Life Certificate – পেনশন গ্রাহকদের সুখবর। লাইফ সার্টিফিকেট নিয়ে বিরাট সিদ্ধান্ত।

চাকরি থেকে অবসর গ্রহনের পর সরকারী বা একাধিক সংস্থার অবসর প্রাপ্ত কর্মীদের পেনশন (Jeevan Praman Life Certificate) চালু হয়। আর প্রতিবছর এই পেনশন নবায়ন বা renew করার জন্য জীবন প্রমান পত্র বা Life Certificate জমা দিয়ে তিনি যে বেঁচে আছেন, সেটার প্রমান দিতে হয়। আর এই সময় শুধুমাত্র নভেম্বর মাস থাকায়। একসাথে কম সময়ে অনেকেই Life Certificate জমা করেন, বিধায় ব্যাংক ও পোস্ট অফিসে প্রচুর ভীড় হয়। এছাড়া শারীরিক অসুস্থতার কারনে অনেকেই ব্যাংক বা পোস্ট অফিসে গিয়ে Life Certificate জমা করতে পারেন না। যার জেরে এবার সরকারের তরফ থেকে আরও অনেক বিকল্প পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। যার জেরে উপকৃত হবেন কোটি কোটি পেনশন গ্রাহকেরা।

Advertisement

How to submit Life Certificate in 7 ways

লাইফ সার্টিফিকেট জমা করার পদ্ধতি

আপনি যদি একজন পেনশনভোগী হন তবে আপনি এই উপায়গুলির মাধ্যমে জীবন শংসাপত্র বা লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিতে পারবেন। উপায়গুলি জানতে আরো পড়ুন।
Life Certificate জমা করতে নভেম্বর মাসটি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই মাসে সমস্ত পেনশন প্রাপকদের তাদের জীবন শংসাপত্র বা লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিতে হবে। এটি করা বাধ্যতামূলক।

কারণ সার্টিফিকেট জমা না দিলে, সামনে মাস থেকে পেনশন না ও পেতে পারেন। সেই জন্য পেনশনভোগীদের লাইফ সার্টিফিকেট (Life Certificate) অবশ্যই জমা দেওয়া প্রয়োজন। সুপার সিনিয়র সিটিজেন অর্থাৎ ৮০ বছরের বেশি বয়সী প্রবীণ নাগরিকদের জন্য এই সুবিধা ১ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে। তবে ৬০ বছর থেকে ৭৯ বছরের বেশি বয়সী প্রবীণ নাগরিকরা তাদের জীবন শংসাপত্র জমা দিতে সক্ষম হবেন। জীবন শংসাপত্র জমা দেওয়ার সময় ১ নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত। আপনি যদি আপনার জীবন শংসাপত্র খুব সহজেই জমা দিতে চান তাহলে এই উপায় গুলি অবলম্বন করতে পারেন।

Ads

How to submit Life Certificate online

আপনি এই ৭ পদ্ধতির মাধ্যমে লাইফ সার্টিফিকেট (Life Certificate) জমা দিতে পারেন
১) আপনি পোস্টম্যান পরিষেবার মাধ্যমে ডিজিটাল পদ্ধতিতে জীবন শংসাপত্র জমা দিতে পারেন।
২) ফেস অথেনটিকেশনের সাহায্যে জীবন শংসাপত্র জমা দেবেন।
৩) আধারভিত্তিক ডিজিটাল লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিন।

Advertisement

৪) এছাড়া ব্যাংক অথবা পোস্ট অফিসে গিয়ে নিজের শংসাপত্র খুব সহজেই জমা দেওয়া সম্ভব।
৫) ডোর স্টেপ ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে লাইফ সার্টিফিকেট জমা দেওয়া অন্যতম একটি উপায়।
৬) উমং মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে জীবন শংসাপত্র জমা দিতে পারেন।
৭) সর্বশেষ পদ্ধতি, জীবন প্রমাণ পোর্টালের মাধ্যমে আপনার জীবন শংসাপত্র জমা দিতে পারেন।

Advertisement

পেনশনভোগীদের জীবন শংসাপত্র জমা দেওয়ার সময়সীমাঃ
১ নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত উপরোক্ত ৭ উপায়ে জমা দিতে পারবেন লাইফ সার্টিফিকেট।

Ads
Click Here

Life Certificate submission at Door step

লাইফ সার্টিফিকেট জমা দেওয়ার জন্য ডোর স্টেপ ব্যাঙ্কিং পদ্ধতি
স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার গ্রাহকদের ডোর স্টেপ ব্যাঙ্কিং-এর মাধ্যমে জীবন শংসাপত্র জমা দেওয়ার সুবিধা রয়েছে। এই সুবিধাটি পেতে আপনার কাছে আধার নম্বর, মোবাইল নম্বর, আঁধারের সঙ্গে লিঙ্ক যুক্ত ব্যাঙ্ক একাউন্ট, বায়োমেট্রিক বিবরণ, পিপিও নম্বর, পেনশন একাউন্ট নম্বর এবং ব্যাঙ্ক ডিটেলস এর মতো তথ্য অবশ্যই থাকা জরুরী।

ডোর স্টেপ ব্যাঙ্কিং এর মাধ্যমে লাইফ সার্টিফিকেট জমা দেবেন কি করে?

১) প্রথমেই এসবিআই ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য ভালো করে পড়ুন।
২) এরপরে আপনার মোবাইলের ডোর স্টেপ ব্যাঙ্কিং অ্যাপ ডাউনলোড করুন।
৩) আপনার মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিজেকে রেজিস্টার করুন।
৪) এরপর আপনার মোবাইল নাম্বারে OTP আসবে, সেটিকে লিখুন।

আরও পড়ুন, অল্প সময়েই টাকা ডবল! পোস্ট অফিসের এই দুর্দান্ত স্কিম সাড়া ফেলেছে সারা দেশে।

৫) তারপর আপনার পিন কোড, পাসওয়ার্ড এবং নিয়মাবলী পড়ুন এবং সব টিক দিন।
৬) ব্যাঙ্ক অফিসারদের কাছে ভিজিট টাইম নির্বাচন করুন লাইফ সার্টিফিকেট জমা দেওয়ার জন্য।
৭) এই পরিষেবার জন্য অ্যাকাউন্ট থেকে নেওয়া হবে।
৮) ব্যাঙ্ক থেকে সময়মত সময় ব্যাঙ্কে পুনরায় আসবার সময় ও তারিখের SMS আপনার ফোনে পাঠাবে।

আরও পড়ুন, LIC এর মুনাফা একধাক্কায় কমলো!! গ্রাহকদের পলিসির টাকার কি হবে?

৯) ব্যাঙ্ক কর্তৃক পাঠানো SMS -এ আপনার নাম ও অন্যান্য বিবরণ লিপিবদ্ধ থাকবে। সেটি অবশ্যই দেখে নেবেন।
১০) এরপরে ব্যাঙ্ক থেকে অফিসার নির্দিষ্ট সময় আসবে এবং আপনার জীবন শংসাপত্র সংগ্রহ করে নেবে।
এই বিষয়ে আরও তথ্যের জন্য সরকারী ওয়েবসাইট ফলো করুন। আমাদের কমেন্ট করেও নিচে প্রশ্ন করতে পারেন। এই প্রতিবেদনটি সকলকে শেয়ার করুন।

সুখবর বাংলা

Leave a Comment

Advertisement