলেই হবে পরীক্ষা বাতিল!

সংসদ তথা WBCHSE জানিয়েছে যে, দুপুর ১২টা ৪৫ মিনিটের আগে পরীক্ষার হল থেকে কেউ বেরোতে পারবেন না। পর্ষদের তরফে আরও জানানো হয়েছে, পরীক্ষার হলে অভিভাবকেরা প্রবেশ করতে পারবেন না। পরীক্ষা হলের ভিতরে বা বাইরে পরীক্ষার্থীরা নিজেদের মধ্যে কোনোরকম কথা বলতে পারবেন না। পরীক্ষার্থীদের সাথে করে আনতে হবে পেন, পেনসিল, কালি, রবার এবং ইনস্ট্রুমেন্ট বক্স।

Advertisement

উচ্চ মাধ্যমিক বাংলা সাজেশন 2023 – বাংলায় ভালো নম্বর পাওয়ার শেষ মুহূর্তের টিপস।

অন্য কোনো পরীক্ষার্থীদের থেকে পরীক্ষা চলাকালীন এ সব জিনিস নেওয়া যাবে না। কোনো পরীক্ষাকেন্দ্রের ভিতর কোনও অপ্রত্যাশিত ঘটনা হলে সেই কেন্দ্রের পরীক্ষার্থীদের ফলাফল স্থগিত করে দেওয়া হবে। নেওয়া হবে অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে উপযুক্ত পদক্ষেপও। পরীক্ষার্থীরা অ্যাডমিট কার্ড এবং রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেটের উপর কিছু লিখতে পারবেন না। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০২৩ শিক্ষাবর্ষে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবেন ৮ লক্ষেরও বেশি পরীক্ষার্থী।
Written by Parna Banerjee.

Advertisement

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement