2000 Note Ban News – 2000 টাকার নোট বাতিল, কোথায় ও কিভাবে জমা দেবেন, RBI এর নির্দেশ।

India 2000 Note Ban News বাতিল নিয়ে নিয়ম জেনে নিন।

মনে পড়ে যাচ্ছে ২০১৬ সালের নোট বাতিলের সময় দেশ জুড়ে দুর্বিসহ স্মৃতির কথা। আর এবার 2000 Note Ban News বা ২০০০ টাকার নোট নিয়ে নতুন নির্দেশ রিজার্ভ ব্যাংকের। ফের দেশজুড়ে ২০০০ টাকার নোট বাতিল নিয়ে রব উঠলো। এবার ২০০০ টাকার নোট বাতিল করে দেওয়া হলো। তবে ২০১৬ সালে ডিমনিটাইজেশনের সিদ্ধান্ত যেমন আচমকাই দেশজুড়ে ঘোষনা করে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবার একটু অন্য পথে হেঁটে সরাসরি রিজার্ভ ব্যাংকের তরফে ২ হাজার টাকার নোট বাতিলের কথা ঘোষণা করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে RBI এর তরফে জানানো হয়েছে, ক্লিন নোট নীতির অধীনেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Advertisement

ফের মনে পড়ে যাচ্ছে, দেশজুড়ে সাধারন মানুষ যাদের কাছে ২০০০ টাকার নোট (2000 Note Ban News) রয়েছে, তারা ব্যাংকগুলিতে পড়িমড়ি করে ছুটে জমা দিতে যাবেন। তার কারণ ২০০০ টাকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্তেও আগের ডিমনিটাইজেশনের মতোই সমস্ত সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে (India 2000 Note Ban News). RBI এর তরফে নির্দিষ্ট সময়সীমা এবং জমা দেওয়ার টাকার অংকের সীমাও নির্ধারণ করা হয়েছে।

RBI এর তরফে জানানো হয়েছে, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ এর মধ্যে ব্যাংকের শাখায় গিয়ে ২ হাজার টাকার নোট জমা দিয়ে দিতে হবে। ২৩ মে থেকেই সমস্ত ব্যাংকে এই প্রক্রিয়া চালু হয়ে যাবে অর্থাৎ ২৩ মে থেকেই দেশবাসী ২০০০ টাকার নোট ব্যাংকগুলির শাখায় গিয়ে জমা দিয়ে দিতে পারবেন। এবার কিভাবে ২০০০ টাকার নোট জমা দেবেন?

Ads

কিভাবে নোট জমা দেবেন?

সেক্ষেত্রে RBI এর তরফে জানানো হয়েছে, যে কোনো একজন গ্রাহক সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত ২০০০ টাকার নোট ব্যাংকের শাখায় জমা দিতে পারবেন। তার বিনিময়ে ৫০০, ২০০ বা ১০০ টাকার নোট তিনি নিয়ে নিতে পারবেন (2000 Note Ban News). ব্যাংকের যেকোনো শাখায় গিয়েই ২০০০ টাকার নোট বিনিময় করা যাবে। সেক্ষেত্রে কোনো ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট হোল্ডার না হলেও অর্থাৎ নন অ্যাকাউন্ট হোল্ডাররাও (Non Account Holder) যেকোনো ব্যাংকের শাখায় গিয়ে ২ হাজার টাকার নোট বিনিময় করতে পারবেন।

Advertisement

কতদিন পর্যন্ত 2000 টাকার নোট চালু থাকবে?

এবার আর বি আই এর এই ঘোষণা অনুযায়ী সহজেই ধরে নেওয়া যায়, ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্তই 2000 টাকার নোট আদান প্রদান করা যাবে। তবে এই সময়ের মধ্যে টাকা জমা দিয়ে দিতে হবে ব্যাংকের শাখায়। তারপরে এই নোট আর বাজারে প্রচলন হবে না অর্থাৎ ২ হাজার টাকার এই নোট বাতিল করে দেওয়া হবে। ফলে ৩০ সেপ্টেম্বর সময়সীমা পর্যন্তই ২০০০ টাকার নোট যদি কাছে থাকে, স্থানীয় ব্যাংকের শাখায় গিয়ে জমা দিয়ে দিন। তাছাড়া RBI এর ১৯ টি আঞ্চলিক দপ্তরেও এই নোট জমা দেওয়া যাবে।

Advertisement

যে সমস্ত ব্যাংকের শাখা ব্যাংকবিহীন এবং আন্ডার ব্যাংকিং সিস্টেমে গ্রাহকদের ব্যাংকিং সুবিধা প্রদান করে থাকে, সেই সমস্ত শাখাতেও টাকা জমা দেওয়া যাবে। তবে সে ক্ষেত্রে প্রতিদিনের সীমা হল ৪ হাজার টাকা। আর বি আই এর তরফে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ২০০০ টাকার নোট জমা দেওয়ার সময় প্রবীণ নাগরিক এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে ব্যাংকের তরফে সুবিধা দিতে হবে।

Ads

সপ্তাহ শেষে আবারও উর্দ্ধমুখী সোনার দাম, পকেটে টান মধ্যবিত্তের, রুপোয় প্রতি গ্রামে কত খরচ পড়ছে?

২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যখন নোট বাতিলের (Demonitisation) ঘোষণা করেন, তখন জানানো হয়েছিল, ১ হাজার টাকার নোট থাকার ফলে কালোবাজারি, জাল নোটের মত অপরাধ মূলক কাজকর্ম বাড়ছে (2000 Note Ban News). ফলে সেই জালনোট (Fake Note) এবং কালোবাজারির মত অপরাধকে বন্ধ করার জন্য ১ হাজার টাকার নোট বাতিল করে ২ হাজার টাকার নোট চালু করা হয়েছিল।

সরকারি কর্মচারীদের পোঁয়া বারো, বছরে 42 দিন অতিরিক্ত ছুটি! জানুন কবে কবে?

এবার আবার সেই ২০০০ টাকার নোট বাতিল করা হচ্ছে (2000 Note Ban News). এক্ষেত্র সেই একই বক্তব্য উঠে আসছে, কালো বাজারি এবং জাল নোট রোধ করা কি সম্ভব হয় নি? বিরোধী দল থেকে শুরু করে দেশবাসী প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন, জাল নোট বন্ধ করার জন্য ১ হাজার টাকার নোট বাতিল করে চালু হলো ২ হাজার টাকার নোট। এবার ফের ২ হাজার টাকার নোট বাতিল। এর পরে কি করা হবে? সেদিকেই নজর দেশবাসীর।

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement