রাজ্যের স্কুলে স্কুলে চালু হলো নতুন নিয়ম। স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর নির্দেশে শিক্ষকদের নতুন কি কি দায়িত্ব বাড়লো, জেনে নিন।

শিক্ষকদের ওপরে বর্তাচ্ছে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর 13 দফা গাইডলাইন, না মানলেই মুশকিল।

এমনিতেই শিক্ষকদেরকে বিদ্যালয়ে পড়াশোনার পাশাপাশি রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর নির্দেশিকা মেনে মিড ডে মিল থেকে শুরু করে সারা বছর ধরেই দায়িত্বের সাথে একাধিক কর্মসুচি পালন করতে হয়। তবে এবারে শিক্ষকদের ঘাড়ে স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর নতুন আরো 13 দফা গাইডলাইন এর এক নতুন কর্মসুচি পালনের নির্দেশিকা জারি হয়ে গেল এই পুজোর ছুটির মধ্যেই। আসুন জেনে নেওয়া যাক, কি কি কাজ করতে হবে পুজোর ছুটির পরপরই।

Advertisement

রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর নির্দেশে গত 30 শে সেপ্টেম্বর থেকে প্রত্যেক স্কুলে পূজাবকাশ শুরু হয়ে 27 শে অক্টোবর তা শেষ হচ্ছে। আর রাজ্যের প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলি 3-4 ধাপে ভেঙে দিয়েছে পূজার ছুটি। রাজ্য প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলি ছন্দে ফিরবে আগামী 1 লা নভেম্বর থেকেই। তবে এরপর থেকে চালু হতে চলেছে নতুন নির্দেশিকা।

সারা বছর স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর নিয়ম মেনে পড়াশোনা করার পর নতুন ক্লাসে উঠতে গেলেই ছাত্র ছাত্রীদের মেলে মার্কশিট, সার্টিফিকেট। আর কলেজে বা বিশ্ববিদ্যালয়ে এই মার্কশিট বিতরণ নিয়েই অনুষ্ঠিত হয় বিভিন্ন প্রোগ্রাম। তবে এবারে আর শুধুমাত্র কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রেই নয়, বরং এই অনুষ্ঠান প্রবেশ করতে চলেছে প্রত্যেক স্কুলে। এই নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে একাধিক গাইডলাইন।

Ads

সারা বছর ধরেই পড়াশোনা চলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলিতে। মেনে চলা হয় স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর নানা গাইডলাইন। তবে বছর শেষে স্কুল গুলিতে এই রেজাল্ট, সার্টিফিকেট বিতরণী ইবার থেকে পালন করতে হবে, “Graduation Ceremony”. ইতিমধ্যেই রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা দপ্তর এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদের কাছে পাঠানো হয়েছে নির্দেশিকা। জেনে বিষয়টি জেনে নেওয়া যাক বিস্তারিত ভাবে।

Advertisement

আগামী বছর 2023 সাল থেকেই স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর এই নতুন নিয়ম কার্যকরী হচ্ছে। প্রতি বছরই 2 রা জানুয়ারি তারিখে রাজ্যের স্কুলগুলিতে পড়ুয়াদের দিতে হবে এই নতুন বিশেষ সম্মান। স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর পাঠানো গাইডলাইন গুলি এক নজরে দেখে নেওয়া যাক।
1. প্রতিবছর 2 রা জানুয়ারি বা তারপরের দিনগুলি থেকে করতে হবে এই “Graduation Ceremony”.
2. এক ক্লাস থেকে পরবর্তী ক্লাসে ওঠা প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীদের জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহেই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সম্মান জানাবেন।

Advertisement

3. ক্লাস টিচার চকলেট, মিষ্টি দিয়ে ছাত্রছাত্রীদের স্বাগত জানাবেন তার ক্লাসে।
4. ক্লাস টিচার সব ছাত্রছাত্রীদের একসঙ্গে করে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাগত জানাবেন।
5. সব নবাগত ছাত্রছাত্রীরা ক্লাস টিচারকে তাদের পরিচয় জানাবে।
6. স্কুলের প্রধান শিক্ষক বা ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বা ক্লাস টিচার নবাগত ছাত্র ছাত্রীদের স্কুলের ইতিহাস বলবেন। পাশাপাশি রাজ্য সরকার স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের বই, স্কুলের ইউনিফর্ম, জুতো, স্কুলব্যাগ, স্বাস্থ্য পরিসেবা, মিড ডে মিল পরিষেবা গুলোর যে সুবিধা প্রদান করছে সেগুলির সম্পর্কে বিশদে জানাবেন।

Ads

বাড়ছে পুজোর ছুটি। সমস্ত স্কুলই খুলবে ভাইফোঁটার পরদিন। কিন্তু কাদের ক’দিন, জেনে নিন।

7. প্রত্যেক স্কুলে একটি নির্দিষ্ট ফটো কর্নার থাকবে, যেখানে সব ছাত্রছাত্রীদের ফটো জন্ম তারিখ সহ লাগাতে হবে।
8. ক্লাস টিচারের সঙ্গে ছাত্রছাত্রীদের ফটো নিতে হবে প্রত্যেক বছর এবং সেটাও ফটো কর্নারে লাগাতে হবে।
9. প্রধান শিক্ষকের স্বাক্ষর করা একটি ধন্যবাদ জানিয়ে চিঠি প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীদের দিতে হবে।
10. ক্লাস মনিটর, কালচারাল মনিটর, স্পোর্টস মনিট,র মিড ডে মিল মনিটর এর মনোনয়ন এই সময়সীমার মধ্যেই করতে হবে।

11. গ্রুপ লার্নিং এর জন্য ছাত্রছাত্রীদের যুক্তকরণ, এই নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যেই করতে হবে।
12. ছাত্রছাত্রীদের ক্লাসে বসার ব্যবস্থা এমনভাবেই করতে হবে, যেটা পঠন-পাঠনের স্বার্থে সর্বাধিক ভালো হয়।
13. এই অনুষ্ঠানের বা সম্মান জানানোর গোটা বিষয়টি তথ্যচিত্র আকারে তৈরি করতে হবে এবং প্রত্যেক বছর স্কুলগুলিকে বুকলেট আকারে তা প্রকাশ করতে হবে।

পুজো কাটতেই রাজ্য সরকারি কর্মীদের আরও 3টি ছুটি ঘোষণা। কোন কোন দিন অফিস বন্ধ থাকবে, দেখুন।

স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর দেওয়া উপরোক্ত 13 দফার এই বিশাল গাইডলাইন মেনে কাজ করতে হবে রাজ্যের প্রত্যেক বিদ্যালয়ে। এই উৎসব সাধারণত উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রেই পালিত হতো। তবে এবারে পড়ুয়াদের আরো বেশি বেশি গুরুত্ব দিতেই এই পদ্ধতি আনা হচ্ছে স্কুলে। বাইরের দেশে এই রীতি চালু থাকলেও এদেশে তা নতুন করেই উৎসাহ জোগাবে বলেই মন্তব্য শিক্ষা মহলে।

রাজ্যে ড্রপ আউট পড়ুয়াদের সংখ্যা কমাতে এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদেরা। এর ফলে রাজ্যে স্কুলমুখী পড়ুয়ার সংখ্যা বাড়বে বলেই মত প্রকাশ করেছেন তারা। তবে স্কুল গুলিতে রয়েছে নির্ধারিত শিক্ষকের সংখ্যায় ঘাটতি। যদিও শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে এখন বেশ তৎপর রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তর। তবে এই নতুন উদ্যোগকে কিভাবে বাস্তবায়িত করতে শুরু করে স্কুলগুলি, সেটাই এখন দেখার। এমন আরো খবর পেতে সর্বদা চোখ রাখুন আমাদের ওয়েবসাইটে। আপনার মূল্যবান মতামত অবশ্যই জানান কমেন্ট বক্সে। ধন্যবাদ।
Written by Mukta Barai.

সম্পাদক

1 thought on “রাজ্যের স্কুলে স্কুলে চালু হলো নতুন নিয়ম। স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর নির্দেশে শিক্ষকদের নতুন কি কি দায়িত্ব বাড়লো, জেনে নিন।”

Leave a Comment

Advertisement