Post Office Schemes – প্রতিদিন স্বল্প টাকা বিনিয়োগে পোস্ট অফিসের এই স্কিম থেকে পেয়ে যান 16 লক্ষ টাকা!

Post Office Schemes – পোস্ট অফিসে ঝুঁকিহীন ও নিরাপদ বিনিয়োগের সবচেয়ে দুর্দান্ত স্কিম সম্বন্ধে জানুন এখনই।

প্রত্যেক ব্যক্তি এখন রোজগারের পাশাপাশি বিনিয়োগ ও সঞ্চয় (Post Office Schemes) করে থাকেন। তবে সেক্ষেত্রে কেউ পছন্দ করেন ব্যাংকে, কেউবা পোস্ট অফিসে, কেউবা অন্য কোন বিনিয়োগকারী সংস্থায় বা শেয়ার মার্কেটে বিনিয়োগ করতে। সেক্ষেত্রে বেশিরভাগ মানুষের চান যাতে বিনিয়োগ হয় নিরাপদ এবং ঝুঁকিহীন। এক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভরসা করেন ব্যাংক এবং পোস্ট অফিসের স্বল্প এবং দীর্ঘমেয়াদের নানা স্কিমের ওপর।

Advertisement

তবে যেহেতু ব্যাংকের তুলনায় পোস্ট অফিসে (Post Office Schemes) সুদের হার বেশি মেলে ক্ষেত্রে বেশিরভাগ লোকই পছন্দ করেন পোস্ট অফিসের বিভিন্ন স্কিমে বিনিয়োগ করতে। আজ পোস্ট অফিসের এমন একটি সেভিংস স্কিম নিয়ে আলোচনা করতে চলেছি যেটি বিনিয়োগকারীদের মেয়াদ শেষে দিচ্ছে ১৬ লক্ষ টাকা। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক স্কিম সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য।

পোস্ট অফিসের রেকারিং ডিপোজিট (RD) স্কিমে (Post Office Schemes) মাত্র ১০০ টাকা থেকে শুরু করা যাবে আপনার মূল্যবান অর্থ বিনিয়োগ। প্রতিমাসে ন্যূনতম মাসিক ইনস্টলমেন্টের পরিমাণ ১০০ টাকা হলেও এর কোন উর্ধ্বসীমা নেই। অর্থাৎ প্রতি মাসে বিনিয়োগকারীরা ইচ্ছামত টাকা জমা করতে পারবেন তাদের অ্যাকাউন্টে। এর পাশাপাশি অ্যাকাউন্ট খোলার এক বছরের মধ্যে ডিপোজিট মানির ৫০ শতাংশ পর্যন্ত টাকা তুলে নেওয়া যাবে। বর্তমানে এই স্কিমে সুদের হার রয়েছে ৫.৮ শতাংশ, যেটি ক্রমে বাড়বে চক্রবৃদ্ধি সুদের হারে।

Ads

অন্যদিকে বিনিয়োগকারীরা যদি প্রতি মাসে ১০ হাজার টাকা অর্থাৎ প্রতিদিন ৩৩৩ টাকা করে জমান (Post Office Schemes) সেক্ষেত্রে এক বছরে পাওয়া যাবে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। আর যদি এটি ১০ বছর পর্যন্ত চালানো যায় তবে সুদ আসল মিলিয়ে মোট পাওয়া যাবে ১৬ লক্ষের থেকেও বেশি টাকা।

Advertisement

আজ থেকে কার্যকর হলো নয়টি ক্ষেত্রে বড়সড় নিয়ম, জানুন

অন্যদিকে বলা যায় রেকারিং ডিপোজিটের মোট সময়কাল ৫ বছর হলেও আমানতকারীরা চাইলে সেটির মেয়াদ আরো ৫ বছরের জন্য বাড়াতে পারেন। সেক্ষেত্রে প্রতি মাসে জমা দিতে হবে টাকা। যদি পরপর ৪ মাস কোনো ইনস্টলমেন্ট বা টাকা জমা না পরে (Post Office Schemes) সেক্ষেত্রে বন্ধ করে দেওয়া হবে সেই অ্যাকাউন্ট। তবে আমানতকারীরা চাইলে পুনরায় সেই অ্যাকাউন্টটি সচল করতে পারেন। তবে সেক্ষেত্রে সময় লাগবে আরো দু মাস এবং প্রতি মাসে আমানতকারীদের থেকে কাটা হবে ১ শতাংশ করে চার্জ।

Advertisement

তাহলে আর দেরি না করে এখনি ঠিক করে ফেলুন কত বছরের জন্য করবেন পোস্ট অফিসে বিনিয়োগ। তবে বিনিয়োগের মেয়াদ যত বেশি হবে ততই মিলবে বেশি পরিমাণে টাকা। প্রতিদিন আরো নিত্য নতুন খবরের আপডেট পেতে ফলো করতে ভুলবেন না এই ওয়েব পোর্টালটি।
Written by Manisha Basak.

Ads

পরীক্ষার আগেই প্যানেল তৈরী, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে নয়া দুর্নীতি ফাঁস, দেখুন সেই লিস্ট

মাত্র 300 টাকা দিয়ে ব্যবসা শুরু করে প্রতি মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করা সম্ভব, কিভাবে? জানুন

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement