Madhyamik Suggestion 2024 - মাধ্যমিকের সাজেশন ২০২৪

আগামী 2nd ফেব্রুয়ারী থেকে শুরু হতে চলেছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। আর এই পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য আমরা এনেছি কিছু Madhyamik Suggestion 2024. শেষে মুহূর্তে পরীক্ষার্থীরা জোর কদমে প্রস্তুতি চালিয়ে যাচ্ছে। বিজ্ঞান বিষয়গুলি বরাবর একটু কঠিন লাগে পড়ুয়াদের কাছে। আজ তাই মাধ্যমিকের কিছুদিন আগে বিজ্ঞান বিষয়টি নিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কৌশল আপনাদের জানাবো। আজ আলোচনা জীবন বিজ্ঞান বিষয়টি নিয়ে। মাধ্যমিকের জন্য জীবন বিজ্ঞান কীভাবে পরবেন বা কোনো কোনো বিষয়গুলি মাথায় রাখবেন? আজকের প্রতিবেদন থেকে জেনে নিন।

Advertisement

WBBSE Life Science Madhyamik Suggestion 2024

  • প্রশ্নের ধরণ
  • কীভাবে সময় ভাগ করবেন?
  • শেষে মুহূর্তের প্রস্তুতি
  • কোন জিনিসগুলো মাথায় রাখবেন?

প্রশ্নের ধরণ

মাধ্যমিকের জীবন বিজ্ঞান (Madhyamik Suggestion 2024) বিষয়ে চারটি বিভাগে প্রশ্ন করা হয়, যেমন বিভাগ ‘ক, খ, গ ও ঘ’। এর মধ্যে প্রথম বিভাগে অর্থ ‘ক’ এ থাকে MCQ. 15 টি এমসিকিউ দেওয়া থাকে এবং সব কটি প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়। এরপর ‘খ বিভাগে থাকে 26 টি অতি সংক্ষিপ্ত ধর্মী প্রশ্ন। এর মধ্যে থেকে 21 টি প্রশ্নের উত্তর করতে হয়। ‘ক’ ও ‘খ’ বিভাগ মিলিয়ে নব্বর বরাদ্দ থাকে 36. বিভাগ ‘গ’ এ 2 নম্বরের প্রশ্ন থাকে। এখানে 17 টি প্রশ্নের মধ্যে 12 টি করতে হয়। আর বিভাগ ‘ঘ’ এ থাকে 5 নম্বরের প্রশ্ন 6 টি উত্তর করতে হয়। যার মধ্যে একটি অঙ্কনধর্মী।

শিক্ষক শিক্ষিকাদের উপর ‘বাড়তি দায়িত্ব’ দিলেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। নিয়ম না মানলে কঠিন শাস্তি

কীভাবে সময় ভাগ করবেন?

মাধ্যমিক পরীক্ষাটি হয় 3 ঘন্টা 15 মিনিটের। এর মধ্যে প্রথম 15 মিনিট প্রশ্ন দেখে নেবেন এবং কোনো কোনো উত্তর করবেন তা মার্ক করে নেবেন। উত্তর লেখার জন্য ‘ক’ বিভাগে 15 মিনিট, ‘খ’ বিভাগে 25 মিনিট, ‘গ’ বিভাগে 35 মিনিট এবং ‘ঘ’ বিভাগে 90 মিনিট সময় ধরে লিখবেন। অবশিষ্ট শেষে 15 মিনিট ভালো করে খাতা রিভিউ করে নেবেন (Madhyamik Suggestion 2024).

Ads
Madhyamik Exam (মাধ্যমিক পরীক্ষা)

শেষে মুহূর্তের প্রস্তুতি

পরীক্ষার শেষে (Madhyamik Suggestion 2024) মুহূর্তে প্রস্তুতির জন্য পাঠ্যবই সহ টেস্ট পেপার ও বিগত বছরের প্রশ্নগুলির সমাধান করবেন। এই কয়েকটি দিন দিনে অন্ততপক্ষে 1 থেকে 2 ঘন্টা করে বিজ্ঞান পড়বেন। মনে রাখবেন বিজ্ঞানের 5 টি বিষয় সমান গুরুত্ব দিয়ে পড়তে হবে। অনেকেই জীবন বিজ্ঞানের পঞ্চম অধ্যায়কে বাদ দিয়ে দেয় বা অবহেলা করে। তবে মাথায় রাখবেন এই অধ্যায় থেকে সবচেয়ে বেশি প্রশ্ন করা হয়।

Advertisement

মাধ্যমিকের ইতিহাস পরীক্ষার ভালো কিছু সাজেশন পেতে হলে বিশেষজ্ঞদের মতামত দেখে নিন।

কোন জিনিসগুলো মাথায় রাখবেন?

  • উত্তর দাগ নম্বর অনুযায়ী পরপর লিখবে এবং প্রতিটি বিভাগের উত্তর শেষে হওয়ার পর এন্ডিং লাইন দেবে।
  • পরীক্ষার খাতা থাকবে পরিষ্কার পরিছন্ন, কোনো প্রকার কাটাকুটি করলে দৃষ্টিকটু লাগে।
  • যে যে জায়গায় ছবি দেওয়া যাবে, ছবি আঁকবে। ছবির বিশেষত বিশেষত অংশ চিহ্নিত করতে হবে। খাতার বামদিকে ছবি আঁকবে।
  • অভিযোজন অধ্যায় থেকে বৈশিষ্ট্য প্রশ্নে আসলে, গুরুত্বও লিখতে হবে।
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *