2 মে থেকে ঘোষিত গরমের ছুটি বাতিলের আবেদন জমা পড়লো, মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে আলোচনা।

২০২৩ সালের ছুটির লিস্ট অনুযায়ী ২৪শে মে থেকে ০৪ই জুন পর্যন্ত অর্থাৎ মাত্র ১০ দিন ছিলো গরমের ছুটি। কিন্তু এপ্রিলের শুরুতেই গরমের বাড়বাড়ন্তে সেই ছুটি কে এগিয়ে ২ রা মে থেকে করা হয়। অর্থাৎ তিন সপ্তাহ এগিয়ে আসে ছুটি। কিন্তু কয়েকদিনেই গরমের রেকর্ড ছাড়াতেই ১ সপ্তাহের জন্য আপদকালীন ছুটি ঘোষণা করা হয়। আর সেই ছুটি শেষের পর গতকাল মুখ্যমন্ত্রী আবার জানিয়ে দেন আগামী ২রা মে থেকে গরমের ছুটি পড়ছে।

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গের গরমের ছুটি নিয়ে ভাবনাচিন্তা

অর্থাৎ আগের নির্দেশ মতোই আগামী ২৯ এপ্রিল ক্লাস হয়ে রাজ্যের সমস্ত সরকারি ও পোষিত স্কুলে গরমের ছুটি পড়ে যাবে। কিন্তু এই ছুটির বিরোধিতা করে স্বয়ং প্রধান শিক্ষকেরা আবেদন করেছেন, যেন এই ছুটি বাতিল করা হয়। আর একাধিক শিক্ষক সংগঠন ও মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি পাঠিয়েছেন। আর এর পরেই জল্পনা শুরু হয়েছে যে ঘোষিত গরমের ছুটি বাতিল হবে কি?

সংবাদ সুত্রে জানা গেছে, পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম প্রধান শিক্ষক সংগঠন ‘এডভান্স সোসাইটি ফর হেডমাস্টার্স এন্ড হেডমিস্ট্রেস’ এর তরফে সাধারণ সম্পাদক চন্দন মাইতি মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে আবেদন জানিয়েছেন, যেন এই ছুটি বাতিল করা হয়। আর সেই সাথে কয়েকটি বিষয় উল্লেখ করেছেন, যে কারন গুলোর জন্য রাজ্য সরকার এই ছুটি নিয়ে পুনর্বিবেচনা করতে পারে। প্রথমত কর্ম দিবস তথা শিক্ষণ দিবস কমে যাচ্ছে। যেটা শিক্ষার অধিকার আইন এর পরিপন্থী। এছাড়া CCE বা নিরবিচ্ছিন্ন সার্বিক মুল্যায়ন এর ও ব্যাঘাত ঘটছে যা পড়ুয়াদের সার্বিক বিকাশের পরিপন্থী।

Ads
DA News(ডিএ নিউজ)

যদিও এবারের গরম অন্য বছরের মতো নয়। গরমের জন্য অতিরিক্ত ছুটি করেছে সারা দেশের বিভিন্ন রাজ্য। ওড়িশা, পাঞ্জাব, রাজস্থান, মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ সহ একাধিক রাজ্য ১ মাসের ও অধিক গরমের ছুটি দিয়েছে। তাছাড়া বর্তমানে শিশুরা কোভিডে আক্রান্ত হচ্ছে। আর সমস্ত পরিস্থিতি বিবেচনা করেই মুখ্যমন্ত্রী এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে গতকাল ফের এই একই বিবৃতি সকলের সামনে তুলে ধরেন।

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গের স্কুলে নতুন ছুটির তালিকা প্রকাশ, 35 টি অতিরিক্ত ছুটি ঘোষণা।

Advertisement

যদিও ক্লাস না হলে পড়াশোনার ক্ষতি হবে সেটা বলার অপেক্ষা রাখেনা। কিন্তু পড়ুয়াদের শারীরিক ক্ষতি হলে সেটার দায় কেউ নেবেনা, একথাও সত্যি। পরিবেশ বা প্রাকৃতিক দুর্যোগে কারো কিছু করার থাকে না। আর সবকিছু মিলিয়ে রাজ্য শিক্ষা দপ্তর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যদি এই ব্যাপারে কোনও নতুন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়,
সেটা অবশ্যই ‘সুখবর বাংলা’ তে আপডেট দেওয়া হবে। সঙ্গে থাকুন, ‘সুখবর বাংলা’ ফলো করুন।

Ads

সুখবর বাংলা

1 thought on “2 মে থেকে ঘোষিত গরমের ছুটি বাতিলের আবেদন জমা পড়লো, মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে আলোচনা।”

  1. If the spinal of the nation thought the betterment of the blooming citizens of the the nation, they have not been continuing ever the strike for DA. It’s nothing but the crocodile🐊 tears.

    Reply

Leave a Comment

Advertisement