Leave Rules – সরকারি কর্মীরা আর ইচ্ছেমতো ছুটি নিতে পারবে না। ছুটির আবেদন জানাতে হবে এইভাবে।

রাজ্যে সরকারের কর্মীদের ছুটির (Leave Rules) আবেদন করার জন্য চালু হলো নতুন একটু পোর্টাল। ইতিমধ্যে সক্রিয় করা এই পোর্টালটির নাম হলো এইচআরএমএস পোর্টাল। ছুটির আবেদন আর কোনো ভাবেই হাতে লেখা যাবেনা। এই পোর্টাল খোলা হয়েছে সরকারী কর্মচারীদের ছুটি নিয়ে সচ্ছতা বজায় রাখার জন্য। অনেক সময় যা সরকারি ছুটি চাকুরীজীবিদের পাওনা ছিল তা তারা পান না। আবার কখনও কখনও প্রয়োজনের বেশি ছুটি পেয়ে যায়।

Advertisement

WB Govt Employees New Leave Rules Apply Online

এই সিস্টেম এখন শুধু মাত্র অর্থ দপ্তরে কার্যকর করা হয়েছে। পরবর্তীতে অন্য সকল দপ্তরের ক্ষেত্রেও এই একই নিয়ম বলবৎ করা হবে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে ‘ছুটি যেমনই হোক ক্যাজুয়াল লিভ বা কপসেন্সেটরি লিভ ছুটির আবেদন জানাতে হবে হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম ব্যবহার করেই।

কোনো কর্ম চারী যদি অনলাইনে ছুটির (Leave Rules) আবেদন করতে না পারেন বা অনলাইনে প্রসিডিওর না বুঝতে পারেন তবে তাকে সাহায্য করবে অন্য কোনো ঊর্ধ্বতন কর্মচারী। গ্রুপ ইনচার্জরা এই ছুটি মঞ্জুরের দায়িত্বে থাকবেন। আপাতত এই সিস্টেমের আয়তাভুক্ত থাকবেন গুপ ডি কর্মী সহ উপসচিব।

Ads

অনলাইনে যদি কোনো সমস্যা দেখা দেয় তাহলে তার সমাধান খুঁজে বার করবে অর্থদপ্তর। এই সিস্টেম মেনে কাজ করার অর্থ একটাই অফলাইন ছুটির আবেদন দিলে তার হিসেব মেলাতে অসুবিধা হচ্ছে। এই ছুটির (Leave Rules) হিসাব যদি কম্পিউটার রাখে তাহলে সকলের পক্ষেই এর সত্যতা নিয়ে আর কোনো সন্দেহের কারণ থাকেনা।

Advertisement

রাজ্যের সমস্ত শিক্ষকদের 40% বেতন ছাড়াও অবসরকালীন ভাতাও বাড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী।

অফলাইনে আবেদনের ফলে অনেকে বেশি বেশি করে ছুটির টাকা পেয়ে যাচ্ছেন। কোনো সরকারি কর্মী অবসরের সময় সবচেয়ে বেশি ৩০০ দিনের ছুটি বেতন (Leave Rules) পেতে পারেন। সুতরাং সরকার এই কারণেই একটি সিস্টেমেটিক পদ্ধতি অনুসরণের দিকে জোর দিচ্ছে।

Advertisement
Ad Hoc Bonus বা উৎসব ভাতা

এবার থেকে অনলাইন ছাড়া অফলাইনে (Leave Rules) ছুটির আবেদন মঞ্জুর করা হবেনা। এছাড়া কোনো কর্মচারী যদি অনলাইনে আবেদন করেন তারপর সে সেই ছুটিটির অনুমতি পাচ্ছেন কম তা নিয়েও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

Ads

পশ্চিমবঙ্গে বদলে গেল ছুটি নেওয়ার নিয়ম। রাজ্য সরকারি কর্মীদের অগ্রীম এইভাবে আবেদন করতে হবে।

এছারাও মুখ্যমন্ত্রী সম্প্রতি DA বৃদ্ধি করেছেন, সাথে আশা কর্মী ও বিভিন্ন গ্রুপ ডি প্রার্থী সহ সিভিক ভলেন্টিয়ারদের বেতন বৃদ্ধি ও পদন্নোতি করেছেন। উৎসব ভাতার পরিমাণও বেশ ভালো পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়েছেন। সুতরাং কাজের ক্ষেত্রে বিভিন্ন ক্ষেত্রের সরকারি কর্মীদের থেকে কাজের অথেনটিসিটি তিনি সহ কেন্দ্র সরকার আশা করেন।

সম্পাদক

Leave a Comment

Advertisement